ঢাকা ০৫:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বেড়ায় নিখোঁজ দুই ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১২:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
পাবনা প্রতিনিধি : যমুনা নদীতে নিখোঁজ দুই সহদর আশিক (২৮) ও পিয়াস (২০) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩ অক্টোবর) সকালে উপজেলার নগরবাড়ি প্রতাপপুর এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগে শনিবার (১ অক্টোবর)  বিকালে যমুনা নদীতে বেড়াতে গিয়ে নদীতে পড়ে তাঁরা নিখোঁজ হন।

আশিক ও পিয়াস আপন খালাতো ভাই। তারা এক নিকট আত্বীয় (বোনের) বিয়েতে এসে শনিবার বিকেল নগরবাড়ি নৌ বন্দর এলাকায় নৌ ভ্রমনে গেলে এ দুর্ঘটনার শিকার হন। আশিক সাঁথিয়া উপজেলা ভৈরবপুর গ্রামের আক্কাস সরদারের ছেলে ও পিয়াস সুজানগর উপজেলার কোলচুরি গ্রামের আমিরুল শেখের ছেলে।
নগরবাড়ি নৌ-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম  ও নিহত আশিকের মামা আনোয়ার হোসেন জানান, শনিবার বিকেলে ওই দুই ভাই নগরবাড়ি ঘাট থেকে একটি ট্রলারে চড়ে যমুনা নদী ভ্রমনে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হন।
তাদের বহনকরা ট্রলারটি একটি মালবাহী জাহাজের সাথে সংঘর্ষ ঘটতে যাচ্ছে এমন আশংকা নিয়ে স্থানীয় এক যুবকসহ তিনজন নদীতে ঝাঁপ দেয়। তাদের মধ্যে স্থানীয় ওই যুবক সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও আশিক ও পিয়াস যমুনার তীব্র স্রোতে তীরে উঠতে না পেরে যমুনা নদীতে তলিয়ে যায়। খবর পেয়ে আমিনপুর থানা, নগরবাড়ি নৌ-পুলিশ ও কাশিনাথপুর ফায়ার সার্ভিসের ডুবড়ি দল উদ্ধার অভিযান চালান। রোববার সকালে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের প্রশিক্ষিত ডুবড়ি দল উদ্ধার অভিযানে যোগ দিয়ে দিনভর অভিযান চালান। শনিবার বিকেল ও রোববার সারাদিন অভিযান চালিয়ে  তাদের উদ্ধার করা সম্ভব না হলে। সন্ধ্যায় উদ্ধার অভিযান পরিত্যাক্ত ঘোষণা করেন উদ্ধারকারী দল।
এদিকে নগরবাড়ি নৌ-বন্দরের অনতিদূরে প্রতাপুর নামক স্থানে নোংগর করে থাকা জাহাজের সারি থেকে সোমবার সকালে একটি কর্গো জাহাজ ছেড়ে যাবার কয়েক মিনিট পর নিখোঁজ ওই দুই যুবকের লাশ ভেসে উঠে। খবর পেয়ে নগর বাড়ি নৌ-পুলিশ দল তাদের লাশ উদ্ধার করেন।
নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শরিফুল ইসলাম বলেন, গত দুই দিন অনেক খোঁজাখোঁজির পরেও না পেয়ে তারা উদ্ধার অভিযান স্থগিত করেন। পরে সোমবার সকালে খবর পেয়ে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে মরদেহ দুটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসলেই মরদেহ দুটি আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
আমিনপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, এদিন সকালে মৃতদেহ দুটি ভেসে উঠেছে জানতে পেরে নগরবাড়ী নৌ পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বেড়ায় নিখোঁজ দুই ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার 

আপডেট সময় : ০৭:১২:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২
পাবনা প্রতিনিধি : যমুনা নদীতে নিখোঁজ দুই সহদর আশিক (২৮) ও পিয়াস (২০) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩ অক্টোবর) সকালে উপজেলার নগরবাড়ি প্রতাপপুর এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। এর আগে শনিবার (১ অক্টোবর)  বিকালে যমুনা নদীতে বেড়াতে গিয়ে নদীতে পড়ে তাঁরা নিখোঁজ হন।

আশিক ও পিয়াস আপন খালাতো ভাই। তারা এক নিকট আত্বীয় (বোনের) বিয়েতে এসে শনিবার বিকেল নগরবাড়ি নৌ বন্দর এলাকায় নৌ ভ্রমনে গেলে এ দুর্ঘটনার শিকার হন। আশিক সাঁথিয়া উপজেলা ভৈরবপুর গ্রামের আক্কাস সরদারের ছেলে ও পিয়াস সুজানগর উপজেলার কোলচুরি গ্রামের আমিরুল শেখের ছেলে।
নগরবাড়ি নৌ-পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম  ও নিহত আশিকের মামা আনোয়ার হোসেন জানান, শনিবার বিকেলে ওই দুই ভাই নগরবাড়ি ঘাট থেকে একটি ট্রলারে চড়ে যমুনা নদী ভ্রমনে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হন।
তাদের বহনকরা ট্রলারটি একটি মালবাহী জাহাজের সাথে সংঘর্ষ ঘটতে যাচ্ছে এমন আশংকা নিয়ে স্থানীয় এক যুবকসহ তিনজন নদীতে ঝাঁপ দেয়। তাদের মধ্যে স্থানীয় ওই যুবক সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও আশিক ও পিয়াস যমুনার তীব্র স্রোতে তীরে উঠতে না পেরে যমুনা নদীতে তলিয়ে যায়। খবর পেয়ে আমিনপুর থানা, নগরবাড়ি নৌ-পুলিশ ও কাশিনাথপুর ফায়ার সার্ভিসের ডুবড়ি দল উদ্ধার অভিযান চালান। রোববার সকালে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের প্রশিক্ষিত ডুবড়ি দল উদ্ধার অভিযানে যোগ দিয়ে দিনভর অভিযান চালান। শনিবার বিকেল ও রোববার সারাদিন অভিযান চালিয়ে  তাদের উদ্ধার করা সম্ভব না হলে। সন্ধ্যায় উদ্ধার অভিযান পরিত্যাক্ত ঘোষণা করেন উদ্ধারকারী দল।
এদিকে নগরবাড়ি নৌ-বন্দরের অনতিদূরে প্রতাপুর নামক স্থানে নোংগর করে থাকা জাহাজের সারি থেকে সোমবার সকালে একটি কর্গো জাহাজ ছেড়ে যাবার কয়েক মিনিট পর নিখোঁজ ওই দুই যুবকের লাশ ভেসে উঠে। খবর পেয়ে নগর বাড়ি নৌ-পুলিশ দল তাদের লাশ উদ্ধার করেন।
নগরবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শরিফুল ইসলাম বলেন, গত দুই দিন অনেক খোঁজাখোঁজির পরেও না পেয়ে তারা উদ্ধার অভিযান স্থগিত করেন। পরে সোমবার সকালে খবর পেয়ে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে মরদেহ দুটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসলেই মরদেহ দুটি আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
আমিনপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, এদিন সকালে মৃতদেহ দুটি ভেসে উঠেছে জানতে পেরে নগরবাড়ী নৌ পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।