ঢাকা ০৪:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপি লাশ ফেলে আন্দোলন জমাতে চায় : ওবায়দুল কাদের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:০৭:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৮২ বার পড়া হয়েছে

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
বিএনপির গণসমাবেশ কেন্দ্র করে সহিংসতার জন্য বিএনপির উসকানির ফাঁদে সরকার পা দেবে না। বিএনপি এখন বাঁশ ও লাঠির মাথায় পতাকা বেঁধে আমাদের ভয় দেখাতে চায়। বিএনপি লাশ ফেলে আন্দোলন জমাতে চায়। কিন্তু সরকার তাদের এ কর্মকাণ্ডে উসকানি দেবে না বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে নিরাপদ সড়ক দিবসের অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, খুলনায় সমাবেশ করতে তারা সন্ত্রাসী যোগার করেছে, যারা খুনের এবং মাদকের আসামি। দখল করে নিয়েছে হোটেল। এখন ২০১৩-১৪ সাল নয়। তারা যদি আগের মতো সন্ত্রাসীমূলক কর্মকাণ্ড করে তাহলে তার সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।

এর আগে নিরাপদ সড়ক দিবসের আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার মতো সৎ নেতা চাই। তার মতো সততা, ভালো মানুষ পঁচাত্তরের পরে একজনও আসেনি। কয়জন জনপ্রতিনিধি জনগণের ভাগ্য উন্নয়ন, কয়জন পকেটের উন্নয়ন করেন সে হিসাব দিতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, গতবারের প্রত্যাশা ছিল দুর্ঘটনা, যানজট ও মোটরসাইকেলের উপদ্রব কমানোর। এই ঢাকা শহরে এখন আর হেলমেট ছাড়া কোনো যাত্রী দেখি না। রাস্তায় যারা হেলমেট ছাড়া চলে, তারা পলিটিক্সের লোক। পলিটিক্স ঠিক না হলে কিছু ঠিক হবে না। শৃঙ্খলা না থাকলে সাফল্য ম্লান হয়ে যাবে। সড়কে শৃঙ্খলা আনতে হবে। আগের সচিবকেও বলেছি, এদেরকে নিয়মের মধ্যে আনতে হবে। নীতিমালা করলে হবে না, নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপি লাশ ফেলে আন্দোলন জমাতে চায় : ওবায়দুল কাদের

আপডেট সময় : ০৩:০৭:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
বিএনপির গণসমাবেশ কেন্দ্র করে সহিংসতার জন্য বিএনপির উসকানির ফাঁদে সরকার পা দেবে না। বিএনপি এখন বাঁশ ও লাঠির মাথায় পতাকা বেঁধে আমাদের ভয় দেখাতে চায়। বিএনপি লাশ ফেলে আন্দোলন জমাতে চায়। কিন্তু সরকার তাদের এ কর্মকাণ্ডে উসকানি দেবে না বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে নিরাপদ সড়ক দিবসের অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, খুলনায় সমাবেশ করতে তারা সন্ত্রাসী যোগার করেছে, যারা খুনের এবং মাদকের আসামি। দখল করে নিয়েছে হোটেল। এখন ২০১৩-১৪ সাল নয়। তারা যদি আগের মতো সন্ত্রাসীমূলক কর্মকাণ্ড করে তাহলে তার সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।

এর আগে নিরাপদ সড়ক দিবসের আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার মতো সৎ নেতা চাই। তার মতো সততা, ভালো মানুষ পঁচাত্তরের পরে একজনও আসেনি। কয়জন জনপ্রতিনিধি জনগণের ভাগ্য উন্নয়ন, কয়জন পকেটের উন্নয়ন করেন সে হিসাব দিতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, গতবারের প্রত্যাশা ছিল দুর্ঘটনা, যানজট ও মোটরসাইকেলের উপদ্রব কমানোর। এই ঢাকা শহরে এখন আর হেলমেট ছাড়া কোনো যাত্রী দেখি না। রাস্তায় যারা হেলমেট ছাড়া চলে, তারা পলিটিক্সের লোক। পলিটিক্স ঠিক না হলে কিছু ঠিক হবে না। শৃঙ্খলা না থাকলে সাফল্য ম্লান হয়ে যাবে। সড়কে শৃঙ্খলা আনতে হবে। আগের সচিবকেও বলেছি, এদেরকে নিয়মের মধ্যে আনতে হবে। নীতিমালা করলে হবে না, নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে হবে।