ঢাকা ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বৃষ্টি হলেও এপ্রিলজুড়েই থাকবে তাপপ্রবাহ

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:০৬:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চলমান তাপপ্রবাহের ধারা পুরো এপ্রিলজুড়েই অব্যাহত থাকবে। বুধবার ও বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হতে পারে। এতে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও শুক্রবার থেকে ফের বাড়বে। রোববার (২১ এপ্রিল) এমন পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, সহসাই বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই রাজধানীতে। তবে সিলেট, ময়মনসিংহ ও চট্রগ্রামে আজ রোববার থেকে আগামী তিনদিন হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। তবে এতে ওইসব এলাকার তাপমাত্রায় খুব একটা প্রভাব পড়বে না।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, চলমান এই তাপমাত্রা পুরো এপ্রিলজুড়েই থাকবে। রাজধানীতে আপাতত বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার ঢাকাসহ সারা দেশে সামান্য বৃষ্টি হতে পারে। তবে তার খুব একটা প্রভাব পড়বে না তাপমাত্রায়।

ওমর ফারুক বলেন, বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকায় গরমও বেশি অনুভূত হচ্ছে। তাপমাত্রা যাই থাকুক, তার চাইতে অন্তত ৩ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি অনুভূত হবে।

কয়েকদিন ধরেই রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ। তীব্র তাপপ্রবাহে শরীরের ত্বক পুড়ে যাওয়ার উপক্রম। এমন পরিস্থিতিতে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে জানিয়ে হিট অ্যালার্টও জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এদিকে, উচ্চ তাপমাত্রা অনুভূত হওয়ায় একপ্রকার বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া তীব্র তাপপ্রবাহে গত কয়েকদিনে ডিহাইড্রেশন, জ্বর ও হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন অনেকে।

সোমবার (২২ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। পাবনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা জেলাসমূহে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। রাজশাহী জেলাসহ খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশ এবং ঢাকা বিভাগের ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার, ফেনী, কক্সবাজার, চাঁদপুর ও রাঙামাটি জেলাসহ বরিশাল বিভাগ এবং রাজশাহী বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

রংপুর বিভাগের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে এবং অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সিলেট বিভাগে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড় হতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার সম্ভাবনা আছে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করবে।

সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকার সম্ভাবনা আছে। বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করার সম্ভাবনা আছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার সম্ভাবনা আছে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করবে।

বর্ধিত পাঁচদিনে আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বলেও জানানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বৃষ্টি হলেও এপ্রিলজুড়েই থাকবে তাপপ্রবাহ

আপডেট সময় : ০১:০৬:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

চলমান তাপপ্রবাহের ধারা পুরো এপ্রিলজুড়েই অব্যাহত থাকবে। বুধবার ও বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হতে পারে। এতে তাপমাত্রা কিছুটা কমলেও শুক্রবার থেকে ফের বাড়বে। রোববার (২১ এপ্রিল) এমন পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, সহসাই বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই রাজধানীতে। তবে সিলেট, ময়মনসিংহ ও চট্রগ্রামে আজ রোববার থেকে আগামী তিনদিন হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। তবে এতে ওইসব এলাকার তাপমাত্রায় খুব একটা প্রভাব পড়বে না।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, চলমান এই তাপমাত্রা পুরো এপ্রিলজুড়েই থাকবে। রাজধানীতে আপাতত বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার ঢাকাসহ সারা দেশে সামান্য বৃষ্টি হতে পারে। তবে তার খুব একটা প্রভাব পড়বে না তাপমাত্রায়।

ওমর ফারুক বলেন, বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ বেশি থাকায় গরমও বেশি অনুভূত হচ্ছে। তাপমাত্রা যাই থাকুক, তার চাইতে অন্তত ৩ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি অনুভূত হবে।

কয়েকদিন ধরেই রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে বয়ে যাচ্ছে মাঝারি থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ। তীব্র তাপপ্রবাহে শরীরের ত্বক পুড়ে যাওয়ার উপক্রম। এমন পরিস্থিতিতে তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে জানিয়ে হিট অ্যালার্টও জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এদিকে, উচ্চ তাপমাত্রা অনুভূত হওয়ায় একপ্রকার বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া তীব্র তাপপ্রবাহে গত কয়েকদিনে ডিহাইড্রেশন, জ্বর ও হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছেন অনেকে।

সোমবার (২২ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। পাবনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা জেলাসমূহে অতি তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। রাজশাহী জেলাসহ খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশ এবং ঢাকা বিভাগের ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার, ফেনী, কক্সবাজার, চাঁদপুর ও রাঙামাটি জেলাসহ বরিশাল বিভাগ এবং রাজশাহী বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

রংপুর বিভাগের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে এবং অন্যত্র তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সিলেট বিভাগে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড় হতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার সম্ভাবনা আছে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করবে।

সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকার সম্ভাবনা আছে। বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করার সম্ভাবনা আছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। বিরাজমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকার সম্ভাবনা আছে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তি বিরাজ করবে।

বর্ধিত পাঁচদিনে আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বলেও জানানো হয়েছে।