ঢাকা ০৭:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ফ্রিল্যান্সারদের উৎসে কর দিতে হবে না: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৭:০৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৬৫৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ফ্রিল্যান্সারদের কোন উৎসে কর দিতে হবে না। একটি চক্র এ নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আজ শনিবার বিএফএস ক্লাউড এবং সাইবার সিকিউরিটি সম্পর্কে নলেজ শেয়ারিং অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ফ্রিল্যান্সররা ৪ শতাংশ ইনটেনসিভ পান। এছাড়া, দেশে উৎপাদিত ডেটা সংরক্ষণ দেশেই করতে পারলে বিলিয়ন ডলার ব্যবসার সুযোগ রয়েছে। কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার, আদালত, স্বাস্থ্যসহ স্পর্শকাতর ডেটা দেশের মাটিতে সংরক্ষণ করতে ক্লাউড স্টোরেজের ওপর গুরুত্ব দেন প্রতিমন্ত্রী।

এসময় বক্তারা জানান, দেশের ক্লাউড স্টোরেজ কোম্পানি থেকে বর্তমানে ৮টি ব্যাংক সেবা নিচ্ছে। এ ব্যবস্থা উন্নত করতে নিরাপত্তা, বিশ্বস্ততা, ব্যবসার ধারাবাহিকতা প্রয়োজন। অনলাইন জুয়ার মাধ্যমে শতকোটি টাকা পাচার রোধে বাংলাদেশ ব্যাংক ও টেলিকমিউনিকেশন নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষকে একযোগে কাজ করতে হবে বলেও জানান বক্তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ফ্রিল্যান্সারদের উৎসে কর দিতে হবে না: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৭:০৬:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ফ্রিল্যান্সারদের কোন উৎসে কর দিতে হবে না। একটি চক্র এ নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আজ শনিবার বিএফএস ক্লাউড এবং সাইবার সিকিউরিটি সম্পর্কে নলেজ শেয়ারিং অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ফ্রিল্যান্সররা ৪ শতাংশ ইনটেনসিভ পান। এছাড়া, দেশে উৎপাদিত ডেটা সংরক্ষণ দেশেই করতে পারলে বিলিয়ন ডলার ব্যবসার সুযোগ রয়েছে। কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার, আদালত, স্বাস্থ্যসহ স্পর্শকাতর ডেটা দেশের মাটিতে সংরক্ষণ করতে ক্লাউড স্টোরেজের ওপর গুরুত্ব দেন প্রতিমন্ত্রী।

এসময় বক্তারা জানান, দেশের ক্লাউড স্টোরেজ কোম্পানি থেকে বর্তমানে ৮টি ব্যাংক সেবা নিচ্ছে। এ ব্যবস্থা উন্নত করতে নিরাপত্তা, বিশ্বস্ততা, ব্যবসার ধারাবাহিকতা প্রয়োজন। অনলাইন জুয়ার মাধ্যমে শতকোটি টাকা পাচার রোধে বাংলাদেশ ব্যাংক ও টেলিকমিউনিকেশন নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষকে একযোগে কাজ করতে হবে বলেও জানান বক্তারা।