ঢাকা ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক শক্তি তৎপর: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ১২:৪৫:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪
  • / ৪২৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি তৎপর, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষকে সমূলে উৎপাটিত করে অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়তে।

শনিবার (২৫ মে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে জাতীয় কাজী নজরুল ইসলামের সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী হয়েছি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে। কিন্তু সেই বিজয়কে সুসংহত করায় এখনো আমাদের অনেক কাজ বাকি। বিজয়কে সুসংহত করার পথে বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি তৎপর। আজকের এই দিনে আমাদের অঙ্গীকার-বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষকে সমূলে উৎপাটিত করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ব। সেটাই হবে নজরুলের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের সার্থকতা।

এ সময় বিএনপির নেতাকর্মী আটক নিয়ে দলটির নেতাদের বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীকে জেলে পাঠানোর অ্যাজেন্ডা আমাদের নেই। যে দুর্বৃত্ত, অগ্নিসন্ত্রাস, খুন করে, অস্ত্র ব্যবসা করে, অপরাধীকে অপরাধের মানদণ্ডে তাদের জেল জুলুম হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। এখানে কোনো বিএনপি বা অন্য দলের ব্যাপারে আমরা নির্বাচনের পর নতুন করে আমরা কোনো চিন্তা ভাবনা করিনি-কাউকে নির্যাতন করব, জেলে পাঠাবো রাজনৈতিক দলের।

দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখনীর ভূমিকা নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয়তাবাদের অবিসংবাদিত কবি, অসাম্প্রদায়িক চেতনার কবি, বিদ্রোহ ও বেদনার কবি, যৌবনের কবি আমাদের জাতীয় কবি। জাতীয় কবির জন্মতিথিতে আমরা যে কবিকে বঙ্গবন্ধু প্রতিবেশী দেশ থেকে স্বাধীনতার পর বাংলাদেশে এনেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর পরিকল্পনায় কবির মৃত্যুর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সবুজ চত্বরে তাঁকে সমাহিত করা হয়। আজকের দিনে আমরা এটাই বলব -আমাদের বাঙালি জাতির স্বাধিকার সংগ্রাম, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ, আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম।
কবিতা ও গান স্বাধিকার ও স্বাধীনতা সংগ্রামে আমাদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। আমরা তাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করি।

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক শক্তি তৎপর: কাদের

আপডেট সময় : ১২:৪৫:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি তৎপর, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষকে সমূলে উৎপাটিত করে অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়তে।

শনিবার (২৫ মে) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে জাতীয় কাজী নজরুল ইসলামের সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী হয়েছি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে। কিন্তু সেই বিজয়কে সুসংহত করায় এখনো আমাদের অনেক কাজ বাকি। বিজয়কে সুসংহত করার পথে বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশে কিছু সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি তৎপর। আজকের এই দিনে আমাদের অঙ্গীকার-বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষকে সমূলে উৎপাটিত করে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ব। সেটাই হবে নজরুলের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের সার্থকতা।

এ সময় বিএনপির নেতাকর্মী আটক নিয়ে দলটির নেতাদের বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীকে জেলে পাঠানোর অ্যাজেন্ডা আমাদের নেই। যে দুর্বৃত্ত, অগ্নিসন্ত্রাস, খুন করে, অস্ত্র ব্যবসা করে, অপরাধীকে অপরাধের মানদণ্ডে তাদের জেল জুলুম হয়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। এখানে কোনো বিএনপি বা অন্য দলের ব্যাপারে আমরা নির্বাচনের পর নতুন করে আমরা কোনো চিন্তা ভাবনা করিনি-কাউকে নির্যাতন করব, জেলে পাঠাবো রাজনৈতিক দলের।

দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখনীর ভূমিকা নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয়তাবাদের অবিসংবাদিত কবি, অসাম্প্রদায়িক চেতনার কবি, বিদ্রোহ ও বেদনার কবি, যৌবনের কবি আমাদের জাতীয় কবি। জাতীয় কবির জন্মতিথিতে আমরা যে কবিকে বঙ্গবন্ধু প্রতিবেশী দেশ থেকে স্বাধীনতার পর বাংলাদেশে এনেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর পরিকল্পনায় কবির মৃত্যুর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সবুজ চত্বরে তাঁকে সমাহিত করা হয়। আজকের দিনে আমরা এটাই বলব -আমাদের বাঙালি জাতির স্বাধিকার সংগ্রাম, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ, আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম।
কবিতা ও গান স্বাধিকার ও স্বাধীনতা সংগ্রামে আমাদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। আমরা তাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করি।