ঢাকা ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ভোলায় ঘূর্ণিঝড়ে দুই জনের মৃত্যু

ভোলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১২:৫০:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
  • / ৪২১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঘূ‌র্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ভোলায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৭ মে) ভোর ৪টা এবং ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এই দুজনের মৃত্যু হয়।

সোমবার (২৭ মে) ভোর ৪টায় নিহত হয় পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে শিশু মাইশা প্রতিবন্ধী মনিরের মেয়ে।।

শিশুর বাবা মনির জানায়, প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে থাকি, ভোর ৪টার দিকে হঠাৎ একটি গাছ আমার ঘরের ওপর চাপা দেয়। সে সময় গাছ ও টিনের চাল আমাদেরকে চাপা দিলে আমার মেয়ে মারা যায়। এসময় আমিও গাছের নিচে চাপা পরে থাকি। পরে স্থানীয়রা এসে আমাকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে দৌলতখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সত্যরঞ্জন খাসকেল বলেন, গাছ চাপা পড়ে শিশুর মৃত্যুর খবর পেয়েছি। খবর পেয়ে ঘঠনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, জেলার লালমোহন উপজেলার প‌শ্চিম চরউমেদ ইউ‌নিয়নের চরউমেদ গ্রামের ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মনেজা খাতুন (৫০) নামে এক নারীর ঘর চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে।

ভোলার জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান এ নিশ্চিত করে জানান, নিহতের পরিবারকে সহায়তা প্রদান করা হবে।

অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পৌর ২নং ওয়ার্ড বটতলা, মাছঘাট ও শহর রক্ষাবাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ঢেউয়ের পরে ঢেউ আছড়ে পড়ছে বাঁধের ওপর। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে কিছু বসতঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

এদিকে ঝড়ে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ২০/২৫টি কাচা ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। বাধ ধসে প্লাবিত হয়েছে অন্তত ৩০ গ্রাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

ভোলায় ঘূর্ণিঝড়ে দুই জনের মৃত্যু

আপডেট সময় : ১২:৫০:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

ঘূ‌র্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ভোলায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৭ মে) ভোর ৪টা এবং ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এই দুজনের মৃত্যু হয়।

সোমবার (২৭ মে) ভোর ৪টায় নিহত হয় পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে শিশু মাইশা প্রতিবন্ধী মনিরের মেয়ে।।

শিশুর বাবা মনির জানায়, প্রতিদিনের মতো রাতের খাবার খেয়ে শুয়ে থাকি, ভোর ৪টার দিকে হঠাৎ একটি গাছ আমার ঘরের ওপর চাপা দেয়। সে সময় গাছ ও টিনের চাল আমাদেরকে চাপা দিলে আমার মেয়ে মারা যায়। এসময় আমিও গাছের নিচে চাপা পরে থাকি। পরে স্থানীয়রা এসে আমাকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে দৌলতখান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সত্যরঞ্জন খাসকেল বলেন, গাছ চাপা পড়ে শিশুর মৃত্যুর খবর পেয়েছি। খবর পেয়ে ঘঠনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, জেলার লালমোহন উপজেলার প‌শ্চিম চরউমেদ ইউ‌নিয়নের চরউমেদ গ্রামের ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মনেজা খাতুন (৫০) নামে এক নারীর ঘর চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে।

ভোলার জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান এ নিশ্চিত করে জানান, নিহতের পরিবারকে সহায়তা প্রদান করা হবে।

অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে পৌর ২নং ওয়ার্ড বটতলা, মাছঘাট ও শহর রক্ষাবাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ঢেউয়ের পরে ঢেউ আছড়ে পড়ছে বাঁধের ওপর। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে কিছু বসতঘর ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

এদিকে ঝড়ে জেলার বিভিন্ন এলাকায় ২০/২৫টি কাচা ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। বাধ ধসে প্লাবিত হয়েছে অন্তত ৩০ গ্রাম।