ঢাকা ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বেলকুচিতে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন খেয়ে শিশুর মৃত্যু, চারজন হাসপাতালে

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৫৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৫২২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন খেয়ে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের আরও চারজনকে অসুস্থ্য অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।
মারা যাওয়া শিশু জিমহা (৩)বেলকুচি রাজাপুর ইউনিয়নের বৈলগাছি গ্রামের কায়েমের ছেলে। অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন শিশুটির মা পারভিন(৩৮) শিশু কন্যা রিয়া (৮), নূরী(৫) ও ভাগ্নি মিথিলা (৭)
স্বজনরা জানান, সোমবার (২৬ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ইফতার করার সময় মহল্লার দোকান থেকে স্যালাইন কিনে প্রমি কোম্পানীর কমলা স্বাদের গুড়ো পাউডার মিশিয়ে সরবত তৈরি করেন পারভিন। ইফতারের সময়  তা পান করে সবাই একই সাথে অসুস্থ হয়ে পড়েন।
ক্রমেই অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন  সবাইকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসালে। সেখানে চিকিৎসক শিশু জিমহাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, সন্ধ্যার পর অসুস্থ্য হওয়া পাঁচজনকে হাসপাতালে আনা হয়। তাদের বক্তব্য অনুযায়ী খাবার স্যালাইন খেয়েই তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদের মধ্যে এক শিশু হাসপাতালে আনার আগেই মারা যায়। বাকি চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে মা পারভিন ও মেয়ে রিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

বেলকুচিতে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন খেয়ে শিশুর মৃত্যু, চারজন হাসপাতালে

আপডেট সময় : ১১:৫৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন খেয়ে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের আরও চারজনকে অসুস্থ্য অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।
মারা যাওয়া শিশু জিমহা (৩)বেলকুচি রাজাপুর ইউনিয়নের বৈলগাছি গ্রামের কায়েমের ছেলে। অসুস্থ্য হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন শিশুটির মা পারভিন(৩৮) শিশু কন্যা রিয়া (৮), নূরী(৫) ও ভাগ্নি মিথিলা (৭)
স্বজনরা জানান, সোমবার (২৬ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ইফতার করার সময় মহল্লার দোকান থেকে স্যালাইন কিনে প্রমি কোম্পানীর কমলা স্বাদের গুড়ো পাউডার মিশিয়ে সরবত তৈরি করেন পারভিন। ইফতারের সময়  তা পান করে সবাই একই সাথে অসুস্থ হয়ে পড়েন।
ক্রমেই অবস্থার অবনতি হলে পরিবারের লোকজন  সবাইকে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসালে। সেখানে চিকিৎসক শিশু জিমহাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, সন্ধ্যার পর অসুস্থ্য হওয়া পাঁচজনকে হাসপাতালে আনা হয়। তাদের বক্তব্য অনুযায়ী খাবার স্যালাইন খেয়েই তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাদের মধ্যে এক শিশু হাসপাতালে আনার আগেই মারা যায়। বাকি চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে মা পারভিন ও মেয়ে রিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক।
বাখ//আর