শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও তাদের আশ্রয়দাতাদের চাহিদা পূরণে পাশে আছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ভেন্যু নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব শুক্রবার কেটে যাবে: হারুন ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচের দিন ঝড়বৃষ্টির শঙ্কা চিকিৎসকরা উপজেলায় যেতে চান না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সচিবরা নিজেদের রাজা মনে করেন: হাইকোর্ট বিএনপি চায় কমলাপুর স্টেডিয়াম, ডিএমপি বলছে বাঙলা কলেজ নারী শিক্ষার প্রসারে বেগম রোকেয়ার অবদান অন্তহীন প্রেরণার উৎস: প্রধানমন্ত্রী ‘বিয়ে’ করছেন শুভ-অন্তরা! দুজনেরই সিদ্ধান্ত বিয়ে করব না: নুসরাত ফারিয়া স্পিকারের সঙ্গে চীন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ হাসপাতালে রোগীদের বারবার একই টেস্ট বন্ধ কর‍তে হবে : মেয়র আতিক নয়াপল্টনে ‘সহিংসতা’র সুষ্ঠু তদন্ত চায় যুক্তরাষ্ট্র ফখরুল সাহেব, হুঁশ হারাবেন না, অবস্থা শিশুবক্তার মতো হবে: হানিফ রাঙ্গাবালীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ  সাঁথিয়ায় অটোবাইক চাপায় প্রাণ গেল শিশুর

ভাগ্যের চাকা ঘুরাইতে গরুর পায়ের নিচে পিষ্ট হন শহরবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নিজের ভগ্য বদলাতে মানুষ কতকিছুই না করে! পরিবর্তনশীল এই মানুষ কেবল নিজের অবস্থান বদলানোর জন্য নানারকম রেওয়াজ পালন করে। আর এরজন্য পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে রয়েছে বিভিন্ন রকমের সংস্কৃতি ও রীতিনীতির প্রচলন। তেমনই এক অদ্ভূত রীতি পালন করে আসছে দীর্ঘকাল ধরে ভারতের গুজরাটের গরবাড়াত শহরের বাসিন্দারা। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা এই রেওয়াজ জানলে যেকেউ অবাক হবেন। ভ্যাগ্য বদলাতে এই শহরের মানুষেরা গরুকে তাদের পিঠের উপর হাঁটতে বাধ্য করেন। শুনতে অদ্ভুত হলেও এই শহরের মানুষ বিশ্বাস করেন এই রীতি পালন করলে সৌভাগ্যবান হওয়া যায়।

আদিকাল থেকেই শহরবাসীর ধারণা, তাদের পিঠের উপর দিয়ে গরু হেঁটে গেলেই জীবনের সমস্ত সমস্যার অবসান হবে! এই রীতি পালনে যেসব গরু ব্যবহার করা হয় সেগুলোর ওজন ১০০০ কেজিরও বেশি।

একসঙ্গে কয়েক ডজন মানুষ মাটিতে উল্টো হয়ে শুয়ে পড়েন। আর তখনই ১ হজার কিলো ওজনের গরুগুলো ছেড়ে দেওয়া হয় এবং যথারীতি গরু মানুষের পিঠের উপর দিয়ে হেঁটে যায়। আর এই অনুষ্ঠানটি একাদশীকে কেন্দ্র করে পালিত হয়ে আসছে। হিন্দু উৎসব দীপাবলির পর এই দিনকেই শুভদিন বলে বিবেচনা করা হয়।

যদিও অনেক অংশগ্রহণকারীরা এই উদ্ভট রীতি পালন করতে গিয়ে গুরুতর জখম পর্যন্ত হন। তবে শহরবাসীর মনে করেন, জখম হওয়া ব্যক্তিদের অসুস্থতা নিরাময়ের সঙ্গে সঙ্গেই তাদের ভাগ্যেরও উন্নতি ঘটবে।

এই ঘটনার স্বাক্ষী হতে অনুষ্ঠানে শত শত দর্শক উপস্থিত হন। গরুর পায়ের নীচে সৌভাগ্য খুঁজা এই উৎসব উদযাপনের জন্য গরুগুলোকে রং, মালা এবং মেহেদি দিয়ে সাজানো হয়। গরুকে সনাতনী হিন্দুরা সবচেয়ে পবিত্র প্রাণী হিসাবে বিবেচনা করেন। সূত্র: ডেইলি মেইল


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *