ঢাকা ১১:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বিএনপির অভ্যাস ভাংচুর, মানুষ মারা আর আগুন দেয়া -কসবায় আইনমন্ত্রী

শরীফুল ইসলাম, কসবা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০১:০৫:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৯৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কসবায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপির অভ্যাস ভাংচুর, মানুষ মারা আর আগুন দেয়া। গত শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কুটি বাজার-কসবা পুরাতন বাজার ডিসি সড়কের বিজনা নদীতে এডভোকেট সিরাজুল হক স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এলাকার জনগণের বহু কাক্সিক্ষত সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখেছেন তারা কত ভাংচুর করেছে, আপনারা দেখেছেন তারা রেলগাড়ির বগিতে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। আপনারা দেখেছেন ২০১৩ সালে তারা বাসের মধ্যে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছে। এই ভাংচুর, মানুষ মারা, আগুন দেওয়া এটা বিএনপির অভ্যাস।

কসবায় সড়কে অবৈধ ট্রাক্টরের দৌড়াত্বের বিষয়ে সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আপনারা ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তিনি ব্যবস্থা না নিলে তখন আমার কাছে জানাবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদুল কাওসার ভূইয়া, ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল মান্নান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ শাহরিয়ার মুক্তার, কসবা পৌরসভার মেয়র মো. গোলাম হাক্কানী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মনির হোসেন, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. আবদুল আজিজ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কসবা উপজেলা প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ আহবায়ক আফজাল হোসেন, কাইমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইকতিয়ার আলম রনি।

বিকাল ৪টায় মন্ত্রী কসবা প্রেস ক্লাবের ৪০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে অংশ গ্রহণ করেন। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কসবা উপজেলা প্রকৌশলী  সাইফুল ইসলাম বলেন, আইনমন্ত্রী কুটি বাজার-কসবা পুরাতন বাজার ডিসি সড়কের বিজনা নদীতে এডভোকেট সিরাজুল হক স্কুল এন্ড কলেজের সামনে দুই কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২৪ ফুট প্রস্থ ও ৮৮ ফুট দৈর্ঘ্য সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন। এই সেতুর ফলে ওই এলাকার মানুষে কসবা পৌর শহর ও কুটি বাজারে যাতায়াতে অর্থ ও সময় বাচবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপির অভ্যাস ভাংচুর, মানুষ মারা আর আগুন দেয়া -কসবায় আইনমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০১:০৫:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

কসবায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপির অভ্যাস ভাংচুর, মানুষ মারা আর আগুন দেয়া। গত শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কুটি বাজার-কসবা পুরাতন বাজার ডিসি সড়কের বিজনা নদীতে এডভোকেট সিরাজুল হক স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এলাকার জনগণের বহু কাক্সিক্ষত সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এমপি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আপনারা দেখেছেন তারা কত ভাংচুর করেছে, আপনারা দেখেছেন তারা রেলগাড়ির বগিতে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। আপনারা দেখেছেন ২০১৩ সালে তারা বাসের মধ্যে আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছে। এই ভাংচুর, মানুষ মারা, আগুন দেওয়া এটা বিএনপির অভ্যাস।

কসবায় সড়কে অবৈধ ট্রাক্টরের দৌড়াত্বের বিষয়ে সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আপনারা ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তিনি ব্যবস্থা না নিলে তখন আমার কাছে জানাবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদুল কাওসার ভূইয়া, ব্রা‏হ্মণবাড়িয়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল মান্নান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ শাহরিয়ার মুক্তার, কসবা পৌরসভার মেয়র মো. গোলাম হাক্কানী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মনির হোসেন, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. আবদুল আজিজ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কসবা উপজেলা প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ আহবায়ক আফজাল হোসেন, কাইমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইকতিয়ার আলম রনি।

বিকাল ৪টায় মন্ত্রী কসবা প্রেস ক্লাবের ৪০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে অংশ গ্রহণ করেন। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কসবা উপজেলা প্রকৌশলী  সাইফুল ইসলাম বলেন, আইনমন্ত্রী কুটি বাজার-কসবা পুরাতন বাজার ডিসি সড়কের বিজনা নদীতে এডভোকেট সিরাজুল হক স্কুল এন্ড কলেজের সামনে দুই কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ২৪ ফুট প্রস্থ ও ৮৮ ফুট দৈর্ঘ্য সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন। এই সেতুর ফলে ওই এলাকার মানুষে কসবা পৌর শহর ও কুটি বাজারে যাতায়াতে অর্থ ও সময় বাচবে।