ঢাকা ০৫:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ফরিদপুরে গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় প্রধান আসামী গ্রেফতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:০১:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৬২১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// বিশেষ প্রতিনিধি //
স্ত্রীকে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে নিখোঁজের ১৪ দিন পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পলাতক প্রধান আসামী উজ্জল কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।
মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) ফরিদপুর র‍্যাব -১০ এর সম্মলেন কক্ষে কোম্পানী অধিনায়ক, লেঃ কমান্ডার কে এম, শাইখ আকতার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
র‍্যাব-১০ এর একটি দল গতকাল সোমবার রাতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযোগের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্রধান আসামী উজ্জল শেখ কে ফরিদপুর সদর উপজেলার রাজবাড়ি রাস্তার মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করে।
র‍্যাবের এই কর্মকর্তা জানান, গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে ও পারিবারিক কলহের কারণে ৩ আগস্ট রাতে রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার তেতুলিয়ায় গৃহবধু মিনু বেগম (২৭) কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে রাখে। স্ত্রী নিখোজের ঘটনা প্রচার করে গৃহবধুর স্বামী উজ্জল ও তার পরিবারের লোকজন। গত ১৯ আগস্ট গৃহবধুর স্বামীর বাড়ী থেকে পচা দুগন্ধ বের হলে পুলিশ কে সংবাদ দেয় এলাকাবাসী। পরে অনেক খোজাখুজির পর বাড়ীর সেফটি ট্যাংকি থেকে নিখোজ মিনু বেগমের পচা-গলা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় নিহতের মা সোনা বানু বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের আসামী উজ্জল তার স্ত্রী কে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে রাখার কথা স্বীকার করেছে। এই ঘটনায় নিহতের শাশুড়ি জহুরা বেগম পুলিশ হেফাজতে হত্যা ও গুমের ঘটনা স্বীকার করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ফরিদপুরে গৃহবধুর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় প্রধান আসামী গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৩:০১:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট ২০২৩
// বিশেষ প্রতিনিধি //
স্ত্রীকে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে নিখোঁজের ১৪ দিন পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পলাতক প্রধান আসামী উজ্জল কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।
মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) ফরিদপুর র‍্যাব -১০ এর সম্মলেন কক্ষে কোম্পানী অধিনায়ক, লেঃ কমান্ডার কে এম, শাইখ আকতার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
র‍্যাব-১০ এর একটি দল গতকাল সোমবার রাতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অভিযোগের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্রধান আসামী উজ্জল শেখ কে ফরিদপুর সদর উপজেলার রাজবাড়ি রাস্তার মোড় থেকে তাকে গ্রেফতার করে।
র‍্যাবের এই কর্মকর্তা জানান, গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে ও পারিবারিক কলহের কারণে ৩ আগস্ট রাতে রাজবাড়ি জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার তেতুলিয়ায় গৃহবধু মিনু বেগম (২৭) কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে রাখে। স্ত্রী নিখোজের ঘটনা প্রচার করে গৃহবধুর স্বামী উজ্জল ও তার পরিবারের লোকজন। গত ১৯ আগস্ট গৃহবধুর স্বামীর বাড়ী থেকে পচা দুগন্ধ বের হলে পুলিশ কে সংবাদ দেয় এলাকাবাসী। পরে অনেক খোজাখুজির পর বাড়ীর সেফটি ট্যাংকি থেকে নিখোজ মিনু বেগমের পচা-গলা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় নিহতের মা সোনা বানু বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের আসামী উজ্জল তার স্ত্রী কে হত্যা করে লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে রাখার কথা স্বীকার করেছে। এই ঘটনায় নিহতের শাশুড়ি জহুরা বেগম পুলিশ হেফাজতে হত্যা ও গুমের ঘটনা স্বীকার করেছে।