ঢাকা ১১:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ফরিদপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় কৃষক নিহত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:০৩:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩
  • / ৪৭১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// বিশেষ প্রতিনিধি, ফরিদপুর //
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ধানকাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় আলমগীর মাতুব্বর (৫৫) নামে এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছেন। রোববার সকালে উপজেলার আলগী ইউনিয়নের ছোট খারদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার আলগী ইউনিয়নের ছোট খারদিয়া  গ্রামে জলিল মাতুব্বর এবং তার শ্যালক কাওছার মাতুব্বরের সাথে জমিজমা নিয়ে  দীর্ঘদিন যাবৎ তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গতকাল শনিবার বিকেলে জলিল মাতুব্বের বরগা চাষী একই গ্রামের গেদা মোল্লার ছেলে আক্কাছ মোল্লা ধান কাটতে গেলে প্রতিপক্ষের কাওছার মাতুব্বরের লোকজন মিলে আক্কাছের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় আক্কাছ ভয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। আক্কাছকে ধরতে না পেরে প্রতিপক্ষের লোকজন একত্রিত হয়ে মৃত্যু লাল মিয়ার ছেলে আলমগীর মাতুব্বরের বাড়িতে হামলা করে তার ঘর ভাংচুর করে এবং তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে দিয়ে তার মাথায় আঘাত করলে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে তার স্বজনেরা আলমগীর মাতুব্বরকে উদ্ধার করে ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করার পরদিন আজ রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নুরুল হক মোল্লা নামে একজনকে আটক করেছেন পুলিশ।
ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) মোঃ হেলাল উদ্দিন ভুঁইয়া জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধান কাটাকে কেন্দ্রকরে সংঘর্ষে ভাঙ্গা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় একজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
বা/খ: এসআর।

নিউজটি শেয়ার করুন

ফরিদপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় কৃষক নিহত

আপডেট সময় : ১০:০৩:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩
// বিশেষ প্রতিনিধি, ফরিদপুর //
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ধানকাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় আলমগীর মাতুব্বর (৫৫) নামে এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছেন। রোববার সকালে উপজেলার আলগী ইউনিয়নের ছোট খারদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়,  উপজেলার আলগী ইউনিয়নের ছোট খারদিয়া  গ্রামে জলিল মাতুব্বর এবং তার শ্যালক কাওছার মাতুব্বরের সাথে জমিজমা নিয়ে  দীর্ঘদিন যাবৎ তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গতকাল শনিবার বিকেলে জলিল মাতুব্বের বরগা চাষী একই গ্রামের গেদা মোল্লার ছেলে আক্কাছ মোল্লা ধান কাটতে গেলে প্রতিপক্ষের কাওছার মাতুব্বরের লোকজন মিলে আক্কাছের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় আক্কাছ ভয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। আক্কাছকে ধরতে না পেরে প্রতিপক্ষের লোকজন একত্রিত হয়ে মৃত্যু লাল মিয়ার ছেলে আলমগীর মাতুব্বরের বাড়িতে হামলা করে তার ঘর ভাংচুর করে এবং তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে দিয়ে তার মাথায় আঘাত করলে তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে তার স্বজনেরা আলমগীর মাতুব্বরকে উদ্ধার করে ভাঙ্গা হাসপাতালে ভর্তি করার পরদিন আজ রোববার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নুরুল হক মোল্লা নামে একজনকে আটক করেছেন পুলিশ।
ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) মোঃ হেলাল উদ্দিন ভুঁইয়া জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধান কাটাকে কেন্দ্রকরে সংঘর্ষে ভাঙ্গা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় একজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
বা/খ: এসআর।