ঢাকা ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

বঙ্গবন্ধুর খুনিরা আমাদের মধ্যেই আছে : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৭:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫৪ বার পড়া হয়েছে

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, রাসেলের জন্মদিবসে বারবার তার মৃত্যুর দিনটির কথাই মনে পড়ে। যারা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যা করেছে, তারা এখনও আমাদের মধ্যেই আছে। তাদের প্রতিরোধের মাধ্যমেই রাসেলের জন্মদিনের সার্থকতা আসবে।

আজ মঙ্গলবার কারওয়ান বাজারের টিসিবি ভবনে শেখ রাসেল দিবস-২০২২ উদ্যাপন উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে, তাদের উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানো। যারা ১৯৭১ সালে পরাজিত হয়েছিল, তারাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল।

তিনি বলেন, আমরা একটি সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে চাই। এ লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। আমরা চোখ মেলে তাকালেই দেখতে পাব, বাংলাদেশ এখন কোথায় দাঁড়িয়ে আছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ। অনুষ্ঠান শেষে শিশুকিশোরদের মধ্যে রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় যারা বিজয়ী হয়েছেন, তাদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন

বঙ্গবন্ধুর খুনিরা আমাদের মধ্যেই আছে : বাণিজ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৭:৪৭:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, রাসেলের জন্মদিবসে বারবার তার মৃত্যুর দিনটির কথাই মনে পড়ে। যারা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে হত্যা করেছে, তারা এখনও আমাদের মধ্যেই আছে। তাদের প্রতিরোধের মাধ্যমেই রাসেলের জন্মদিনের সার্থকতা আসবে।

আজ মঙ্গলবার কারওয়ান বাজারের টিসিবি ভবনে শেখ রাসেল দিবস-২০২২ উদ্যাপন উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে, তাদের উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানো। যারা ১৯৭১ সালে পরাজিত হয়েছিল, তারাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল।

তিনি বলেন, আমরা একটি সুন্দর বাংলাদেশ গড়তে চাই। এ লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। আমরা চোখ মেলে তাকালেই দেখতে পাব, বাংলাদেশ এখন কোথায় দাঁড়িয়ে আছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ। অনুষ্ঠান শেষে শিশুকিশোরদের মধ্যে রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় যারা বিজয়ী হয়েছেন, তাদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।