ঢাকা ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বাংলাদেশের ওপর বিভিন্ন পরাশক্তির দৃষ্টি পড়ছে : তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৪:২৬:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৫০৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ওপর বিদেশিদের লোলুপ দৃষ্টি বহুকাল আগে থেকেই আছে। বিদেশি শক্তি হানা দিচ্ছে। বিভিন্ন পরাশক্তি ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর দৃষ্টি পড়ছে এ দেশটির ওপর। এসব কারণে বাংলাদেশ পরিচালনা করা অনেক কঠিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কঠিন কাজটি করেছেন।’

আজ বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

বিএনপির সমালোচনা করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি দেশের মানুষের মাঝে ভয়ভীতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। অথচ দেশের নাগরিক সমাজের বিএনপির অগ্নিসন্ত্রাস নিয়ে কোনো বিবৃতি নেই। এটা খুবই দুঃখজনক। এসব বুদ্ধিজীবীদের মুখোশ উন্মোচন করা দরকার। এদের চিহ্নিত করা এখন সময়ের দাবি।’

‘বিএনপির পৃথিবী ছোট হয়ে আসছে’ দাবি করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপির কম্বলের তলা থেকে আস্তে আস্তে নেতারা বেরিয়ে যাচ্ছে। একসময় এ দলটি শূন্য হয়ে যাবে।’

বিএনপির মতো একটি বড় রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনের বাইরে ঠেলে দিয়ে জাতীয় পার্টি, কিংস পার্টির কিছু প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দিয়ে কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো যাবে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচনে না এলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না, এমন কোনো কথা নেই। ভোটাররা ভোট দিলেই ভোট গ্রহণযোগ্য হবে। কারো জন্য নির্বাচন বসে থাকবে না।’

নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সব প্রার্থীই আওয়ামী লীগের নির্বাচনি প্রতীক নৌকা চাওয়া প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সবাই নৌকা প্রতীক চায়, এ তথ্য সঠিক নয়। কেউ কেউ কিছু কেন্দ্রে ছাড় চায়। তবে ভোটাররা যাকে ভোট দেবেন, তিনিই বিজয়ী হবেন।’

নিউজটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশের ওপর বিভিন্ন পরাশক্তির দৃষ্টি পড়ছে : তথ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৪:২৬:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ওপর বিদেশিদের লোলুপ দৃষ্টি বহুকাল আগে থেকেই আছে। বিদেশি শক্তি হানা দিচ্ছে। বিভিন্ন পরাশক্তি ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর দৃষ্টি পড়ছে এ দেশটির ওপর। এসব কারণে বাংলাদেশ পরিচালনা করা অনেক কঠিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কঠিন কাজটি করেছেন।’

আজ বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

বিএনপির সমালোচনা করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি দেশের মানুষের মাঝে ভয়ভীতি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। অথচ দেশের নাগরিক সমাজের বিএনপির অগ্নিসন্ত্রাস নিয়ে কোনো বিবৃতি নেই। এটা খুবই দুঃখজনক। এসব বুদ্ধিজীবীদের মুখোশ উন্মোচন করা দরকার। এদের চিহ্নিত করা এখন সময়ের দাবি।’

‘বিএনপির পৃথিবী ছোট হয়ে আসছে’ দাবি করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপির কম্বলের তলা থেকে আস্তে আস্তে নেতারা বেরিয়ে যাচ্ছে। একসময় এ দলটি শূন্য হয়ে যাবে।’

বিএনপির মতো একটি বড় রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনের বাইরে ঠেলে দিয়ে জাতীয় পার্টি, কিংস পার্টির কিছু প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দিয়ে কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি বাড়ানো যাবে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচনে না এলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না, এমন কোনো কথা নেই। ভোটাররা ভোট দিলেই ভোট গ্রহণযোগ্য হবে। কারো জন্য নির্বাচন বসে থাকবে না।’

নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সব প্রার্থীই আওয়ামী লীগের নির্বাচনি প্রতীক নৌকা চাওয়া প্রসঙ্গে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সবাই নৌকা প্রতীক চায়, এ তথ্য সঠিক নয়। কেউ কেউ কিছু কেন্দ্রে ছাড় চায়। তবে ভোটাররা যাকে ভোট দেবেন, তিনিই বিজয়ী হবেন।’