ঢাকা ১০:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপি হচ্ছে এদেশের নালিশ পার্টি : কাদের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২৩:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪১৩ বার পড়া হয়েছে

জাসদের সমাবেশে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বিএনপি হচ্ছে এদেশের নালিশ পার্টি, আর এই নালিশ পার্টি হচ্ছে জঙ্গিবাদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন,  বেগম খালেদা জিয়ার জন্য দেখার মতো একটা মিছিলও করতে পারেনি। বিএনপি গত ১৩ বছরে ১৩ মিনিটও আন্দোলন করেনি। এখন নাকি তারা আন্দোলন করবে। তাদের এই স্বপ্ন কর্পূরের মতো উবে যাবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন মির্জা ফখরুল আন্দোলন করতে চান। এই আন্দোলনের নাটাই কোথায় আমরা জানি। ১০ ডিসেম্বর সরকার পতন করে ক্ষমতায় যাবেন, এই স্বপ্ন খোয়াবে পরিণত হবে।

বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসাতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সব শক্তিকে একত্রিত করে বিএনপিকে মোকাবিলা করতে হবে। শেখ হাসিনা হেরে গেলে বাংলাদেশ হেরে যাবে। স্বাধীনতাবিরোধীদের হাতে আমরা পরাজিত হতে পারি না।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ফখরুল সাহেব রংপুর থেকে দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের চেয়ার গুনেছেন। ২২ হাজার নয়, ৭০ হাজার চেয়ার ছিল। আমি চ্যালেঞ্জ করলাম। মির্জা ফখরুলের অন্তরে অনেক জ্বালা। মির্জা ফখরুলকে বলতে চাই, আমরা ঐক্যবদ্ধ ১৪ দল।

দুর্নীতির বরপুত্র হাওয়া ভবনের যুবরাজকে ১০ ডিসেম্বর দেশে ফিরিয়ে এনে বিএনপি নাকি ক্ষমতায় বসবে, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য বিএনপির রঙিন খোয়াব ছাড়া আর কিছু নয় বলেও মন্তব্য করেন কাদের।

মুক্তিযুদ্ধ আজ হুমকির মুখে, স্বাধীনতার সকল শক্তিকে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি একত্রিত থাকলে বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

১৪ দলীয় জোটের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও স্বাধীনতা বিরোধীদের কাছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রতীক শেখ হাসিনা পরাজিত হতে পারেন না।

বিএনপি ১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার ভূয়া জন্মদিন যতদিন পালন করবে ততদিন তারা জনগণ থেকে পিছিয়ে পড়বে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টি জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডক্টর শাহাদাত হোসেন ও জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতারসহ জাসদের অন্যান্য নেতারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বিএনপি হচ্ছে এদেশের নালিশ পার্টি : কাদের

আপডেট সময় : ০৮:২৩:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বিএনপি হচ্ছে এদেশের নালিশ পার্টি, আর এই নালিশ পার্টি হচ্ছে জঙ্গিবাদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন,  বেগম খালেদা জিয়ার জন্য দেখার মতো একটা মিছিলও করতে পারেনি। বিএনপি গত ১৩ বছরে ১৩ মিনিটও আন্দোলন করেনি। এখন নাকি তারা আন্দোলন করবে। তাদের এই স্বপ্ন কর্পূরের মতো উবে যাবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন মির্জা ফখরুল আন্দোলন করতে চান। এই আন্দোলনের নাটাই কোথায় আমরা জানি। ১০ ডিসেম্বর সরকার পতন করে ক্ষমতায় যাবেন, এই স্বপ্ন খোয়াবে পরিণত হবে।

বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসাতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সব শক্তিকে একত্রিত করে বিএনপিকে মোকাবিলা করতে হবে। শেখ হাসিনা হেরে গেলে বাংলাদেশ হেরে যাবে। স্বাধীনতাবিরোধীদের হাতে আমরা পরাজিত হতে পারি না।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ফখরুল সাহেব রংপুর থেকে দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের চেয়ার গুনেছেন। ২২ হাজার নয়, ৭০ হাজার চেয়ার ছিল। আমি চ্যালেঞ্জ করলাম। মির্জা ফখরুলের অন্তরে অনেক জ্বালা। মির্জা ফখরুলকে বলতে চাই, আমরা ঐক্যবদ্ধ ১৪ দল।

দুর্নীতির বরপুত্র হাওয়া ভবনের যুবরাজকে ১০ ডিসেম্বর দেশে ফিরিয়ে এনে বিএনপি নাকি ক্ষমতায় বসবে, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্য বিএনপির রঙিন খোয়াব ছাড়া আর কিছু নয় বলেও মন্তব্য করেন কাদের।

মুক্তিযুদ্ধ আজ হুমকির মুখে, স্বাধীনতার সকল শক্তিকে বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি একত্রিত থাকলে বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

১৪ দলীয় জোটের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও স্বাধীনতা বিরোধীদের কাছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রতীক শেখ হাসিনা পরাজিত হতে পারেন না।

বিএনপি ১৫ আগস্ট খালেদা জিয়ার ভূয়া জন্মদিন যতদিন পালন করবে ততদিন তারা জনগণ থেকে পিছিয়ে পড়বে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টি জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডক্টর শাহাদাত হোসেন ও জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতারসহ জাসদের অন্যান্য নেতারা।