ঢাকা ০৩:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জঙ্গিবাদ-লুটপাট ও দুর্নীতি করেছে : তাপস

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১৮:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৪৭১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জঙ্গিবাদ-লুটপাট ও দুর্নীতি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

শনিবার (৪ মার্চ) রাজধানীর ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু জাদুঘর প্রাঙ্গণে আওয়ামী লীগের ঢাকা-১০ সাংগঠনিক টিম আয়োজিত শান্তি সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ তাপস বলেন, ১৯৯৬ সালে নির্বাচন দিতে বাধ্য হয়, ভুয়া ভোট করে। খুনি রশিদ-ফারুক-বজলুর রশিদকে বিরোধী দলের নেতা বানায়। ২০০৬ সালে কে এম হাসানকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান বানানোর জন্যে বয়স বৃদ্ধি করে ৬৭ বছর বানিয়েছিল। তারপর সে আন্দোলনের মুখে হতে রাজি না হওয়ায় রাষ্ট্রপতিকে প্রধান উপদেষ্টা বানায়। যখন ক্ষমতায় থাকে জঙ্গিবাদ, লুটপাত, দুর্নীতি আর ক্ষমতায় না থাকলে ভাজা মাছ উল্টে খেতে পারে না।

মেয়র বলেন, বাংলাদেশ গণতন্ত্র সূচক এবছর দুই ধাপ এগিয়েছে। গণতন্ত্রের মূল উপাদান সংবিধান।

২০০৪ সালের গ্রেনেড কথা তুলে ধরে তাপস বলেন, ‘২১ আগস্ট ২০০৪ সালে শান্তি সমাবেশে শেখ হাসিনাকে হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। আজকে তারা বড় বড় কথা বলে। তারা নারীনেত্রী আইভী রহমানসহ ২২ জনকে হত্যা করেছিল। বিএনপি-জামায়াতের সেই দুঃশাসনের কথা মানুষ ভুলেনি, এখনো অনেকে পঙ্গুত্ব বরণ করেছে।’

তাপস বলেন, ‘যারা বিদ্যুৎ দিতে পারেনি, খাম্বা দিয়েছে। পাঁচ বছরে ছয়বার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। সংবিধানকে ভূলুণ্ঠিত করেছে। আপনাদের জন্মই সংবিধানের বাইরে, গণতন্ত্রের বাইরে। আপনারা কোনোদিন গণতন্ত্র মানবেন না, এটাই স্বাভাবিক।’

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি থাকা অবস্থায় হ্যাঁ/না ভোট দিয়েছিল। রাষ্ট্রপতি পদে বহাল থাকবে কী না, ১০০ ভাগের ভোটে ১০৩ ভাগ ভোট পেয়েছিল, এই হলো তাদের নির্বাচন।

উন্নয়নের কথায় উনাদের অন্তর্জ্বালা শুরু হয়ে যায় মন্তব্য করে তাপস বলেন, উনারা এক মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দিতে পারে নাই, শেখ হাসিনা ২৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। শেখ হাসিনা মধ্যম আয়ের দেশের গণ্ডি পেরিয়েছে। পদ্মা সেতু করতে পারবে না বলেছিল, শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু করেছেন।

বিএনপিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে যুবলীগ প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির ছেলে তাপস বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বাধা দেব না। তবে বাংলার জনগণ হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না।’

আওয়ামী লীগের ঢাকা-১০ সাংগঠনিক টিমের আহ্বায়ক নুরুল আমিন রুহুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আযম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির।

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জঙ্গিবাদ-লুটপাট ও দুর্নীতি করেছে : তাপস

আপডেট সময় : ০৭:১৮:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে জঙ্গিবাদ-লুটপাট ও দুর্নীতি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

শনিবার (৪ মার্চ) রাজধানীর ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু জাদুঘর প্রাঙ্গণে আওয়ামী লীগের ঢাকা-১০ সাংগঠনিক টিম আয়োজিত শান্তি সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ তাপস বলেন, ১৯৯৬ সালে নির্বাচন দিতে বাধ্য হয়, ভুয়া ভোট করে। খুনি রশিদ-ফারুক-বজলুর রশিদকে বিরোধী দলের নেতা বানায়। ২০০৬ সালে কে এম হাসানকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান বানানোর জন্যে বয়স বৃদ্ধি করে ৬৭ বছর বানিয়েছিল। তারপর সে আন্দোলনের মুখে হতে রাজি না হওয়ায় রাষ্ট্রপতিকে প্রধান উপদেষ্টা বানায়। যখন ক্ষমতায় থাকে জঙ্গিবাদ, লুটপাত, দুর্নীতি আর ক্ষমতায় না থাকলে ভাজা মাছ উল্টে খেতে পারে না।

মেয়র বলেন, বাংলাদেশ গণতন্ত্র সূচক এবছর দুই ধাপ এগিয়েছে। গণতন্ত্রের মূল উপাদান সংবিধান।

২০০৪ সালের গ্রেনেড কথা তুলে ধরে তাপস বলেন, ‘২১ আগস্ট ২০০৪ সালে শান্তি সমাবেশে শেখ হাসিনাকে হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। আজকে তারা বড় বড় কথা বলে। তারা নারীনেত্রী আইভী রহমানসহ ২২ জনকে হত্যা করেছিল। বিএনপি-জামায়াতের সেই দুঃশাসনের কথা মানুষ ভুলেনি, এখনো অনেকে পঙ্গুত্ব বরণ করেছে।’

তাপস বলেন, ‘যারা বিদ্যুৎ দিতে পারেনি, খাম্বা দিয়েছে। পাঁচ বছরে ছয়বার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। সংবিধানকে ভূলুণ্ঠিত করেছে। আপনাদের জন্মই সংবিধানের বাইরে, গণতন্ত্রের বাইরে। আপনারা কোনোদিন গণতন্ত্র মানবেন না, এটাই স্বাভাবিক।’

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি থাকা অবস্থায় হ্যাঁ/না ভোট দিয়েছিল। রাষ্ট্রপতি পদে বহাল থাকবে কী না, ১০০ ভাগের ভোটে ১০৩ ভাগ ভোট পেয়েছিল, এই হলো তাদের নির্বাচন।

উন্নয়নের কথায় উনাদের অন্তর্জ্বালা শুরু হয়ে যায় মন্তব্য করে তাপস বলেন, উনারা এক মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দিতে পারে নাই, শেখ হাসিনা ২৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। শেখ হাসিনা মধ্যম আয়ের দেশের গণ্ডি পেরিয়েছে। পদ্মা সেতু করতে পারবে না বলেছিল, শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু করেছেন।

বিএনপিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে যুবলীগ প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির ছেলে তাপস বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বাধা দেব না। তবে বাংলার জনগণ হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না।’

আওয়ামী লীগের ঢাকা-১০ সাংগঠনিক টিমের আহ্বায়ক নুরুল আমিন রুহুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আযম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির।