ঢাকা ১২:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিশ্বকাপের জন্য শ্রমিক সরিয়ে নিচ্ছে কাতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৮:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

স্পোর্টস ডেস্ক : 

আর কিছু দিন পর নভেম্বরে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপের এবারের আসর বসছে কাতারে। আর তাই কাতারের রাজধানী দোহা থেকে শ্রমিক সরিয়ে নিতে শুরু করেছে কাতার সরকার।

যেই শ্রমিকরা বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করেছে স্টেডিয়াম, হোটেল, রাস্তা-ঘাট সহ বিভিন্ন অবকাঠামো তাদেরই ঠায় হচ্ছে না কাতারের রাজধানী দোহাতে। বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতকৃত সব স্টেডিয়ামগুলো অবস্থিত দোহাতে। প্রায় ৫৫ কিলোমিটার জুড়ে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামগুলো। বিশ্বকাপের সময় প্রায় ২ মিলিয়ন মানুষের সমাগম হবে এই শহরে। আর তাই এতো মানুষের ধারণ ক্ষমতা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেন, এক শহরে হলেও বিশ্বকাপ সফল হবে। বিশ্ব দেখবে কাতারের বিশ্বকাপ। রাজধানী থেকে ওই জনসমাগম কমাতে শ্রম আইনে পরিবর্তন এনে কাতার সরকার। দোহা থেকে এশিয়া এবং আফ্রিকার শ্রমিকদের অন্য শহরে সরে যেতে বাধ্য করছে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানান, বিশ্বকাপ দেখতে আসা দর্শকরা যেন আবাসন সমস্যায় না ভোগে সেজন্য অভিবাসী শ্রমিকরা যেসব বিল্ডিং ও বড় বড় অ্যাপার্টমেন্টে থাকেন সেগুলো খালি করা হচ্ছে।

এক ব্যাক্তি রয়টার্সকে জানান, রাত আটটার দিকে ১২শ’ লোকের বাস একটি অ্যাপার্টমেন্টের সামনে এনে দুই ঘণ্টার মধ্যে খালি করতে বলা হয়। এরকম আরও ১২-১৫টি বিল্ডিং খালি করার কথা বলা হয়েছে।

শ্রমিকদের সরানোর বিষয়ে কাতার সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অ্যাপার্টমেন্টগুলো ছাড়ার জন্য তাদের আগে থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তাদের জন্য নিরাপদ বাসস্থানের ব্যবস্থা করেই দোহা থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

বিশ্বকাপের জন্য শ্রমিক সরিয়ে নিচ্ছে কাতার

আপডেট সময় : ০৯:৪৮:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক : 

আর কিছু দিন পর নভেম্বরে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপের এবারের আসর বসছে কাতারে। আর তাই কাতারের রাজধানী দোহা থেকে শ্রমিক সরিয়ে নিতে শুরু করেছে কাতার সরকার।

যেই শ্রমিকরা বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করেছে স্টেডিয়াম, হোটেল, রাস্তা-ঘাট সহ বিভিন্ন অবকাঠামো তাদেরই ঠায় হচ্ছে না কাতারের রাজধানী দোহাতে। বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতকৃত সব স্টেডিয়ামগুলো অবস্থিত দোহাতে। প্রায় ৫৫ কিলোমিটার জুড়ে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামগুলো। বিশ্বকাপের সময় প্রায় ২ মিলিয়ন মানুষের সমাগম হবে এই শহরে। আর তাই এতো মানুষের ধারণ ক্ষমতা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেন, এক শহরে হলেও বিশ্বকাপ সফল হবে। বিশ্ব দেখবে কাতারের বিশ্বকাপ। রাজধানী থেকে ওই জনসমাগম কমাতে শ্রম আইনে পরিবর্তন এনে কাতার সরকার। দোহা থেকে এশিয়া এবং আফ্রিকার শ্রমিকদের অন্য শহরে সরে যেতে বাধ্য করছে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানান, বিশ্বকাপ দেখতে আসা দর্শকরা যেন আবাসন সমস্যায় না ভোগে সেজন্য অভিবাসী শ্রমিকরা যেসব বিল্ডিং ও বড় বড় অ্যাপার্টমেন্টে থাকেন সেগুলো খালি করা হচ্ছে।

এক ব্যাক্তি রয়টার্সকে জানান, রাত আটটার দিকে ১২শ’ লোকের বাস একটি অ্যাপার্টমেন্টের সামনে এনে দুই ঘণ্টার মধ্যে খালি করতে বলা হয়। এরকম আরও ১২-১৫টি বিল্ডিং খালি করার কথা বলা হয়েছে।

শ্রমিকদের সরানোর বিষয়ে কাতার সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অ্যাপার্টমেন্টগুলো ছাড়ার জন্য তাদের আগে থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তাদের জন্য নিরাপদ বাসস্থানের ব্যবস্থা করেই দোহা থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।