ঢাকা ০৭:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পোকার আক্রমণে বিপাকে মেহেরপুরের পাটচাষিরা

মেহেরপুর সংবাদদাতা
  • আপডেট সময় : ১২:৩৫:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৫১১ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মেহেরপুরে বৈরী আবহাওয়া ও পোকার আক্রমণে পাটের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। কীটনাশক প্রয়োগেও মিলছে না প্রতিকার। এতে আশানুরূপ আঁশ পাওয়া নিয়ে শংকায় রয়েছে চাষীরা। এদিকে পাটচাষীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

মেহেরপুরের মাঠজুড়ে এখন সোনালী আঁশ পাটের এমন সমারহ। তবে, এবার কাঙ্খিত আঁশ পাওয়া নিয়ে শংকায় চাষীরা। সময়মত বৃষ্টির অভাব আর অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারণে প্রথমেই ক্ষতিগ্রস্ত হয় পাটের জমি। এখন নতুন বিপদ হয়ে দেখা দিয়েছে পোকা আক্রমণ। কীটনাশক প্রয়োগসহ নানা উপায় অবলম্বন করেও মিলছেনা প্রতিকার।

অতিরিক্ত সেচ, সার ও কীটনাশক প্রয়োগের কারণে পাট আবাদের খরচ বেড়েছে কয়েক গুণ। কিন্তু পোকার আক্রমণে এ বছর পাটের উৎপাদন হতে পারে, বলে আশংকা চাষীদের।

কৃষি বিভাগ বলছে পোকার আক্রমন থেকে পাটক্ষেত বাঁচাতে কৃষকদের অনুমোদিত কীটনাশক প্রয়োগের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেবে জেলায় এ বছর ২২ হাজার হেক্টর জমিতে পাট চাষ হয়েছে। যেখানে ৩ লাখ ৮ হাজার বেল পাট উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

পোকার আক্রমণে বিপাকে মেহেরপুরের পাটচাষিরা

আপডেট সময় : ১২:৩৫:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগাস্ট ২০২৩

মেহেরপুরে বৈরী আবহাওয়া ও পোকার আক্রমণে পাটের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। কীটনাশক প্রয়োগেও মিলছে না প্রতিকার। এতে আশানুরূপ আঁশ পাওয়া নিয়ে শংকায় রয়েছে চাষীরা। এদিকে পাটচাষীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি বিভাগ।

মেহেরপুরের মাঠজুড়ে এখন সোনালী আঁশ পাটের এমন সমারহ। তবে, এবার কাঙ্খিত আঁশ পাওয়া নিয়ে শংকায় চাষীরা। সময়মত বৃষ্টির অভাব আর অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারণে প্রথমেই ক্ষতিগ্রস্ত হয় পাটের জমি। এখন নতুন বিপদ হয়ে দেখা দিয়েছে পোকা আক্রমণ। কীটনাশক প্রয়োগসহ নানা উপায় অবলম্বন করেও মিলছেনা প্রতিকার।

অতিরিক্ত সেচ, সার ও কীটনাশক প্রয়োগের কারণে পাট আবাদের খরচ বেড়েছে কয়েক গুণ। কিন্তু পোকার আক্রমণে এ বছর পাটের উৎপাদন হতে পারে, বলে আশংকা চাষীদের।

কৃষি বিভাগ বলছে পোকার আক্রমন থেকে পাটক্ষেত বাঁচাতে কৃষকদের অনুমোদিত কীটনাশক প্রয়োগের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেবে জেলায় এ বছর ২২ হাজার হেক্টর জমিতে পাট চাষ হয়েছে। যেখানে ৩ লাখ ৮ হাজার বেল পাট উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে।