শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৫৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও তাদের আশ্রয়দাতাদের চাহিদা পূরণে পাশে আছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ভেন্যু নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব শুক্রবার কেটে যাবে: হারুন ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচের দিন ঝড়বৃষ্টির শঙ্কা চিকিৎসকরা উপজেলায় যেতে চান না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সচিবরা নিজেদের রাজা মনে করেন: হাইকোর্ট বিএনপি চায় কমলাপুর স্টেডিয়াম, ডিএমপি বলছে বাঙলা কলেজ নারী শিক্ষার প্রসারে বেগম রোকেয়ার অবদান অন্তহীন প্রেরণার উৎস: প্রধানমন্ত্রী ‘বিয়ে’ করছেন শুভ-অন্তরা! দুজনেরই সিদ্ধান্ত বিয়ে করব না: নুসরাত ফারিয়া স্পিকারের সঙ্গে চীন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ হাসপাতালে রোগীদের বারবার একই টেস্ট বন্ধ কর‍তে হবে : মেয়র আতিক নয়াপল্টনে ‘সহিংসতা’র সুষ্ঠু তদন্ত চায় যুক্তরাষ্ট্র ফখরুল সাহেব, হুঁশ হারাবেন না, অবস্থা শিশুবক্তার মতো হবে: হানিফ রাঙ্গাবালীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ  সাঁথিয়ায় অটোবাইক চাপায় প্রাণ গেল শিশুর

ভারতকে লজ্জায় ডুবিয়ে ফাইনালে ইংল্যান্ড

ভারতকে লজ্জায় ডুবিয়ে ফাইনালে ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক : 

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ফাইনালের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল আগেই। বুধবার (৯ নভেম্বর) বাবর আজমের দল নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচে পা দিয়ে রেখেছিল। কিন্তু  ভারত সেই পথে হাঁটতে পারলো না। ইংল্যান্ডের দুই ওপেনারের কাছে পাত্তা পেলো না রোহিত শর্মার দল।

টি-২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ভারতকে ১০ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে ইংল্যান্ড। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে কোহলি ও হার্দিকের ব্যাটে ভর করে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৮ রান সংগ্রহ করে ভারত। ১৬৯ রানের টার্গেটে বাটলার ও হেলসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২৪ বল হাতে রেখে ১০ উইকেটের বড় জয় পেয়েই ফাইনালে ওঠে ইংল্যান্ড।

১৬৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ওভারের প্রথম বলেই চার মারেন জস বাটলার। প্রথম বল ওয়াইড করেন ভুবনেশ্বর কুমার। এরপর ওভারে তৃতীয় ও শেষ বলে চার মেরেন বাটলার। প্রথম ওভার থেকে ১৩ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড।

এরপর দ্বিতীয় ওভারে প্রথম বলে সিঙ্গেল নেন আলেক্স হেলস। স্ট্রাইক পেয়েই ওভারের দ্বিতীয় বলে ফের চার মারেন বাটলার। পরের বল ওয়াইড করেন ভারতের পেসার আর্শদিপ শিং। ওভারের তৃতীয় ও চতুর্থ বল ডট দেন আর্শদিপ। পঞ্চম বলে সিঙ্গেল নেন বাটলার। শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করেন হেলস।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ফের বোলিংয়ে আসেন ভুবনেশ্বর কুমার। প্রথম বল ডট দেন তিনি। দ্বিতীয় বলে সিঙ্গেল নিয়ে বাটলারকে স্ট্রাইক দেন হেলস। তৃতীয় বলে ফের সিঙ্গেল নেন বাটলার। ওভারের চতুর্থ বলে দুই রান নেন হেলস। পঞ্চম বলে ছক্কা হাঁকান তিনি। ওভারের শেষ বলে দুই রান নিয়ে ওভার শেষ করেন হেলস। ৩ ওভারে বিনা উইকেটে ৩৩ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড।

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে স্পিনার অক্ষর প্যাটেলকে বোলিংয়ে আনেন রোহিত শর্মা। ওভারের প্রথম বলেই চার মারেন বাটলার। পরের বলে সিঙ্গেল নেন তিনি। তৃতীয় বলে ডট দিয়ে চতুর্থ বলে সিঙ্গেল নেন হেলস। এরপর পঞ্চম ও ছষ্ঠ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করে ইংল্যান্ড।

পঞ্চম ওভারে বোলিংয়ে আসেন মোহাম্মদ শামি। প্রথম বল ডট দেন তিনি। তবে দ্বিতীয় বলেই ছক্কা হাঁকান হেলস। ওভারের তৃতীয় ও চতুর্থ বল ডট দেন শামি। পঞ্চম বলে হেলসের ব্যাটের কানায় লেগে চার হয়ে যায়। শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করেন হেলস।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে দ্বিতীয় বলে অক্ষর প্যাটেলকে ছক্কা হাঁকান হেলস। তৃতীয় বলে সিঙ্গেল নেন তিনি। ওভারের চতুর্থ ও পঞ্চম বল ডট দেন অক্ষর প্যাটেল। শেষ বলে চার মারেন বাটলার। ৬ ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৬৩ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড।

সপ্তম ওভারে এক ছক্কায় আরও ১২ রান স্কোরবোর্ডে জমা করেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার। ইনিংসের অষ্টম ওভারের দ্বিতীয় বলে ছক্কা হাঁকান আলেক্স হেলস। পরের বল ডট দিয়ে চতুর্থ বলে সিঙ্গেল নেন তিনি। পঞ্চম বলে সিঙ্গেল নেন বাটলার। শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করেন হেলস। এই সিঙ্গেলে ২৮ বলে নিজের অর্ধশতক পূরন করেন হেলস।

ইনিংসের নবম ওভারে বোলিংয়ে আসেন হার্দিক পান্ডিয়া। ওভারের দ্বিতীয় বলে দৌড়ে চার রান নেন বাটলার ও হেলস। তৃতীয় বলে ডট দিয়ে চতুর্থ বলে দুই রান নেন বাটলার। ওভারের পঞ্চম ও শেষ বল ডট দেন হার্দিক পান্ডিয়া।

দশম ওভারে আবারও বোলিংয়ে আসেন আর্শদীপ সিং। ওভারের প্রথম বলেই চার মারেন হেলস। পরের বলে সিঙ্গেল নেন হেলস। তৃতীয় ও চতুর্থ বল ডট দেন আর্শদীপ। পঞ্চম বলে সিঙ্গেল নেন বাটলার। শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওভার শেষ করেন হেলস। ১০ ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৯৮ রান সংগ্রহ করে ইংল্যান্ড।

ইনিংসের ১১ তম ওভারে ১০ রান নেন আলেক্স হেলস ও বাটলার। এরপর ১২ তম ওভারের পঞ্চম বলে ছক্কা ও শেষ বলে চার মারেন আলেক্স হেলস। ইনিংসের ১৩ তম ওভারের চতুর্থ বলে চার মারেন বাটলার। শেষ বলে ছক্কা মেরে ৩৬ বলে অর্ধশতক পূরণ করেন জস বাটলার।

এরপর ১৪ তম ওভারে তৃতীয় বলে চার মারেন বাটলার। ওভারের পঞ্চম বলে ছয় ও শেষ বলে চার মারেন বাটলার। ইনিংসের ১৫ তম ওভারে মাত্র ২ রান নেন দুই ইংলিশ ব্যাটার। ১৬ তম ওভারে চতুর্থ বলে চার ও শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ৪ ওভার হাতে রেখেই ১০ উইকেটের জয় পায় ইংল্যান্ড। আলেক্স হেলস ৪৭ বলে ৮৬ ও জস বাটলার ৪৯ বলে ৮০ রান করে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন।

প্রথম সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান।  রোববার (১৩ নভেম্বর) শিরোপা নির্ধারণী ফাইনাল ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ২০০৯ সালের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে খেলাটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *