ঢাকা ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পাহাড়ে মেতে উঠেছে বিজু উৎসব

আরাফাত হোসেন বেলাল, লংগদু (রাঙামাটি) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৭:২৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৫৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
রাঙামাটির লংগদুতে কাপ্তাই হ্রদের পানিতে ফুল ভাসানোর মধ্যদিয়ে শুরু হল পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর বিজু উৎসব।
শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় নানা বয়সের নারী-পুরুষ ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিধান করে কলা পাতায় ফুল সাজিয়ে পুরোনো বছরের সকল দুঃখ, কষ্ট ভূলে নতুন বছরে যাতে সুখ শান্তিতে কাটানো যায় সে উদ্দেশ্যে হ্রদের পানিতে ফুল ভাসিয়ে উৎসব করে।
এদিন উৎসবকে কেন্দ্র করে সকালে উপজেলার তিনটিলা থেকে র‍্যালী শুরু করে লংগদু বিলে নদীর পাড়ে এসে র‍্যালি শেষ হয়।
চাকমারা বিজু, ত্রিপুরা বৈসুক, মারমারা সংগ্রাই, তঞ্চঙ্গ্যারা বিষু, অহমিয়ারা বিহু এভাবে তারা ভিন্ন ভিন্ন নামে এই উৎসব পালন করে। উৎসবের প্রথম দিনে চাকমা, ত্রিপুরা ও মারমারা বন থেকে ফুল আর নিমপাতা সংগ্রহ করে এবং পবিত্র এই ফুল ভাসিয়ে দেয় পানিতে, তাই একে বলা হয় ফুল বিজু। এ সময় তারা বিশ্ব শান্তির কামনায় গঙ্গা দেবী’র নিকট প্রার্থনা করেন।
আগামীকাল বিজু উৎসবের দ্বিতীয় দিনে মূল বিজু। এই দিনে পাহাড়ীদের ঘরে ঘরে ঐতিহ্যবাহী খাবার ‘পাজন’সহ বিভিন্ন ধরণের খাবার অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয়। তৃতীয় দিন গজ্যাপজ্যা বিজু বা নববর্ষ উৎসব। ওই দিন বিশ্ব শান্তির কামনায় বিহারে গিয়ে প্রার্থনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, লংগদু জোনের জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল হিমমেল মিয়া পিএসসি, সহ বৌদ্ধধর্মীয় নেতৃবৃন্দ।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

পাহাড়ে মেতে উঠেছে বিজু উৎসব

আপডেট সময় : ০৯:৪৭:২৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪
রাঙামাটির লংগদুতে কাপ্তাই হ্রদের পানিতে ফুল ভাসানোর মধ্যদিয়ে শুরু হল পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর বিজু উৎসব।
শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় নানা বয়সের নারী-পুরুষ ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরিধান করে কলা পাতায় ফুল সাজিয়ে পুরোনো বছরের সকল দুঃখ, কষ্ট ভূলে নতুন বছরে যাতে সুখ শান্তিতে কাটানো যায় সে উদ্দেশ্যে হ্রদের পানিতে ফুল ভাসিয়ে উৎসব করে।
এদিন উৎসবকে কেন্দ্র করে সকালে উপজেলার তিনটিলা থেকে র‍্যালী শুরু করে লংগদু বিলে নদীর পাড়ে এসে র‍্যালি শেষ হয়।
চাকমারা বিজু, ত্রিপুরা বৈসুক, মারমারা সংগ্রাই, তঞ্চঙ্গ্যারা বিষু, অহমিয়ারা বিহু এভাবে তারা ভিন্ন ভিন্ন নামে এই উৎসব পালন করে। উৎসবের প্রথম দিনে চাকমা, ত্রিপুরা ও মারমারা বন থেকে ফুল আর নিমপাতা সংগ্রহ করে এবং পবিত্র এই ফুল ভাসিয়ে দেয় পানিতে, তাই একে বলা হয় ফুল বিজু। এ সময় তারা বিশ্ব শান্তির কামনায় গঙ্গা দেবী’র নিকট প্রার্থনা করেন।
আগামীকাল বিজু উৎসবের দ্বিতীয় দিনে মূল বিজু। এই দিনে পাহাড়ীদের ঘরে ঘরে ঐতিহ্যবাহী খাবার ‘পাজন’সহ বিভিন্ন ধরণের খাবার অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয়। তৃতীয় দিন গজ্যাপজ্যা বিজু বা নববর্ষ উৎসব। ওই দিন বিশ্ব শান্তির কামনায় বিহারে গিয়ে প্রার্থনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, লংগদু জোনের জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল হিমমেল মিয়া পিএসসি, সহ বৌদ্ধধর্মীয় নেতৃবৃন্দ।
বাখ//আর