ঢাকা ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বুদ্ধিজীবী আব্দুল কাদের মিয়ার ৫৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

জুলফিকার বাবলু, মাদারগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১১:৩২:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১ জুন ২০২৪
  • / ৫১৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আজ ১লা জুন ২০২৪ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা (বুদ্ধিজীবী) আব্দুল কাদের মিয়ার ৫৩তম মৃত্যুবার্ষিকী। তিনি ১৯৩০ সনে ১লা এপ্রিল সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানার জামিরতা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭১ সালে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত অবস্থায় মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং থানার অস্ত্র গোলাবারুদ মুক্তিবাহিনীর হাতে তুলে দেন। এছাড়াও সীমান্তের ওপারে হলদিবাড়ি গিয়েও অস্ত্র সংগ্রহ করে নিয়ে আসার পথে তার নেতৃত্বাধীন মুক্তিবাহিনীর ছেলেদের সাথে পাকবাহিনী ও রাজাকারদের প্রচন্ড যুদ্ধ হয়। সে যুদ্ধে আব্দুল কাদের মিয়া বেশ আহত হলেও কোনভাবে বাড়িতে (দেবীগঞ্জ) আসতে সমর্থ হন।

স্বাধীনতা যুদ্ধে সক্রিয় অংগ্রহণ করায় পাকহানাদার বাহিনী তাকে দেবীগঞ্জ থানাধীন উপণ চৌকিভাজনি (ডাংগাপাড়া) এলাকার ব্রুজের ডাংগা নামক স্থানে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যাকরে। বর্তমান সরকার ১৯৯৯ সনে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ এবং ২০২২সনে সরকার শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে গেজেট প্রকাশ করেন।

২০১০ সনে শহীদের নামে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানা থেকে নিজ গ্রামে জামিরতা পর্যন্ত রাস্তাটি নামকরণ করেন। তার কনিষ্ঠপুত্র মোঃ সামিউল আলম পিপিএম অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিল্পাঞ্চল পুলিশ হেডকোয়াটার্সে কর্মরত আছেন। তার নিজবাড়িতে পরিবারবর্গ এই দিনে কোরআন খতম ও দোয়ার আয়োজন করেছেন।

এছাড়াও শহীদের কর্মস্থল দেবীগঞ্জ থানা মসজিদ, বাজার জামে মসজিদ ও কবরস্থান ভাংগাপাড়া মসজিদে দোয়ার আয়োজন করাহয়।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

বুদ্ধিজীবী আব্দুল কাদের মিয়ার ৫৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

আপডেট সময় : ১১:৩২:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১ জুন ২০২৪

আজ ১লা জুন ২০২৪ শহীদ মুক্তিযোদ্ধা (বুদ্ধিজীবী) আব্দুল কাদের মিয়ার ৫৩তম মৃত্যুবার্ষিকী। তিনি ১৯৩০ সনে ১লা এপ্রিল সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানার জামিরতা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭১ সালে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত অবস্থায় মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং থানার অস্ত্র গোলাবারুদ মুক্তিবাহিনীর হাতে তুলে দেন। এছাড়াও সীমান্তের ওপারে হলদিবাড়ি গিয়েও অস্ত্র সংগ্রহ করে নিয়ে আসার পথে তার নেতৃত্বাধীন মুক্তিবাহিনীর ছেলেদের সাথে পাকবাহিনী ও রাজাকারদের প্রচন্ড যুদ্ধ হয়। সে যুদ্ধে আব্দুল কাদের মিয়া বেশ আহত হলেও কোনভাবে বাড়িতে (দেবীগঞ্জ) আসতে সমর্থ হন।

স্বাধীনতা যুদ্ধে সক্রিয় অংগ্রহণ করায় পাকহানাদার বাহিনী তাকে দেবীগঞ্জ থানাধীন উপণ চৌকিভাজনি (ডাংগাপাড়া) এলাকার ব্রুজের ডাংগা নামক স্থানে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যাকরে। বর্তমান সরকার ১৯৯৯ সনে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ এবং ২০২২সনে সরকার শহীদ বুদ্ধিজীবী হিসেবে গেজেট প্রকাশ করেন।

২০১০ সনে শহীদের নামে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানা থেকে নিজ গ্রামে জামিরতা পর্যন্ত রাস্তাটি নামকরণ করেন। তার কনিষ্ঠপুত্র মোঃ সামিউল আলম পিপিএম অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিল্পাঞ্চল পুলিশ হেডকোয়াটার্সে কর্মরত আছেন। তার নিজবাড়িতে পরিবারবর্গ এই দিনে কোরআন খতম ও দোয়ার আয়োজন করেছেন।

এছাড়াও শহীদের কর্মস্থল দেবীগঞ্জ থানা মসজিদ, বাজার জামে মসজিদ ও কবরস্থান ভাংগাপাড়া মসজিদে দোয়ার আয়োজন করাহয়।

 

বাখ//আর