ঢাকা ১০:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা ছাড়াই আজকের মতো আন্দোলন স্থগিত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ছেড়েছেন কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীরা। আপাতত আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়কারী হাসনাত আব্দুল্লাহ :: সারা দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শ্রেণি কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে :: শেষ খবর পর্যন্ত ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রংপুরে ছাত্রলীগ ও পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষে ৬ জন নিহত হয়েছেন :: চলমান এইচএসসি ও সমমানের আগামী ১৮ জুলাইয়ের (বৃহস্পতিবার) পরীক্ষা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি। তবে আগামী ২১ জুলাই থেকে পূর্বঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা যথারীতি চলবে :: ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন :: জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দুটি বাসে আগুন দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ৮টা ২৫ মিনিটের দিকে এ ঘটনা ঘটে। আগুনের ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি :: চার শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ, উত্তাল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা

বাম জোটের জয়ে ফ্রান্সে দাঙ্গা ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:৪৭:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪
  • / ৪৩২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফ্রান্সে পার্লামেন্টের দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের পর ফ্রান্স জুড়ে দাঙ্গা ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। মেরিন লে পেনের কট্টর-ডানপন্থী আরএন পার্টিকে বামপন্থী জোট এবং প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর মধ্যপন্থী জোট সরকার গঠনে বাধা দেয়।

ফ্রান্সের নির্বাচনে বামপন্থিদের জোট পার্লামেন্টের বেশিরভাগ আসনে জিতেছে। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর মধ্যপন্থি জোট দ্বিতীয় অবস্থানে আর উগ্র ডানপন্থি দল রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে।

মূলত ডানপন্থি দলটি নির্বাচনে জেতার আশা করলেও তারা নেমে গেছে তৃতীয় অবস্থানে। অন্যদিকে বামপন্থিদের জোট বেশিরভাগ আসনে জিতলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না কোনও দল।

সোমবার (৮ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও ক্লিপগুলিতে দেখা গেছে, মুখোশধারী বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় দাঙ্গা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে। বিক্ষোভকারীরা অগ্নিসংযোগের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

রিপোর্ট অনুযায়ী, হাজার হাজার মানুষ রাজধানী প্যারিসের প্লেস দে লা রিপাবলিক-এ বামপন্থী জোটের বিজয় উদযাপন করতে জড়ো হয়। এসময় বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

উত্তরের শহর লিলে বামপন্থী কর্মীদের এবং পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ এখানে টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করেছে।

এদিকে, পশ্চিম ফ্রান্সের রেনেস শহর থেকে পুলিশ ২৫ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। বামপন্থী বিক্ষোভকারীরা এ সময় “সবাই পুলিশকে ঘৃণা করে” বলে স্লোগান দিয়েছে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে।

ফরাসি সরকার নির্বাচনের ফলাফলের পরে সহিংসতার আশংকায় অতিরিক্ত ৩০ হাজার পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করে। কট্টর-বাম বা কট্টর-ডান কেউই যাতে “বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে” সফল না হয় সে জন্য এই ব্যবস্থা নিয়েছিল। সূত্র: ডব্লিউআইওএন।

নিউজটি শেয়ার করুন

বাম জোটের জয়ে ফ্রান্সে দাঙ্গা ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে

আপডেট সময় : ১২:৪৭:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জুলাই ২০২৪

ফ্রান্সে পার্লামেন্টের দ্বিতীয় দফা নির্বাচনের পর ফ্রান্স জুড়ে দাঙ্গা ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। মেরিন লে পেনের কট্টর-ডানপন্থী আরএন পার্টিকে বামপন্থী জোট এবং প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর মধ্যপন্থী জোট সরকার গঠনে বাধা দেয়।

ফ্রান্সের নির্বাচনে বামপন্থিদের জোট পার্লামেন্টের বেশিরভাগ আসনে জিতেছে। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর মধ্যপন্থি জোট দ্বিতীয় অবস্থানে আর উগ্র ডানপন্থি দল রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে।

মূলত ডানপন্থি দলটি নির্বাচনে জেতার আশা করলেও তারা নেমে গেছে তৃতীয় অবস্থানে। অন্যদিকে বামপন্থিদের জোট বেশিরভাগ আসনে জিতলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না কোনও দল।

সোমবার (৮ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিও ক্লিপগুলিতে দেখা গেছে, মুখোশধারী বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় দাঙ্গা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছে। বিক্ষোভকারীরা অগ্নিসংযোগের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

রিপোর্ট অনুযায়ী, হাজার হাজার মানুষ রাজধানী প্যারিসের প্লেস দে লা রিপাবলিক-এ বামপন্থী জোটের বিজয় উদযাপন করতে জড়ো হয়। এসময় বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

উত্তরের শহর লিলে বামপন্থী কর্মীদের এবং পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ এখানে টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করেছে।

এদিকে, পশ্চিম ফ্রান্সের রেনেস শহর থেকে পুলিশ ২৫ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। বামপন্থী বিক্ষোভকারীরা এ সময় “সবাই পুলিশকে ঘৃণা করে” বলে স্লোগান দিয়েছে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে।

ফরাসি সরকার নির্বাচনের ফলাফলের পরে সহিংসতার আশংকায় অতিরিক্ত ৩০ হাজার পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করে। কট্টর-বাম বা কট্টর-ডান কেউই যাতে “বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিতে” সফল না হয় সে জন্য এই ব্যবস্থা নিয়েছিল। সূত্র: ডব্লিউআইওএন।