ঢাকা ০১:০০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বঙ্গোপসাগর উত্তল নিরাপদ আশ্রয়ে ট্রলার নিয়ে ফিরছে জেলেরা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:২৩:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩
  • / ৪৫৬ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া  (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি //
বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লগুচাপে বৈরী আবহাওয়ার ফলে সমুদ্র উত্তাল হয়ে উঠেছে। এ অবস্থায় মঙ্গলবার  দুপুর থেকেই পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মৎস্যবন্দর আলীপুর-মহিপুরসহ  বিভিন্ন নদ নদীতে নিরাপদ আশ্রয় অবস্থান নিতে ট্রলার নিয়ে ফিরে আসছেন হাজারো জেলে। দিনভর মেঘলা আকাশের সাথে গুড়ি গুড়ি বৃস্টিতে পর্যটকসহ শ্রমজীবী মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছে। বইছে ঠান্ডা বাতাস।
এদিকে সমুদ্র উত্তাল থাকায় কুয়াকাটা  সৈকতে অবস্থানরত পর্যটকদের বার বার ট্যুরিস্ট পুলিশ মাইকিং করে সতর্ক করছে যারা সাঁতার না জানেন সমুদ্রের নামা থেকে বিরত থাকতে।
এফবি মা জননী ৮ ট্রলারের মাঝি মোঃ শাহজালাল বলেন, টানা ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞার শেষ করে আমরা সমুদ্রে রুপালি ইলিশের সন্ধানে যাই হঠাৎ করে বঙ্গোপসাগর  উত্তল হয়ে যাওয়ার কারণে সমুদ্রের টিকতে পারিনি তাই আশ্রয় কেন্দ্রে চলে এসেছি। এর আগে কর্মহীন দিনগুলো তাদের কেটেছে খেয়ে না খেয়ে। সংসারের ব্যয়ভার বহন করতে অনেকেরই বইতে হচ্ছে ঋণের বোঝা। আবহাওয়া ভালো হলে মাছ ধরে শোধ করতে চান দাদনের ঋণ।
 কুয়াকাটা-আলীপুর মৎস্য আড়তদার সমিতির সভাপতি আনসার উদ্দিন মোল্লা জানান,চলতি মাসে ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হলো ২৩ জুলাই মধ্যরাতে।  তাই জেলেরা সমুদ্রে নামতে পারেনি। এর মধ্যে আবার আবহাওয়া খারাপ হয়ে গিয়েছে। তবে আজ আবারো সমুদ্র উত্তাল হলে তারা নিরাপদে চলে আসে।তিনি আরও বলেন, সামনে আসছে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা। সবমিলিয়ে জেলে পেশায় দিনদিন লোকসান গুনতে হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বঙ্গোপসাগর উত্তল নিরাপদ আশ্রয়ে ট্রলার নিয়ে ফিরছে জেলেরা

আপডেট সময় : ০৯:২৩:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩
// এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া  (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি //
বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লগুচাপে বৈরী আবহাওয়ার ফলে সমুদ্র উত্তাল হয়ে উঠেছে। এ অবস্থায় মঙ্গলবার  দুপুর থেকেই পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মৎস্যবন্দর আলীপুর-মহিপুরসহ  বিভিন্ন নদ নদীতে নিরাপদ আশ্রয় অবস্থান নিতে ট্রলার নিয়ে ফিরে আসছেন হাজারো জেলে। দিনভর মেঘলা আকাশের সাথে গুড়ি গুড়ি বৃস্টিতে পর্যটকসহ শ্রমজীবী মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছে। বইছে ঠান্ডা বাতাস।
এদিকে সমুদ্র উত্তাল থাকায় কুয়াকাটা  সৈকতে অবস্থানরত পর্যটকদের বার বার ট্যুরিস্ট পুলিশ মাইকিং করে সতর্ক করছে যারা সাঁতার না জানেন সমুদ্রের নামা থেকে বিরত থাকতে।
আরও পড়ুন : ৩ পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করলো কাপ্তাই থানার পুলিশ
এফবি মা জননী ৮ ট্রলারের মাঝি মোঃ শাহজালাল বলেন, টানা ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞার শেষ করে আমরা সমুদ্রে রুপালি ইলিশের সন্ধানে যাই হঠাৎ করে বঙ্গোপসাগর  উত্তল হয়ে যাওয়ার কারণে সমুদ্রের টিকতে পারিনি তাই আশ্রয় কেন্দ্রে চলে এসেছি। এর আগে কর্মহীন দিনগুলো তাদের কেটেছে খেয়ে না খেয়ে। সংসারের ব্যয়ভার বহন করতে অনেকেরই বইতে হচ্ছে ঋণের বোঝা। আবহাওয়া ভালো হলে মাছ ধরে শোধ করতে চান দাদনের ঋণ।
 কুয়াকাটা-আলীপুর মৎস্য আড়তদার সমিতির সভাপতি আনসার উদ্দিন মোল্লা জানান,চলতি মাসে ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হলো ২৩ জুলাই মধ্যরাতে।  তাই জেলেরা সমুদ্রে নামতে পারেনি। এর মধ্যে আবার আবহাওয়া খারাপ হয়ে গিয়েছে। তবে আজ আবারো সমুদ্র উত্তাল হলে তারা নিরাপদে চলে আসে।তিনি আরও বলেন, সামনে আসছে ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা। সবমিলিয়ে জেলে পেশায় দিনদিন লোকসান গুনতে হচ্ছে।