ঢাকা ০৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

ফরিদপুরের  ভাঙ্গায় ১৮’শ পিছ ইয়াবাসহ   আটক ৩

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪৪:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ৪৬০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
বিশেষ  প্রতিনিধি :
ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় ১৮’শ ইয়াবা ও এক দম্পতিসহ তিনজনকে আটক করেছে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।
বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি)  উপজেলার হোগলাডাঙ্গী সদরদী এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটককৃতরা হলেন- কক্সবাজার জেলার রামু থানার পূর্ব নোনাছড়ি এলাকার বাদশা মেয়ার ছেলে ওমর ফারুক (২৫), তার স্ত্রী মরিয়ম আক্তার (২৪) ও তার সহযোগী উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের ডাঙ্গারপাড় গ্রামের নান্নু শিকদারের ছেলে হাবিব শিকদার (২৯)।
ফরিদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামিম হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ফরিদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল ও ভাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ওই এলাকার একটি বাড়ির ভাড়াটিয়া হাবিবের ঘর তল্লাাশি করে ১৮’শ পিছ ইয়াবা জব্দ করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হাবিব শেখ জানান, কক্সবাজার থেকে বিশেষ পদ্ধতিতে প্যাক করা ইয়াবা গিলে ওই দম্পতি তাদের পেটের মধ্যে বহন করে। পরে মলত্যাগের মাধ্যমে সেই ইয়াবা বের করা হয়। এরপর পরিষ্কার করে পুনরায় প্যাক করে সেই মাদক ভাঙ্গায় বিভিন্ন স্থানে পৌঁছে দেয়া হয়।
ওই কর্মকর্তা আরও জানান, গত ১৪ জানুয়ারি ভাঙ্গা টোল প্লাাজা এলাকায় একই কৌশলে মাদকের বড় একটি চালান নেওয়ার সময় এক যুবক গ্রেফতার হয়। একই সিন্ডিকেটটি দীর্ঘদীন যাবৎ বিভিন্ন কৌশলে মাদক পাচার ও বিক্রি করে আসছিল। মাদক ব্যবসায়ীরা যত কৌশল অবলম্বন করুক, তাদের আইনের আওতায় আনতে তারা তৎপর রয়েছে। তাদের কৌশলে অবশেষে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের জালে আটকা পড়ে।
মাদক পাচারকারীদের ধরতে সব সময়  সচেষ্ট রয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।
বা/খ : এসআর।

নিউজটি শেয়ার করুন

ফরিদপুরের  ভাঙ্গায় ১৮’শ পিছ ইয়াবাসহ   আটক ৩

আপডেট সময় : ১১:৪৪:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩
বিশেষ  প্রতিনিধি :
ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় ১৮’শ ইয়াবা ও এক দম্পতিসহ তিনজনকে আটক করেছে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।
বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি)  উপজেলার হোগলাডাঙ্গী সদরদী এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটককৃতরা হলেন- কক্সবাজার জেলার রামু থানার পূর্ব নোনাছড়ি এলাকার বাদশা মেয়ার ছেলে ওমর ফারুক (২৫), তার স্ত্রী মরিয়ম আক্তার (২৪) ও তার সহযোগী উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের ডাঙ্গারপাড় গ্রামের নান্নু শিকদারের ছেলে হাবিব শিকদার (২৯)।
ফরিদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামিম হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ফরিদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল ও ভাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় ওই এলাকার একটি বাড়ির ভাড়াটিয়া হাবিবের ঘর তল্লাাশি করে ১৮’শ পিছ ইয়াবা জব্দ করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হাবিব শেখ জানান, কক্সবাজার থেকে বিশেষ পদ্ধতিতে প্যাক করা ইয়াবা গিলে ওই দম্পতি তাদের পেটের মধ্যে বহন করে। পরে মলত্যাগের মাধ্যমে সেই ইয়াবা বের করা হয়। এরপর পরিষ্কার করে পুনরায় প্যাক করে সেই মাদক ভাঙ্গায় বিভিন্ন স্থানে পৌঁছে দেয়া হয়।
ওই কর্মকর্তা আরও জানান, গত ১৪ জানুয়ারি ভাঙ্গা টোল প্লাাজা এলাকায় একই কৌশলে মাদকের বড় একটি চালান নেওয়ার সময় এক যুবক গ্রেফতার হয়। একই সিন্ডিকেটটি দীর্ঘদীন যাবৎ বিভিন্ন কৌশলে মাদক পাচার ও বিক্রি করে আসছিল। মাদক ব্যবসায়ীরা যত কৌশল অবলম্বন করুক, তাদের আইনের আওতায় আনতে তারা তৎপর রয়েছে। তাদের কৌশলে অবশেষে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের জালে আটকা পড়ে।
মাদক পাচারকারীদের ধরতে সব সময়  সচেষ্ট রয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।
বা/খ : এসআর।