ঢাকা ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বান্দরবানে পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৩৩:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৪২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বান্দরবান প্রতিনিধি : 

বান্দরবানে জঙ্গি ও পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) গোলাগুলি চলছে।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং এর পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আমরা জানতে পারি ওই এলাকায় জঙ্গি ও পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা একত্রিত হয়ে আস্তানা গেড়েছে। পরে সেখানে অভিযান পরিচালনা করতে গেলে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করতে থাকে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে।
খন্দকার আল মঈন বলেন, পাহাড়ে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এর আগেও জঙ্গি সংগঠনটির বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান হয়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের খবর জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, থানচির রেমাক্রি এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন কেএনএফ ও জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র সদস্যরা। এসময় র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে দুপক্ষের গুলিবিনিময় শুরু হয়।

এর আগে, গত ২৩ জানুয়ারি কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে জঙ্গিদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ওই সময় জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র শুরা সদস্য ও সামরিক শাখার প্রধান রনবীর এবং তার সহযোগী বোমাবিশেষজ্ঞ বাশারকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সেখান থেকে দেশি-বিদেশি অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করে র‌্যাব।

উল্লেখ্য, পাহাড়ি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন কেএনএফ পাহাড়ে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে ২০২২ সালের ১২ অক্টোবর থেকে পার্বত্য জেলা বান্দরবানের দুর্গম পাহাড়ে র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা অভিযান শুরু করেন। অভিযান পরিচালনায় সহযোগিতা করতে গত ১৮ অক্টোবর থেকে বান্দরবানের রুমা রোয়াংছড়ি ও থানচি উপজেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে স্থানীয় প্রশাসন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

বান্দরবানে পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলি

আপডেট সময় : ১২:৩৩:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বান্দরবান প্রতিনিধি : 

বান্দরবানে জঙ্গি ও পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের সঙ্গে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) গোলাগুলি চলছে।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং এর পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আমরা জানতে পারি ওই এলাকায় জঙ্গি ও পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা একত্রিত হয়ে আস্তানা গেড়েছে। পরে সেখানে অভিযান পরিচালনা করতে গেলে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করতে থাকে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি করে।
খন্দকার আল মঈন বলেন, পাহাড়ে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এর আগেও জঙ্গি সংগঠনটির বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান হয়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের খবর জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, থানচির রেমাক্রি এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এসময় র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন কেএনএফ ও জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র সদস্যরা। এসময় র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে দুপক্ষের গুলিবিনিময় শুরু হয়।

এর আগে, গত ২৩ জানুয়ারি কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশে জঙ্গিদের সঙ্গে র‌্যাবের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। ওই সময় জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র শুরা সদস্য ও সামরিক শাখার প্রধান রনবীর এবং তার সহযোগী বোমাবিশেষজ্ঞ বাশারকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সেখান থেকে দেশি-বিদেশি অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করে র‌্যাব।

উল্লেখ্য, পাহাড়ি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন কেএনএফ পাহাড়ে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে ২০২২ সালের ১২ অক্টোবর থেকে পার্বত্য জেলা বান্দরবানের দুর্গম পাহাড়ে র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা অভিযান শুরু করেন। অভিযান পরিচালনায় সহযোগিতা করতে গত ১৮ অক্টোবর থেকে বান্দরবানের রুমা রোয়াংছড়ি ও থানচি উপজেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে স্থানীয় প্রশাসন।