ঢাকা ১২:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাউফলে পারিবারিক বিরোধের জেরে যুবক টেঁটাবিদ্ধ

বাউফল প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৮:০৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৫৮১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পটুয়াখালীর বাউফলে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে হানিফ সরদার (২৮) নামের এক যুবক টেঁটাবিদ্ধ হয়েছেন। বুধবার রাতে উপজেলার নওমালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের জামাল ফকির বাড়ির পাশে এ ঘটনা ঘটেছে। হানিফ সরদার ওই এলাকার আবদুর রহমান সরদারের ছেলে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কয়েক বছর আগে হানিফ সরদারের চাচাতো বোনকে বিয়ে করেন একই এলাকার শাহজাহান খানের ছেলে হালিম খান (৪০)। হালিম খানের সঙ্গে দীর্ঘদিন থেকে তার স্ত্রীর দাম্পত্য কলহ চলছে। কয়েকদিন আগে হালিম খানের স্ত্রী অভিমান করে বাবার বাড়ি চলে যান। এ বিষয় নিয়ে হানিফের সঙ্গে হালিম খানের কথাকাটাকাটি হয়। বুধবার রাতে টেঁটা নিয়ে জামাল ফকির বাড়ির পাশে ওৎ পেতে থাকেন হালিম খান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে হানিফ সরদারকে টার্গেট করে টেঁটা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যান হালিম। পরে টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় হানিফ সরদারকে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মিরাজুল ইসলাম মিরাজ বলেন, হানিফের পায়ে টেঁটাবিদ্ধ হয়। জরুরী অস্ত্রপচার করে ঁেটটা অপসারণ করা হয়েছে। এখন হানিফ আশংকামুক্ত।

অবশ্য এ ব্যাপারে কোনো পক্ষই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজী হননি। নওমালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোফাজ্জেল হোসেন খলিফা বলেন, টেঁটা নিক্ষেপকারী হালিম খানের বড় ভাই আমার কাছে ব্যাপারে নালিশ করেছেন।

বাউফল থানার ওসি শোনিত কুমার গায়েন ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পারিবারিক বিরোধের জেরে টেঁটা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বাউফলে পারিবারিক বিরোধের জেরে যুবক টেঁটাবিদ্ধ

আপডেট সময় : ০৮:০৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পটুয়াখালীর বাউফলে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে হানিফ সরদার (২৮) নামের এক যুবক টেঁটাবিদ্ধ হয়েছেন। বুধবার রাতে উপজেলার নওমালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের জামাল ফকির বাড়ির পাশে এ ঘটনা ঘটেছে। হানিফ সরদার ওই এলাকার আবদুর রহমান সরদারের ছেলে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কয়েক বছর আগে হানিফ সরদারের চাচাতো বোনকে বিয়ে করেন একই এলাকার শাহজাহান খানের ছেলে হালিম খান (৪০)। হালিম খানের সঙ্গে দীর্ঘদিন থেকে তার স্ত্রীর দাম্পত্য কলহ চলছে। কয়েকদিন আগে হালিম খানের স্ত্রী অভিমান করে বাবার বাড়ি চলে যান। এ বিষয় নিয়ে হানিফের সঙ্গে হালিম খানের কথাকাটাকাটি হয়। বুধবার রাতে টেঁটা নিয়ে জামাল ফকির বাড়ির পাশে ওৎ পেতে থাকেন হালিম খান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে হানিফ সরদারকে টার্গেট করে টেঁটা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যান হালিম। পরে টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় হানিফ সরদারকে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মিরাজুল ইসলাম মিরাজ বলেন, হানিফের পায়ে টেঁটাবিদ্ধ হয়। জরুরী অস্ত্রপচার করে ঁেটটা অপসারণ করা হয়েছে। এখন হানিফ আশংকামুক্ত।

অবশ্য এ ব্যাপারে কোনো পক্ষই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজী হননি। নওমালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোফাজ্জেল হোসেন খলিফা বলেন, টেঁটা নিক্ষেপকারী হালিম খানের বড় ভাই আমার কাছে ব্যাপারে নালিশ করেছেন।

বাউফল থানার ওসি শোনিত কুমার গায়েন ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পারিবারিক বিরোধের জেরে টেঁটা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।