ঢাকা ০৪:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গীদের মরদেহ উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:২৭:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪
  • / ৪৬৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিসহ অন্যান্যদের মরদেহ উদ্ধার করে তাবরিজ এলাকায় নিয়ে যাচ্ছে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইরানের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান। খবর তাসনিম নিউজ

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান পীর হোসেইন কৌলিভান্দ সোমবার (২০ মে) সকালে বলেন, হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার পর খারাপ আবহাওয়া এবং বৃষ্টির মধ্যেই রাতে এর সন্ধান করা হয়।

তিনি আরও বলেন, হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত এলাকায় উদ্ধারকারী দল মোতায়েন করা হয়েছে এবং ইরানের ড্রোন দিয়ে ওই এলাকাটি খুঁজে বের করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত সবার মরদেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে তাবরিজ কবরস্থানে নেয়া হচ্ছে।

গতকাল রোববার আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় দুই দেশের যৌথভাবে নির্মিত একটি বাঁধ উদ্বোধন করতে যান ইব্রাহিম রাইসি। সেখানে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভও ছিলেন।

ওই বাঁধ উদ্বোধন শেষে তিনটি হেলিকপ্টারের বহর নিয়ে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের রাজধানী তাবরিজে ফিরছিলেন ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গে থাকা অন্য কর্মকর্তারা। এক পর্যায়ে রাইসিকে বহন করা হেলিকপ্টারটি পূর্ব আজারবাইজানের জোলফা এলাকার কাছে দুর্গম পাহাড়ে বিধ্বস্ত হয়। অন্য দুটি হেলিকপ্টার নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছায়।

এ দুর্ঘটনায় ইব্রাহিম রাইসি সহ ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান, পূর্ব আজারবাইজানের গভর্নর মালেক রহমাতি, পূর্ব আজারবাইজানে ইরানের সর্বোচ্চ নেতার প্রতিনিধি মোহাম্মদ আলী আলে-হাশেম, প্রেসিডেন্টে প্রধান নিরাপত্তারক্ষী মেহেদী মৌসাভি এবং হেলিকপ্টারের পাইলট ও কো-পাইলটসহ ক্রুরা নিহত হয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গীদের মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৩:২৭:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিসহ অন্যান্যদের মরদেহ উদ্ধার করে তাবরিজ এলাকায় নিয়ে যাচ্ছে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইরানের রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান। খবর তাসনিম নিউজ

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান পীর হোসেইন কৌলিভান্দ সোমবার (২০ মে) সকালে বলেন, হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার পর খারাপ আবহাওয়া এবং বৃষ্টির মধ্যেই রাতে এর সন্ধান করা হয়।

তিনি আরও বলেন, হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত এলাকায় উদ্ধারকারী দল মোতায়েন করা হয়েছে এবং ইরানের ড্রোন দিয়ে ওই এলাকাটি খুঁজে বের করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় নিহত সবার মরদেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে তাবরিজ কবরস্থানে নেয়া হচ্ছে।

গতকাল রোববার আজারবাইজানের সীমান্তবর্তী এলাকায় দুই দেশের যৌথভাবে নির্মিত একটি বাঁধ উদ্বোধন করতে যান ইব্রাহিম রাইসি। সেখানে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভও ছিলেন।

ওই বাঁধ উদ্বোধন শেষে তিনটি হেলিকপ্টারের বহর নিয়ে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের রাজধানী তাবরিজে ফিরছিলেন ইব্রাহিম রাইসি ও তার সঙ্গে থাকা অন্য কর্মকর্তারা। এক পর্যায়ে রাইসিকে বহন করা হেলিকপ্টারটি পূর্ব আজারবাইজানের জোলফা এলাকার কাছে দুর্গম পাহাড়ে বিধ্বস্ত হয়। অন্য দুটি হেলিকপ্টার নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছায়।

এ দুর্ঘটনায় ইব্রাহিম রাইসি সহ ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান, পূর্ব আজারবাইজানের গভর্নর মালেক রহমাতি, পূর্ব আজারবাইজানে ইরানের সর্বোচ্চ নেতার প্রতিনিধি মোহাম্মদ আলী আলে-হাশেম, প্রেসিডেন্টে প্রধান নিরাপত্তারক্ষী মেহেদী মৌসাভি এবং হেলিকপ্টারের পাইলট ও কো-পাইলটসহ ক্রুরা নিহত হয়েছেন।