ঢাকা ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

হাটহাজারীতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে

বন্ধুর মৃত্যুর শোকে অপর বন্ধুর মৃত্যু

আসলাম পারভেজ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) থেকে 
  • আপডেট সময় : ০৮:৪২:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৬১১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে মোঃ আরফাত (২৮) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুর চার ঘন্টা পর তারই বন্ধু মোঃ আজম (২৮) নামে অপর এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তারা উভয়েই ঘনিষ্ট বন্ধু ছিলেন। সোমবার হাটহাজারী পৌরসভার আজিমপাড়া সাব্বি বাপের বাড়িতে হৃদয়স্পর্শী এ ঘটনা ঘটে। আজম ওই বাড়ির নুরুল ইসলাস প্রকাশের বাঘের ও আরফাত একই বাড়ির মৃত মুছা সওদাগরের পুত্র।
সরেজমিনে জানা গেছে, রোববার রাতে মোঃ আরফাতের বিয়ে উপলক্ষে দুই বন্ধু মিলে শশুড় বাড়িতে নাস্তা পাঠাতে বাজার করে। সকাল সাড়ে আটটার দিকে হঠাৎ আরফাত স্ট্রোক করে মারা যান। খবর পেয়ে আজম বন্ধুর বাড়িতে যায়। নিজ হাতে টুপি পড়িয়ে দেয়। পরে লাশ গোসলের প্রস্তুুতি নেয়ার প্রাক্কালে বুকে ব্যথা করছে বলে জানায় আজম। দ্রুত হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা বেগতিক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক চমেক রেফার করলে নেয়ার পথেই দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মারা যান  আজম। আজমের দুই ও তিন বছর বয়স্ক একটি পুত্র ও কন্যা সন্তান রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকার শোকের ছায়া বিরাজ করছে। শতশত মানুষ দুই বন্ধুকে দেখার জন্য ভীড় করছে। বাদে আছর আরফাত ও বাদে এশা আজমের নামাজে জানাযা শেষে সমাজের গোরস্থানে তাদের দাফন করা হবে বলে এ প্রতিবেদককে  জানান, আজমের চাচাত ভাই মোঃ বাপ্পি।

নিউজটি শেয়ার করুন

হাটহাজারীতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে

বন্ধুর মৃত্যুর শোকে অপর বন্ধুর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৮:৪২:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে মোঃ আরফাত (২৮) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুর চার ঘন্টা পর তারই বন্ধু মোঃ আজম (২৮) নামে অপর এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তারা উভয়েই ঘনিষ্ট বন্ধু ছিলেন। সোমবার হাটহাজারী পৌরসভার আজিমপাড়া সাব্বি বাপের বাড়িতে হৃদয়স্পর্শী এ ঘটনা ঘটে। আজম ওই বাড়ির নুরুল ইসলাস প্রকাশের বাঘের ও আরফাত একই বাড়ির মৃত মুছা সওদাগরের পুত্র।
সরেজমিনে জানা গেছে, রোববার রাতে মোঃ আরফাতের বিয়ে উপলক্ষে দুই বন্ধু মিলে শশুড় বাড়িতে নাস্তা পাঠাতে বাজার করে। সকাল সাড়ে আটটার দিকে হঠাৎ আরফাত স্ট্রোক করে মারা যান। খবর পেয়ে আজম বন্ধুর বাড়িতে যায়। নিজ হাতে টুপি পড়িয়ে দেয়। পরে লাশ গোসলের প্রস্তুুতি নেয়ার প্রাক্কালে বুকে ব্যথা করছে বলে জানায় আজম। দ্রুত হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থা বেগতিক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক চমেক রেফার করলে নেয়ার পথেই দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মারা যান  আজম। আজমের দুই ও তিন বছর বয়স্ক একটি পুত্র ও কন্যা সন্তান রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকার শোকের ছায়া বিরাজ করছে। শতশত মানুষ দুই বন্ধুকে দেখার জন্য ভীড় করছে। বাদে আছর আরফাত ও বাদে এশা আজমের নামাজে জানাযা শেষে সমাজের গোরস্থানে তাদের দাফন করা হবে বলে এ প্রতিবেদককে  জানান, আজমের চাচাত ভাই মোঃ বাপ্পি।