ঢাকা ০২:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ভোটারের তালিকায় গড়মিল থাকায় সিরাজগঞ্জ ৩ আসনে ৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

আশরাফুল ইসলাম রনি, তাড়া‌শ (সিরাজগঞ্জ) প্র‌তি‌নি‌ধি
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৭৬৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সিরাজগঞ্জ ৩ সংসদীয় আসনে ৭ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। রবিবার (৩ ডি‌সেম্বর) সকালে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ শামসুদ্দিন সম্মেলন কক্ষে সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে জেলা প্রশাসক ও রিটানিং অফিসার মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান এ ঘোষণা দেন।

এদিকে মনোনয়ন বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ দাবি করে নির্বাচন কমিশনে আপিল করার ঘোষণা দিয়েছেন বাতিল হওয়া প্রার্থীরা। বাছাই শেষে সিরাজগঞ্জ-৩ (রায়গঞ্জ ও তাড়াশ) আসনে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

বাতিল হওয়া প্রার্থীর হলেন, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সুইট (স্বতন্ত্র), রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরিফুল আলম খন্দকার (স্বতন্ত্র), রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল হালিম খান দুলাল (আওয়ামী লীগ স্বতন্ত্র) ও সলঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সদস্য স্বপন কুমার রায় (আওয়ামী লীগ স্বতন্ত্র), নুরুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), মোজাফফর হোসেন (স্বতন্ত্র) ও মুক্তিজোটের প্রার্থী নুরুল ইসলাম প্রামানিকের মনোনয়ন পত্র এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় গড়মিল  থাকায়  প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সুইট বলেন, এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় গড়মিল দেখিয়ে বেছে বেছে শুধু স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। ভুল হলে দুই একজনের হবে।

অপর দি‌কে আওয়ামী লীগের (স্বতন্ত্র) প্রার্থী স্বপন কুমার রায় বলেন, ‘আমি ৪ হাজার ২০০ জন ভোটারের স্বাক্ষর জমা দিয়েছে। কিন্তু ৫২৮ জন ভোটারের স্বাক্ষর কম রয়েছে জানিয়ে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল হালিম খান দুলাল বলেন, ‘নিয়মাবলীর কোথাও ১% স্বাক্ষরে ভোটার নম্বর দেওয়ার কথা বলা হয়নি। অথচ সেই অজুহাতে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।’

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘নিয়ম মেনেই প্রার্থীদের কাগজপত্র বাছাই করা হয়েছে। যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে তারা ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

ভোটারের তালিকায় গড়মিল থাকায় সিরাজগঞ্জ ৩ আসনে ৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল

আপডেট সময় : ০৫:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

সিরাজগঞ্জ ৩ সংসদীয় আসনে ৭ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। রবিবার (৩ ডি‌সেম্বর) সকালে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ শামসুদ্দিন সম্মেলন কক্ষে সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে জেলা প্রশাসক ও রিটানিং অফিসার মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান এ ঘোষণা দেন।

এদিকে মনোনয়ন বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ দাবি করে নির্বাচন কমিশনে আপিল করার ঘোষণা দিয়েছেন বাতিল হওয়া প্রার্থীরা। বাছাই শেষে সিরাজগঞ্জ-৩ (রায়গঞ্জ ও তাড়াশ) আসনে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

বাতিল হওয়া প্রার্থীর হলেন, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সুইট (স্বতন্ত্র), রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরিফুল আলম খন্দকার (স্বতন্ত্র), রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল হালিম খান দুলাল (আওয়ামী লীগ স্বতন্ত্র) ও সলঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সদস্য স্বপন কুমার রায় (আওয়ামী লীগ স্বতন্ত্র), নুরুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), মোজাফফর হোসেন (স্বতন্ত্র) ও মুক্তিজোটের প্রার্থী নুরুল ইসলাম প্রামানিকের মনোনয়ন পত্র এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় গড়মিল  থাকায়  প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সুইট বলেন, এক শতাংশ ভোটারের তালিকায় গড়মিল দেখিয়ে বেছে বেছে শুধু স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। ভুল হলে দুই একজনের হবে।

অপর দি‌কে আওয়ামী লীগের (স্বতন্ত্র) প্রার্থী স্বপন কুমার রায় বলেন, ‘আমি ৪ হাজার ২০০ জন ভোটারের স্বাক্ষর জমা দিয়েছে। কিন্তু ৫২৮ জন ভোটারের স্বাক্ষর কম রয়েছে জানিয়ে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী রায়গঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল হালিম খান দুলাল বলেন, ‘নিয়মাবলীর কোথাও ১% স্বাক্ষরে ভোটার নম্বর দেওয়ার কথা বলা হয়নি। অথচ সেই অজুহাতে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।’

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মীর মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘নিয়ম মেনেই প্রার্থীদের কাগজপত্র বাছাই করা হয়েছে। যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে তারা ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন।

 

বাখ//আর