ঢাকা ০৫:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ভারতীয় লোকসভার স্পিকারের সাথে স্পিকার শিরীন শারমিনের সাক্ষাৎ

ক্রীড়া ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০:২১:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৫৭০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আজ দিল্লিতে ভারতের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সাক্ষাৎকালে তাঁরা বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক, আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক অবস্থা, পি২০ ইস্যু, জি২০ সামিট, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ ও জলবায়ু সমস্যা প্রসঙ্গে আলোচনা করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বদ্বীপ হিসেবে বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। এই বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় উভয় দেশের সংসদ সদস্যরা সম্মিলিতভাবে কাজ করতে পারে।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ-ভারত আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক অবস্থা সাদৃশ্যপূর্ন। এ ধরনের সমস্যা সমাধানে দুই দেশ একযোগে কাজ করতে পারে। তিনি বলেন, পি২০ সম্মেলনটি খুবই সময়োপযোগী। ‘ওয়ান আর্থ, ওয়ান ফ্যামিলি, ওয়ান ফিউচার’- শ্লোগানকে সামনে রেখে দুইদেশের সংসদ সদস্যরা অন্তর্ভূক্তিমূলক টেকসই উন্নয়নে নিবেদিত হতে পারে।

স্পিকার আরও বলেন, সংসদ জনগণের কন্ঠস্বর। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে বাংলা আবালবৃদ্ধবনিতা অংশগ্রহণ করেছিল। এসময় তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষ অবলম্বনের জন্য এবং সারা বিশ্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য প্রচারণা চালানোর জন্য ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি ভারতের নতুন সংসদ ভবনের প্রশংসা করেন এবং জি২০ সম্মেলনে প্রধানপমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

ভারতের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা বলেন, বাংলাদেশ ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ভবিষ্যতে আরও সুদৃঢ় হবে। বাংলাদেশ ভারতের সম্পর্ক উন্নয়নে এবং পারস্পরিক সহযোগীতায় পূর্বের ন্যায় ভবিষ্যতেও ভারত বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এসময় ওম বিড়লা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের এবং স্পিকার হিসেবে শিরীন শারমিন চৌধুরীর অভিজ্ঞতার প্রশংসা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ভারতীয় লোকসভার স্পিকারের সাথে স্পিকার শিরীন শারমিনের সাক্ষাৎ

আপডেট সময় : ১০:২১:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর ২০২৩

আজ দিল্লিতে ভারতের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সাক্ষাৎকালে তাঁরা বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক, আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক অবস্থা, পি২০ ইস্যু, জি২০ সামিট, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ ও জলবায়ু সমস্যা প্রসঙ্গে আলোচনা করেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বদ্বীপ হিসেবে বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। এই বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় উভয় দেশের সংসদ সদস্যরা সম্মিলিতভাবে কাজ করতে পারে।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ-ভারত আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক অবস্থা সাদৃশ্যপূর্ন। এ ধরনের সমস্যা সমাধানে দুই দেশ একযোগে কাজ করতে পারে। তিনি বলেন, পি২০ সম্মেলনটি খুবই সময়োপযোগী। ‘ওয়ান আর্থ, ওয়ান ফ্যামিলি, ওয়ান ফিউচার’- শ্লোগানকে সামনে রেখে দুইদেশের সংসদ সদস্যরা অন্তর্ভূক্তিমূলক টেকসই উন্নয়নে নিবেদিত হতে পারে।

স্পিকার আরও বলেন, সংসদ জনগণের কন্ঠস্বর। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে বাংলা আবালবৃদ্ধবনিতা অংশগ্রহণ করেছিল। এসময় তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষ অবলম্বনের জন্য এবং সারা বিশ্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য প্রচারণা চালানোর জন্য ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি ভারতের নতুন সংসদ ভবনের প্রশংসা করেন এবং জি২০ সম্মেলনে প্রধানপমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

ভারতের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা বলেন, বাংলাদেশ ভারত বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ভবিষ্যতে আরও সুদৃঢ় হবে। বাংলাদেশ ভারতের সম্পর্ক উন্নয়নে এবং পারস্পরিক সহযোগীতায় পূর্বের ন্যায় ভবিষ্যতেও ভারত বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এসময় ওম বিড়লা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের এবং স্পিকার হিসেবে শিরীন শারমিন চৌধুরীর অভিজ্ঞতার প্রশংসা করেন।