ঢাকা ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

মঠবাড়িয়ায় ৯৬ ফুট উচ্চতার প্রতিমায় চালছে কালী পূজা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:০৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৪৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সোহেল, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ ঠাকুর বাড়িতে চলছে ৯৬ ফুট (৬৪ হাত) উচ্চতার বড়দা কালী প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান। বুধবার গভীর রাত থেকে এ পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে।

সরস্বতী পূজার আগের দিন রাত থেকে ৫ দিনব্যাপী এ বড়দা কালী পূজা ও ও সরস্বতী মায়ের উৎসব ঘিরে দেশের দূরদূরান্ত হতে লক্ষাধিক মানুষের পদচারণা ঘটে উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ ঠাকুর বাড়িতে। বুধবার রাত থেকে শুরু হওয়া এ বিশালাকৃতির কালী প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান আগামী রোববার শেষ হবে।

মন্দিরের সেবায়েত সন্তোষ মিস্ত্রী জানান, গত ৩২ বছর ধরে প্রতিবছর সরস্বতী পূজার একদিন আগে এ ঐতিহ্যবাহী কালি পূজা শুরু হয়ে টানা ৫ দিন উৎসব চলে। ১৯৯০ সালে তিন ফুট উচ্চতার কালী প্রতিমা দিয়ে এ মন্দির প্রাঙ্গণে পূজা শুরু হয়। প্রতিবছর প্রতিমার উচ্চতা বাড়তে বাড়তে এবার ৯৬ ফুটের প্রতিমা নির্মিত হয়। এছাড়া ৯৮ ফুট লম্বা মহাদেব প্রতিমাও নির্মাণ করা হয়েছে।

কালী পূজার আয়োজক হরি চাঁদ ঠাকুর শ্রী নির্মল চন্দ্র চাঁদ ঠাকুর জানান, গত ৩২ বছর ধরে এ পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একবার গায়ে (গ্রামে) জলবসন্ত রোগে মহামারী দেখা দেয়। হরি মন্দিরের সেবায়েত স্বপ্নে কালী পূজা দেয়ার জন্য নির্দেনা পান। এরপর থেকে প্রতিবছর এ কালী পূজার আয়োজন চলে আসছে।

মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান এবিএম ফারুক হাসান বলেন, এতবড় কালী প্রতীমা এশিয়ার  কোনো দেশে আর কোথাও আছে কিনা আমার জানা নেই। এটাই এশিয়ার সবচেয়ে বড় কালী প্রতীমা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক বলেন, উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের শ্রী নির্মল চন্দ্র চাঁদ ঠাকুর বাড়ির প্রতিমার মতো বড় মা-কালী প্রতিমা বাংলাদেশে আর কোথাও আছে বলে আমার মনে হয় না। পূজা সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য উপজেলা প্রশাসন সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

বা/খ: এসআর।

নিউজটি শেয়ার করুন

মঠবাড়িয়ায় ৯৬ ফুট উচ্চতার প্রতিমায় চালছে কালী পূজা

আপডেট সময় : ০৩:০৬:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩

সোহেল, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ ঠাকুর বাড়িতে চলছে ৯৬ ফুট (৬৪ হাত) উচ্চতার বড়দা কালী প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান। বুধবার গভীর রাত থেকে এ পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে।

সরস্বতী পূজার আগের দিন রাত থেকে ৫ দিনব্যাপী এ বড়দা কালী পূজা ও ও সরস্বতী মায়ের উৎসব ঘিরে দেশের দূরদূরান্ত হতে লক্ষাধিক মানুষের পদচারণা ঘটে উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ ঠাকুর বাড়িতে। বুধবার রাত থেকে শুরু হওয়া এ বিশালাকৃতির কালী প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান আগামী রোববার শেষ হবে।

মন্দিরের সেবায়েত সন্তোষ মিস্ত্রী জানান, গত ৩২ বছর ধরে প্রতিবছর সরস্বতী পূজার একদিন আগে এ ঐতিহ্যবাহী কালি পূজা শুরু হয়ে টানা ৫ দিন উৎসব চলে। ১৯৯০ সালে তিন ফুট উচ্চতার কালী প্রতিমা দিয়ে এ মন্দির প্রাঙ্গণে পূজা শুরু হয়। প্রতিবছর প্রতিমার উচ্চতা বাড়তে বাড়তে এবার ৯৬ ফুটের প্রতিমা নির্মিত হয়। এছাড়া ৯৮ ফুট লম্বা মহাদেব প্রতিমাও নির্মাণ করা হয়েছে।

কালী পূজার আয়োজক হরি চাঁদ ঠাকুর শ্রী নির্মল চন্দ্র চাঁদ ঠাকুর জানান, গত ৩২ বছর ধরে এ পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একবার গায়ে (গ্রামে) জলবসন্ত রোগে মহামারী দেখা দেয়। হরি মন্দিরের সেবায়েত স্বপ্নে কালী পূজা দেয়ার জন্য নির্দেনা পান। এরপর থেকে প্রতিবছর এ কালী পূজার আয়োজন চলে আসছে।

মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান এবিএম ফারুক হাসান বলেন, এতবড় কালী প্রতীমা এশিয়ার  কোনো দেশে আর কোথাও আছে কিনা আমার জানা নেই। এটাই এশিয়ার সবচেয়ে বড় কালী প্রতীমা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক বলেন, উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের শ্রী নির্মল চন্দ্র চাঁদ ঠাকুর বাড়ির প্রতিমার মতো বড় মা-কালী প্রতিমা বাংলাদেশে আর কোথাও আছে বলে আমার মনে হয় না। পূজা সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য উপজেলা প্রশাসন সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

বা/খ: এসআর।