ঢাকা ০৩:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপির নির্বাচন বন্ধের অপচেষ্টা সফল হতে দেওয়া হবে না : শামীম ওসমান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:২১:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৪৩ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : 

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেন, আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে বিএনপি দুই ভাগে বিভক্ত হয়েছে। এদের একটি গ্রুপ বেগম খালেদা জিয়া ভিত্তিক যারা দলের জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ, তারা চাচ্ছেন নির্বাচনে যেতে। অপর দিকে লন্ডনে বসে তারেক রহমান ও তার অনুসারীরা চাচ্ছেন নির্বাচন বানচাল করতে। এই উদ্দেশ্যে তারা বহু অপচেষ্টা করবে কিন্তু তাদের সফল হতে দেওয়া হবে না।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় কেমিস্টের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তারেক রহমান দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টায় আছেন উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, তারেক রহমান মানি লন্ডারিং মামলা ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলাসহ বেশ কিছু মামলা বিচারাধীন রয়েছে। তাই তিনি দেশে আসতে পারবেন না। তিনি জানেন, নির্বাচনে গেলে তারা ১৫১ আসন পাবেন না। এই বিষয়ে অনেকে তর্ক করেন জনপ্রিয়তা পাওয়ার জন্য। ২০০৮ সালে তাদের সাজানো তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই তারা মাত্র ২৯টি আসন পেয়েছিল।

তিনি বলেন, একটি গণতান্ত্রিক দেশে একদল নিজেদের বুদ্ধিজীবী দাবী করে। আমার মনে হয় মার্চ থেকে জুন মাস পর্যন্ত সবার সচেতন হতে হবে। তারা যে প্ল্যান করছে সেটা বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ আফগানিস্তানে পরিণত হবে।

তিনি আরও বলেন, সারা দেশে বেশ কিছু জঙ্গি ধরা পড়েছে এমন কিছু ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করা হবে। যেন এই দেশটাকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করা যায়। তারা আসলে লাশ চায়। হতে পারে সাধারণ জনগণের লাশ, হতে পারে আমাদের দলের নেতাকর্মীদের লাশ কিংবা বিএনপির জ্যেষ্ঠ কোনো নেতার লাশ। এ রকম পরিবেশ সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবে, কিন্তু তাদের এই চেষ্টা সফল হবে না।

শামীম ওসমান বলেন, যারা দেশকে ভালোবাসেন, সামনের দিকে আরও এগিয়ে যাক এটা চান, তাদেরকে আমি বিশেষভাবে অনুরোধ করবো সচেতন থাকার জন্য। সামনের তিন থেকে চার মাস খুবই সতর্ক থাকতে হবে। ওরা আঘাত করার চেষ্টা করবে, কিন্তু সেই সুযোগ তাদের দেওয়া হবে না।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ডিএনডির টাকা পাওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতাল করার চেষ্টা করছি। এ কাজগুলো হয়ে গেলে জনগণের কল্যাণ হবে। এটা আমাদের দায়িত্ব। মাদক সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজি রোধ করা আমাদের একার পক্ষে সম্ভব না। আমি ভালো মানুষগুলোকে বলছি- আমাকে একটু সাহায্য করুন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রিফাত ফেরদৌস, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ বিশ্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন, গোগনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজর আলী, বক্তাবলী ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপির নির্বাচন বন্ধের অপচেষ্টা সফল হতে দেওয়া হবে না : শামীম ওসমান

আপডেট সময় : ০৯:২১:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : 

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেন, আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে বিএনপি দুই ভাগে বিভক্ত হয়েছে। এদের একটি গ্রুপ বেগম খালেদা জিয়া ভিত্তিক যারা দলের জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ, তারা চাচ্ছেন নির্বাচনে যেতে। অপর দিকে লন্ডনে বসে তারেক রহমান ও তার অনুসারীরা চাচ্ছেন নির্বাচন বানচাল করতে। এই উদ্দেশ্যে তারা বহু অপচেষ্টা করবে কিন্তু তাদের সফল হতে দেওয়া হবে না।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় কেমিস্টের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তারেক রহমান দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টায় আছেন উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, তারেক রহমান মানি লন্ডারিং মামলা ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি। এছাড়া তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলাসহ বেশ কিছু মামলা বিচারাধীন রয়েছে। তাই তিনি দেশে আসতে পারবেন না। তিনি জানেন, নির্বাচনে গেলে তারা ১৫১ আসন পাবেন না। এই বিষয়ে অনেকে তর্ক করেন জনপ্রিয়তা পাওয়ার জন্য। ২০০৮ সালে তাদের সাজানো তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই তারা মাত্র ২৯টি আসন পেয়েছিল।

তিনি বলেন, একটি গণতান্ত্রিক দেশে একদল নিজেদের বুদ্ধিজীবী দাবী করে। আমার মনে হয় মার্চ থেকে জুন মাস পর্যন্ত সবার সচেতন হতে হবে। তারা যে প্ল্যান করছে সেটা বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ আফগানিস্তানে পরিণত হবে।

তিনি আরও বলেন, সারা দেশে বেশ কিছু জঙ্গি ধরা পড়েছে এমন কিছু ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করা হবে। যেন এই দেশটাকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করা যায়। তারা আসলে লাশ চায়। হতে পারে সাধারণ জনগণের লাশ, হতে পারে আমাদের দলের নেতাকর্মীদের লাশ কিংবা বিএনপির জ্যেষ্ঠ কোনো নেতার লাশ। এ রকম পরিবেশ সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবে, কিন্তু তাদের এই চেষ্টা সফল হবে না।

শামীম ওসমান বলেন, যারা দেশকে ভালোবাসেন, সামনের দিকে আরও এগিয়ে যাক এটা চান, তাদেরকে আমি বিশেষভাবে অনুরোধ করবো সচেতন থাকার জন্য। সামনের তিন থেকে চার মাস খুবই সতর্ক থাকতে হবে। ওরা আঘাত করার চেষ্টা করবে, কিন্তু সেই সুযোগ তাদের দেওয়া হবে না।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ডিএনডির টাকা পাওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতাল করার চেষ্টা করছি। এ কাজগুলো হয়ে গেলে জনগণের কল্যাণ হবে। এটা আমাদের দায়িত্ব। মাদক সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজি রোধ করা আমাদের একার পক্ষে সম্ভব না। আমি ভালো মানুষগুলোকে বলছি- আমাকে একটু সাহায্য করুন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রিফাত ফেরদৌস, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ বিশ্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন, গোগনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজর আলী, বক্তাবলী ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী, কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু প্রমুখ।