সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বিদেশি লবিস্টদের পরামর্শে ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভারতের বিপক্ষে জয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন এই পারফরম্যান্স আমার জন্য সত্যিই স্মরণীয়: মিরাজ নাইজেরিয়ায় মসজিদে বন্দুক হামলা, ইমামসহ নিহত ১২ এম্বাপ্পের জাদুতে কোয়ার্টার ফাইনালে ফ্রান্স মশক নিধন কার্যক্রমে কর্মীদের অবহেলা পেলে কঠোর ব্যবস্থা : মেয়র আতিক নেছারাবাদ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ভারতের বিপক্ষে জয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে রাসিক মেয়রের অভিনন্দন ১০ তারিখে বিএনপি পাকিস্তানিদের মতোই আত্মসমর্পণ করবে: তথ্যমন্ত্রী রাজশাহীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ মনি’র জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আজ অব্দি শাকিব খানের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিইনি: বুবলী রাজশাহীতে লোকাল গর্ভনমেন্ট কোভিড-১৯ রিসপন্স এন্ড রিকভারি প্রজেক্ট বাস্তবায়ন ভিত্তিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত রাসিক মেয়রের সাথে লোকাল গভর্নমেন্ট কোভিড-১৯ রিসপন্স এন্ড রিকভারি প্রজেক্টের প্রতিনিধিদের সৌজন্য সাক্ষাৎ মিরাজের বীরত্বে রুদ্ধশ্বাস জয় বাংলাদেশের শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে ফের স্বামীর মামলা

ফাউল খেললে জনগণ লাল কার্ড দেখাবে : বাবলা

ফাউল খেললে জনগণ লাল কার্ড দেখাবে : বাবলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় পার্টির সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বলেন , গত ২-৩ মাস ধরে রাজনৈতিক মঞ্চে শুনা যাচ্ছে খেলা হবে, খেলা হবে। কিন্তু কী নিয়ে খেলা হবে, কোন মাঠে খেলা হবে তা কিন্তু জনগণ জানে না। তবে কেউ যদি খেলতে গিয়ে ফাউল করে জনগণ কিন্তু তাদের লাল কার্ড দেখাতে ভুল করবে না।

শনিবার (১২ নভেম্বর) বিকালে নিজ নির্বাচনি এলাকা শ্যামপুর-কদমতলীর ৫২নং ওয়ার্ডে সহিংস রাজনীতির প্রতিবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদার গণতান্ত্রিক ,ইসলামী মূল্যবোধ ও অসাম্প্রদায়িক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে স্থানীয় জাতীয় পার্টি আয়োজিত এক শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বাবলা বলেন ,রাজনীতি হচ্ছে মানুষের কল্যাণের জন্য। কিন্তু দেশের বর্তমান রাজনীতিতে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। এক দল ক্ষমতায় থাকার জন্য শক্তি প্রদর্শন করে শোডাউনের রাজনীতি করছে,আর এক দল যে কোনও মূল্যে ক্ষমতায় আসার জন্য সহিংসতার পথ বেছে নিচ্ছে। কিন্তু জাতীয় পার্টি সহিংস রাজনীতির পরিবর্তে শান্তির রাজনীতিতে বিশ্বাসী। জাতীয় পার্টি শোডাউনের রাজনীতির চেয়ে গণমানুষের শক্তিকে প্রাধান্য দেয়। জাতীয় পার্টি বিশ্বাস করে নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতায় যাওয়ার সুযোগ নাই।

সাংবিধানিকভাবে যে পদ্ধতিতে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সেই পদ্ধতিতে নির্বাচনে যাবে জাতীয় পার্টি। কোনও অনির্বাচিত বা তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি জাতীয় পার্টি বিশ্বাস করে না। তাই যারা রাজনীতির সভা সমাবেশের নামে অনির্বাচিত সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি করছে , পক্ষান্তরে তারা দেশে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করার পায়তারা করছে। তবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন কোনও মানুষ তা মেনে নেবে না—বলেন তিনি।

কদমতলী থানা জাতীয় পার্টি’র সভাপতি শামসুজ্জামান কাজলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল , আমির উদ্দিন আহমেদ ডালু, যুগ্ম মহাসচিব ফখরুল আহসান শাহজাদা, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সুজন দে, শেখ মাসুক রহমান, কে. এম সোবহান ,আকতার হোসেন দেওয়ান, কাউসার আহমেদ , শাহনাজ পারভীন , বাবুল হোসেন মিন্টু ,হাসান আলী ,কফিল উদ্দিন কফু, ইসমাঈল হোসেন, জাহাঙ্গীর ও মো. আলমগীর প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন ডি কে সমির।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *