ঢাকা ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকারকারী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০২:০৮:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকারকারী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর ধানমন্ডিতে আজ সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকার করে, তারা বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী। বিএনপির কাছ থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বাঙালি সংস্কৃতির চেতনা নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব আমরা আশা করি না।

এসময় তিনি আরও বলেন, বিএনপি স্বাধীনতাকে ধ্বংস করার জন্য ক্ষমতায় আসতে চায়। আমি মির্জা ফখরুল ইসলামকে চ্যালেঞ্জ করছি। ছিল ২০ হাজার, হয়ে গেল ৬০ লাখ! অবিলম্বে ৬০ লাখ বন্দীর তালিকা প্রকাশ করুক। না হয় মিথ্যাচারের জন্য জাতির কাছে মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে হবে।

সম্প্রতি ইসরায়েলে ইরানের হামলা প্রসঙ্গে কাদের বলেন, আমরা যুদ্ধ চাই না শান্তি চাই।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য বিতরণ নিয়ে কাদের বলেন, যত দিন সাধারণ মানুষের প্রয়োজন থাকবে ততদিন টিসিবির পণ্য বিতরণ কার্যক্রম চলবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, বি এম মোজাম্মেল হক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকারকারী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী: কাদের

আপডেট সময় : ০২:০৮:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকারকারী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর ধানমন্ডিতে আজ সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা বাঙালি সংস্কৃতিকে অস্বীকার করে, তারা বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী। বিএনপির কাছ থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বাঙালি সংস্কৃতির চেতনা নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব আমরা আশা করি না।

এসময় তিনি আরও বলেন, বিএনপি স্বাধীনতাকে ধ্বংস করার জন্য ক্ষমতায় আসতে চায়। আমি মির্জা ফখরুল ইসলামকে চ্যালেঞ্জ করছি। ছিল ২০ হাজার, হয়ে গেল ৬০ লাখ! অবিলম্বে ৬০ লাখ বন্দীর তালিকা প্রকাশ করুক। না হয় মিথ্যাচারের জন্য জাতির কাছে মির্জা ফখরুলকে ক্ষমা চাইতে হবে।

সম্প্রতি ইসরায়েলে ইরানের হামলা প্রসঙ্গে কাদের বলেন, আমরা যুদ্ধ চাই না শান্তি চাই।

ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য বিতরণ নিয়ে কাদের বলেন, যত দিন সাধারণ মানুষের প্রয়োজন থাকবে ততদিন টিসিবির পণ্য বিতরণ কার্যক্রম চলবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, বি এম মোজাম্মেল হক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।