সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি পরিবারের মাঝে ৮ শ’ ভেড়া বিতরণ শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে রোমাঞ্চকর জয় ঘানার গুলিস্তানে রেডজোনে দোকান বসানোয় পাঁচজনের জেল জামানত নয়, কৃষিঋণে কৃষকের এনআইডি যথেষ্ট: কৃষিসচিব সমকাল সাংবাদিক শিমুলের ছেলে সাদিক ভবিষ্যতে প্রকৌশলী হতে চায় কৃষকের কোমরে দড়ি, যাদের কাছে হাজার কোটি টাকা তাদের কিছু হয় না : আপিল বিভাগ ‘লগে আছি ডটকম’-এর এমডি গ্রেফতার! ৩২ বছর আগের নায়িকাকে নিয়ে সালমান ফিরছেন রিমেক নিয়ে আমার আপত্তি নেই : ইয়োহানি জার্সিতে পা লাগায় মেসিকে মেক্সিকান বক্সারের হুমকি! একসঙ্গে জিপিএ-৫ পেলেন বাবা-ছেলে! কোটি কোটি টাকা নিয়ে যাচ্ছে, আমরা কি চেয়ে চেয়ে দেখব : হাইকোর্ট প্রেমিকার ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চাঁদা দাবিতে আটক ৩ আনন্দে চোখ ভিজে উঠলো: তানিয়া মার্কিন বিচার বিভাগ দুর্নীতিগ্রস্ত: ট্রাম্প

পায়রা সমুদ্র বন্দর কানেক্টিং রোড প্রজেক্টের কাজে বাঁধা, হুমকীর অভিযোগ

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :

কলাপাড়ায় পায়রা বন্দর কানেক্টিং রোড প্রজেক্টের কাজে বাঁধা প্রদান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের এক্সলেটর অপারেটরকে হুমকী প্রদানের ঘটনায় মো: পনির মোল্লা (৪৫) সহ অজ্ঞাত ৫/৭ জনের নামে কলাপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঠিকাদারী

প্রতিষ্ঠান স্পেকট্রা ইঞ্জিনিয়ার্স লি:’র পায়রা বন্দর কানেক্টিং রোড প্রজেক্টের কাজ বাস্তবায়নে নিয়োজিত ভাই ভাই এন্টার প্রাইজের ম্যানেজার শিবু চন্দ্র দে এ অভিযোগ দায়ের করেন।
সূত্র জানায়, দেশের তৃতীয় সমুদ্র বন্দর পায়রার কানেক্টিং রোড প্রজেক্টের কাজ বাস্তবায়নে নিয়োজিত ভাই ভাই এন্টার প্রাইজের এক্সলেটর অপারেটর
শাহিনকে স্থানীয় পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মাঠ কর্মকর্তা পনির সহ অজ্ঞাত ৫/৭ জন সিলেকশন বালু আনলোডের কাজে বাঁধা প্রদান করে ও অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে। এবং হুমকী দিয়ে বলে যে, বন্দরে কাজ করতে হলে আমাদের সাথে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে। অন্যথায় কাজ করা যাবেনা।

এ অভিযোগ অস্বীকার করে পনির মোল্লা বলেন, তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িত নন। তাকে থানায় ডাকা হয়েছিল। সেখানেও তিনি এ কথা বলেছেন।

কলাপাড়া থানার ওসি মো: জসিম অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি আমি নিজে তদন্ত করছি। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পেলে আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

বা/খ: এস আর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *