ঢাকা ০২:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বদলগাছীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন : স্বামী আটক

হাফিজার রহমান, বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:০০:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪২৪ বার পড়া হয়েছে

hotta

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
নওগাঁর বদলগাছীতে স্বামীর নির্যাতনের পর খুন করেছে ঘাতক স্বামী এমরান। খুনি স্বামীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। সরজমিনে তদন্তে জানা যায় হলুদবিহার নিবাসী মিরাজ উদ্দীনের ছেলে এমরানের সাথে, কার্তীকাহার নিবাসী আলমের মেয়ের এক বৎসর পূর্বে সম্পর্কের মাধ্যমে বিবাহ হয়।
মাদক আসক্ত স্বামী এমরানের সাথে স্ত্রী আরসীর টাকা পয়সা নিয়ে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হতো। গত ঈদে আরসী বেড়ানোর জন্য মায়ের বাড়ীতে আসে। স্বামী এমরান ২০/৪/২৪ ইং তাং দিবাগত রাত্রিতে শশুর বাড়ীতেই ছিল। রাত ১টার সময় এমরানের স্ত্রীকে ডাকা ডাকি ও এমরানের চিল্লা চিল্লির কারনে পাশের বাড়ীর মিজানুর এবং মনির আসে।
আরো লোকজনের সমাগমে আরসী মারা গেছে বলে জানতে পায়। এমতাবস্থায় এমরান বিভিন্ন প্রশ্নের সন্মুখিন হলে তৎক্ষনাৎ বাড়ী থেকে বেড়িয়ে তার নিজস্ব বাড়ীতে গিয়ে বেশ কিছু সময় পর মা বাবাকে নিয়ে চলে আসে। অন্নান্য স্বজনরা আসার পর আরসীর গলায় ও ঘাড়ে ফোলার দাগ দেখে এমরানকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। বেগতিক দেখে এমরান আরসীকে উপর করে মাজায় বসে দুই হাত দিয়ে গলা এবং ঘাড়ে চাপা দিয়ে মেরেছেন বলে স্বীকার করেন। ২১/৪/২৪ ইং তাং বদলগাছী থানা পুলিশ ছেলেকে আটক এবং লাস থানায় নিয়ে জান।
এ বিষয়ে মেয়ের বাবা সাহ আলম বাদী হয়ে বদলগাছী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নিহতের  মা মুক্তা পারভীন বলেন মেয়ের সাথে টাকা পয়সা নিয়ে মাঝে মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হতো। বদলগাছী ভাড়প্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুব আলম বলেন, ময়না তদন্তের জন্য লাস মর্গে পাঠানো হয়েছে। আটক স্বামী এমরানকে কোর্টে প্রেরন করা হয়েছে।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

বদলগাছীতে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন : স্বামী আটক

আপডেট সময় : ০৩:০০:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
নওগাঁর বদলগাছীতে স্বামীর নির্যাতনের পর খুন করেছে ঘাতক স্বামী এমরান। খুনি স্বামীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। সরজমিনে তদন্তে জানা যায় হলুদবিহার নিবাসী মিরাজ উদ্দীনের ছেলে এমরানের সাথে, কার্তীকাহার নিবাসী আলমের মেয়ের এক বৎসর পূর্বে সম্পর্কের মাধ্যমে বিবাহ হয়।
মাদক আসক্ত স্বামী এমরানের সাথে স্ত্রী আরসীর টাকা পয়সা নিয়ে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হতো। গত ঈদে আরসী বেড়ানোর জন্য মায়ের বাড়ীতে আসে। স্বামী এমরান ২০/৪/২৪ ইং তাং দিবাগত রাত্রিতে শশুর বাড়ীতেই ছিল। রাত ১টার সময় এমরানের স্ত্রীকে ডাকা ডাকি ও এমরানের চিল্লা চিল্লির কারনে পাশের বাড়ীর মিজানুর এবং মনির আসে।
আরো লোকজনের সমাগমে আরসী মারা গেছে বলে জানতে পায়। এমতাবস্থায় এমরান বিভিন্ন প্রশ্নের সন্মুখিন হলে তৎক্ষনাৎ বাড়ী থেকে বেড়িয়ে তার নিজস্ব বাড়ীতে গিয়ে বেশ কিছু সময় পর মা বাবাকে নিয়ে চলে আসে। অন্নান্য স্বজনরা আসার পর আরসীর গলায় ও ঘাড়ে ফোলার দাগ দেখে এমরানকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। বেগতিক দেখে এমরান আরসীকে উপর করে মাজায় বসে দুই হাত দিয়ে গলা এবং ঘাড়ে চাপা দিয়ে মেরেছেন বলে স্বীকার করেন। ২১/৪/২৪ ইং তাং বদলগাছী থানা পুলিশ ছেলেকে আটক এবং লাস থানায় নিয়ে জান।
এ বিষয়ে মেয়ের বাবা সাহ আলম বাদী হয়ে বদলগাছী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নিহতের  মা মুক্তা পারভীন বলেন মেয়ের সাথে টাকা পয়সা নিয়ে মাঝে মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হতো। বদলগাছী ভাড়প্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুব আলম বলেন, ময়না তদন্তের জন্য লাস মর্গে পাঠানো হয়েছে। আটক স্বামী এমরানকে কোর্টে প্রেরন করা হয়েছে।
বাখ//আর