ঢাকা ০৪:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প

প্রথম ইউনিটে জ্বালানি লোডিং-রিলোডিং করতে বিশেষ ক্রেন স্থাপন সম্পন্ন

সৌরভ কুমার দেবনাথ
  • আপডেট সময় : ১১:৩৯:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫০৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
// ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি //
পাবনা ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের  (আরএনপিপি) প্রথম ইউনিয়নে জ্বালানি ইউরেনিয়াম লোডিং ও রিলোডিংয়ের জন্য ২২৫ মেট্রিক টন ওজনের বিশেষ ক্রেন স্থাপন সম্পন্ন করা হয়েছে।
আজ (শনিবার) দুপুরে রাশিয়ার রাষ্ট্রিয় পারমাণবিক প্রকল্প রসাটমের বাংলাদেশী জনসংযোগ বিভাগ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে আরএনপিপি  প্রকল্পের প্রথম ইউনিটে চলতি মাসের ১৬ আগস্ট ভূ-পৃষ্ট থেকে সাড়ে ৪৭ মিটার উচ্চতায় এই বিশেষ ট্রেসেল ক্রেনের স্থাপন কাজ সম্পন্ন করা হয়।
রাশিয়ার রাষ্ট্রিয় পারমাণবিক প্রকল্প রসাটমের বাংলাদেশী জনসংযোগ বিভাগ ও প্রকল্পে মূল নির্মাণ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এতমস্ত্রয়এক্সপোর্ট (এএসই) সূত্র জানায়, ২২৫ মেট্রিক টন ওহনের এই ট্রেসেল ক্রেনটি রাশিয়ায় তৈরি করা হয়। এরপর নৌপথে এটিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প সাইটে আনা হয়। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশে আনা এ ক্রেনের অংশগুলো প্রকল্প সাইটে সংযোজনের কাজ সম্পন্ন করা হয়। এরপর এটিকে রিয়্যাক্টরের প্রথম ইউনিটের সাড়ে ৪৭ মিটার উচ্চতা স্থাপন করা হয়। বিশালাকার এই ক্রেনটির উত্তোলন ক্ষমতা ৩৬০টন।
এ বিষয়ে প্রকল্পে মূল নির্মাণ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এতমস্ত্রয়এক্সপোর্টের (এএসই) ভাইস-প্রেসিডেন্ট এবং রূপপুর এনপিপি নির্মাণ কাজের পরিচালক আলেক্সি দেইরি জানান, “বিদ্যুৎকেন্দ্রটি চলাকালীন অত্যন্ত ভারী যন্ত্রপাতি এবং জ্বালানীর লোডিং- রিলোডিং এর জন্য এই ট্রেসেল ক্রেনটি ব্যবহৃত হবে”।
এতমস্ত্রয়এক্সপোর্ট (এএসই) এর তথ্য মতে, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের জেনারেল ডিজাইনার ও কন্টাক্টর রাশিয়ার রসাটম কর্পোরেশনের প্রকৌশল শাখা। প্রকল্পটিতে দু’টি ইউনিট স্থাপিত হবে। প্রতিটির উৎপাদন ক্ষমতা ১২শ মেগাওয়াট। প্রতিটি ইউনিটে থাকছে ৩+ প্রজন্মের রুশ ভিভিইআর রিয়্যাক্টর, যেগুলো সকল আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা চাহিদা পূরণে সক্ষম। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে রাশিয়া থেকে প্রথম ইউনিটের জন্য ফ্রেশ পারমাণবিক জ্বালানী বাংলাদেশে এসে পৌছুবে বলে আশা করছে রাশিয়ার এই প্রতিষ্ঠানটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প

প্রথম ইউনিটে জ্বালানি লোডিং-রিলোডিং করতে বিশেষ ক্রেন স্থাপন সম্পন্ন

আপডেট সময় : ১১:৩৯:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩
// ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি //
পাবনা ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের  (আরএনপিপি) প্রথম ইউনিয়নে জ্বালানি ইউরেনিয়াম লোডিং ও রিলোডিংয়ের জন্য ২২৫ মেট্রিক টন ওজনের বিশেষ ক্রেন স্থাপন সম্পন্ন করা হয়েছে।
আজ (শনিবার) দুপুরে রাশিয়ার রাষ্ট্রিয় পারমাণবিক প্রকল্প রসাটমের বাংলাদেশী জনসংযোগ বিভাগ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে আরএনপিপি  প্রকল্পের প্রথম ইউনিটে চলতি মাসের ১৬ আগস্ট ভূ-পৃষ্ট থেকে সাড়ে ৪৭ মিটার উচ্চতায় এই বিশেষ ট্রেসেল ক্রেনের স্থাপন কাজ সম্পন্ন করা হয়।
রাশিয়ার রাষ্ট্রিয় পারমাণবিক প্রকল্প রসাটমের বাংলাদেশী জনসংযোগ বিভাগ ও প্রকল্পে মূল নির্মাণ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এতমস্ত্রয়এক্সপোর্ট (এএসই) সূত্র জানায়, ২২৫ মেট্রিক টন ওহনের এই ট্রেসেল ক্রেনটি রাশিয়ায় তৈরি করা হয়। এরপর নৌপথে এটিকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প সাইটে আনা হয়। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশে আনা এ ক্রেনের অংশগুলো প্রকল্প সাইটে সংযোজনের কাজ সম্পন্ন করা হয়। এরপর এটিকে রিয়্যাক্টরের প্রথম ইউনিটের সাড়ে ৪৭ মিটার উচ্চতা স্থাপন করা হয়। বিশালাকার এই ক্রেনটির উত্তোলন ক্ষমতা ৩৬০টন।
এ বিষয়ে প্রকল্পে মূল নির্মাণ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এতমস্ত্রয়এক্সপোর্টের (এএসই) ভাইস-প্রেসিডেন্ট এবং রূপপুর এনপিপি নির্মাণ কাজের পরিচালক আলেক্সি দেইরি জানান, “বিদ্যুৎকেন্দ্রটি চলাকালীন অত্যন্ত ভারী যন্ত্রপাতি এবং জ্বালানীর লোডিং- রিলোডিং এর জন্য এই ট্রেসেল ক্রেনটি ব্যবহৃত হবে”।
এতমস্ত্রয়এক্সপোর্ট (এএসই) এর তথ্য মতে, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের জেনারেল ডিজাইনার ও কন্টাক্টর রাশিয়ার রসাটম কর্পোরেশনের প্রকৌশল শাখা। প্রকল্পটিতে দু’টি ইউনিট স্থাপিত হবে। প্রতিটির উৎপাদন ক্ষমতা ১২শ মেগাওয়াট। প্রতিটি ইউনিটে থাকছে ৩+ প্রজন্মের রুশ ভিভিইআর রিয়্যাক্টর, যেগুলো সকল আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা চাহিদা পূরণে সক্ষম। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে রাশিয়া থেকে প্রথম ইউনিটের জন্য ফ্রেশ পারমাণবিক জ্বালানী বাংলাদেশে এসে পৌছুবে বলে আশা করছে রাশিয়ার এই প্রতিষ্ঠানটি।