ঢাকা ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ব্যাংকের নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মান কাজ শেষ

ভাড়া করা ভবনে অস্বস্তিকর পরিবেশে ব্যাংকের কার্যক্রম চলছে, গ্রাহকদের ভোগান্তি

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৬:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৫৫০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সোনালী ব্যাংক পিএলসি শাখাটির মনিরামপুর বাজারে নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। ভাড়া করা ভবন থেকে নতুন ভবনে শাখা স্থানান্তর না হওয়ায় ভোগান্তিতে পরেছে গ্রাহক ও ওই ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬ মাসের বেশি সময় হলো ব্যাংকটির মনিরামপুর বাজারে নিজস্ব জায়গায় ভবন নির্মান কাজ শেষ হলেও বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি না পাওয়ায় ভবন স্থানান্তর করা সম্ভব হচ্ছে না বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাংকটি শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, মনিরামপুর বাজারে তাদের ব্যাংকের নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করায় এ জন্য শাখাটি বর্তমানে দ্বারিয়াপুর বাজারে একটি ভাড়া করা ভবনে কার্যক্রম চলছে। সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর এ শাখায় প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ হাজার গ্রাহক রয়েছে। ব্যাংকটিতে মোট আমানতের টাকার পরিমান প্রায় ১শত ১৭ কোটি টাকা। বিপুল সংখ্যক গ্রাহক নিয়ে বর্তমানে দ্বারিয়াপুর বাজারে প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকা ভাড়ায় এ শাখাটির কার্যক্রম চালু থাকলেও স্থান সংকুলান না হওয়ায় গাদাগাদি করে ব্যাংকটির দৈনন্দিন কাজ চলছে।

জানা গেছে প্রতিদিন এ ব্যাংকটিতে লেনদেন ও ট্রেজারির কাজে প্রায় দেড়হাজার লোকের সমাগম ঘটে। শীত মৌসুমে কিছুটা স্বস্তি সাথে ব্যাংকিং কাজ করা সম্ভব হলেও গরমের সময় লোকের গাদাগাগি করার কারণে অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যে ব্যাংকটির কার্যক্রম পরিচালনা করতে হয়।

এই ব্যাংকের একজন গ্রাহক আতিকুল ইসলাম রতন জানান বর্তমানে ব্যাংকের শাখাটি যেখানে রয়েছে সেখানে স্থান সংকুলান না হওয়ায় জরুরী প্রয়োজন ছাড়া তার মতো অনেকেই ব্যাংকটিতে সেবা নিতে অনিহা প্রকাশ করেন।

ব্যাংকটির একাধিক সূত্রে জানা গেছে নতুন ব্যাংক ভবন নির্মাণের পর আসবাবপত্র ও বিদ্যুৎ সংযোগ লাগলেও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পাওয়ায় মনিরামপুর বাজারে তাদের নিজস্ব্ ভবনে তাদের ব্যাংকের শাখাটির পুনরায় স্থানান্তর না হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে হাজারও গ্রাহক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিরা ।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

ব্যাংকের নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মান কাজ শেষ

ভাড়া করা ভবনে অস্বস্তিকর পরিবেশে ব্যাংকের কার্যক্রম চলছে, গ্রাহকদের ভোগান্তি

আপডেট সময় : ০৩:৫৬:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সোনালী ব্যাংক পিএলসি শাখাটির মনিরামপুর বাজারে নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। ভাড়া করা ভবন থেকে নতুন ভবনে শাখা স্থানান্তর না হওয়ায় ভোগান্তিতে পরেছে গ্রাহক ও ওই ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬ মাসের বেশি সময় হলো ব্যাংকটির মনিরামপুর বাজারে নিজস্ব জায়গায় ভবন নির্মান কাজ শেষ হলেও বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি না পাওয়ায় ভবন স্থানান্তর করা সম্ভব হচ্ছে না বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

এ ব্যাংকটি শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, মনিরামপুর বাজারে তাদের ব্যাংকের নিজস্ব জায়গায় নতুন ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করায় এ জন্য শাখাটি বর্তমানে দ্বারিয়াপুর বাজারে একটি ভাড়া করা ভবনে কার্যক্রম চলছে। সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর এ শাখায় প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ হাজার গ্রাহক রয়েছে। ব্যাংকটিতে মোট আমানতের টাকার পরিমান প্রায় ১শত ১৭ কোটি টাকা। বিপুল সংখ্যক গ্রাহক নিয়ে বর্তমানে দ্বারিয়াপুর বাজারে প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকা ভাড়ায় এ শাখাটির কার্যক্রম চালু থাকলেও স্থান সংকুলান না হওয়ায় গাদাগাদি করে ব্যাংকটির দৈনন্দিন কাজ চলছে।

জানা গেছে প্রতিদিন এ ব্যাংকটিতে লেনদেন ও ট্রেজারির কাজে প্রায় দেড়হাজার লোকের সমাগম ঘটে। শীত মৌসুমে কিছুটা স্বস্তি সাথে ব্যাংকিং কাজ করা সম্ভব হলেও গরমের সময় লোকের গাদাগাগি করার কারণে অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যে ব্যাংকটির কার্যক্রম পরিচালনা করতে হয়।

এই ব্যাংকের একজন গ্রাহক আতিকুল ইসলাম রতন জানান বর্তমানে ব্যাংকের শাখাটি যেখানে রয়েছে সেখানে স্থান সংকুলান না হওয়ায় জরুরী প্রয়োজন ছাড়া তার মতো অনেকেই ব্যাংকটিতে সেবা নিতে অনিহা প্রকাশ করেন।

ব্যাংকটির একাধিক সূত্রে জানা গেছে নতুন ব্যাংক ভবন নির্মাণের পর আসবাবপত্র ও বিদ্যুৎ সংযোগ লাগলেও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পাওয়ায় মনিরামপুর বাজারে তাদের নিজস্ব্ ভবনে তাদের ব্যাংকের শাখাটির পুনরায় স্থানান্তর না হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে হাজারও গ্রাহক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিরা ।

 

বাখ//আর