ঢাকা ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত লিপির চিকিৎসায় প্রয়োজন ৩ লাখ টাকা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১০:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫৮২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// মো: মনিরুজ্জামান ফারুক //
দুই সন্তানের জননী লিপি বেগম (৩২)।বাড়ি পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌর এলাকার কালিবাড়ি এলাকায়। ৬ বছর আগে তার স্বামী মারা যান। স্বামীর মৃত্যুর পর সন্তানদের মুখের দিকে তাকিয়ে ফের নতুন করে সংসার পাতেননি তিনি।পৌর এলাকার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে সামান্য বেতনে ল্যাব সহকারী হিসাবে কাজ করেন তিনি। সেখান থেকে যা উপার্জন হয় তাতেই কোন মতো চলে তাদের তিন সদস্যের সংসার।
মাস ছয়েক আগে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থতা বোধ করেন। পরে চিকিৎসকের  শরণাপন্ন হলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসক তাকে জানান, তিনি ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত। শরীরে ক্যান্সার সনাক্তের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা: মো:মহিবুল হাসান ভাঙ্গুড়া হেলথ কেয়ার ক্লিনিকে  লিপির অপারেশন করেন।
অসুস্থ লিপি বেগম জানান, অপারেশন করার পর তার শরীরে কেমোথেরাপি এবং রেডিওথেরাপি নেওয়ার প্রয়োজন দেখা দেয়। এতে প্রয়োজন তিন লাখ টাকা। কিন্তু এতো টাকা যোগান দেওয়া তার পক্ষে কোনভাবেই সম্ভব না।তাই অর্থাভাবে নিয়মিত থেরাপি নিতে না পারায় বর্তমানে তিনি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছেন।তাই নিজের জীবন বাঁচাতে বিত্তবানদের নিকট তিনি সহযোগিতা কামনা করেছেন। (তার বিকাশ নম্বর ০১৯২২৩৭৮০৯৭ )
ভাঙ্গুড়া হেলখ কেয়ার লিমিটেডের পরিচালক আব্দুল জাব্বার বলেন, মেয়েটি খুব দরিদ্র। তার দুটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে।ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর অপারেশনটা আমাদের ক্লিনিক থেকেই ফ্রিতে করে দিয়েছি।এখন থেরাপির জন্য তাঁর অনেক টাকার প্রয়োজন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোহাম্মদ নাহিদ হাসান খান বলেন, তার চিকিৎসার জন্য সরকারিভাবে যতটুকু সহযোগিতা করা সম্ভব সেটা আমরা করব।

নিউজটি শেয়ার করুন

ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত লিপির চিকিৎসায় প্রয়োজন ৩ লাখ টাকা

আপডেট সময় : ০৯:১০:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩
// মো: মনিরুজ্জামান ফারুক //
দুই সন্তানের জননী লিপি বেগম (৩২)।বাড়ি পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌর এলাকার কালিবাড়ি এলাকায়। ৬ বছর আগে তার স্বামী মারা যান। স্বামীর মৃত্যুর পর সন্তানদের মুখের দিকে তাকিয়ে ফের নতুন করে সংসার পাতেননি তিনি।পৌর এলাকার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে সামান্য বেতনে ল্যাব সহকারী হিসাবে কাজ করেন তিনি। সেখান থেকে যা উপার্জন হয় তাতেই কোন মতো চলে তাদের তিন সদস্যের সংসার।
মাস ছয়েক আগে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থতা বোধ করেন। পরে চিকিৎসকের  শরণাপন্ন হলে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসক তাকে জানান, তিনি ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত। শরীরে ক্যান্সার সনাক্তের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা: মো:মহিবুল হাসান ভাঙ্গুড়া হেলথ কেয়ার ক্লিনিকে  লিপির অপারেশন করেন।
অসুস্থ লিপি বেগম জানান, অপারেশন করার পর তার শরীরে কেমোথেরাপি এবং রেডিওথেরাপি নেওয়ার প্রয়োজন দেখা দেয়। এতে প্রয়োজন তিন লাখ টাকা। কিন্তু এতো টাকা যোগান দেওয়া তার পক্ষে কোনভাবেই সম্ভব না।তাই অর্থাভাবে নিয়মিত থেরাপি নিতে না পারায় বর্তমানে তিনি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়েছেন।তাই নিজের জীবন বাঁচাতে বিত্তবানদের নিকট তিনি সহযোগিতা কামনা করেছেন। (তার বিকাশ নম্বর ০১৯২২৩৭৮০৯৭ )
ভাঙ্গুড়া হেলখ কেয়ার লিমিটেডের পরিচালক আব্দুল জাব্বার বলেন, মেয়েটি খুব দরিদ্র। তার দুটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে।ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর অপারেশনটা আমাদের ক্লিনিক থেকেই ফ্রিতে করে দিয়েছি।এখন থেরাপির জন্য তাঁর অনেক টাকার প্রয়োজন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোহাম্মদ নাহিদ হাসান খান বলেন, তার চিকিৎসার জন্য সরকারিভাবে যতটুকু সহযোগিতা করা সম্ভব সেটা আমরা করব।