ঢাকা ০৫:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পাবনায় হত্যা মামলায় ২১ জনের যাবজ্জীবন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২
  • / ৪৫০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শফিউল আযম, বিশেষ প্রতিবেদক  :
পাবনা সদর উপজেলার চর তারাপুরে সালাম নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে ২১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক ইসরাত জাহান মুন্নী এই রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছেন, সদর উপজেলার ভাদুরীডাঙ্গী গ্রামের সোবাহান মোল্লার ছেলে শাহজাহান মোল্লা, আব্দুল বাছেদ শেখের ছেলে মিনহাজ, শাকের মোল্লার ৩ ছেলে নবী শেখ, সুলতান মাহমুদ পক্ষী ও মোক্তার, ছোবা শেখের ছেলে বাছেদ শেখ, ইনাই খাঁর ছেলে আইয়ুব খাঁ, আমির মোল্লার ছেলে আসলাম, গফুর মোল্লার ছেলে লতিফ, রুস্তম মোল্লার ছেলে ছোবাই, বাহাই প্রামানিকের ছেলে কালাম, আকুল মোল্লার ছেলে মহির,হাচেন মোল্লার ২ ছেলে মোহাম্মদ আলী ও রেজাউল মোল্লা, গফুর মোল্লার ছেলে বাবু, সুজানগর উপজেলার চর ভবানীপুর গ্রামের করিম মোল্লার ২ ছেলে মোকছেদ ও বারেক , বশির মোল্লার ছেলে করিম মোল্লা, ভবানীপুর কাচারি মাঠ সংলগ্ন আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে খোকন, মানিকদিয়ার হবিবরের ছেলে রফিক এবং সদর উপজেলার কোলচুরি গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে বাবলু। সাজাপ্রাপ্ত ২১ জনের মধ্যে বারেক, মিনহাজ, বাবলু, বাছেদ শেখ, লতিফ মোল্লা, ছোবাই পলাতক রয়েছেন। আদালতে উপস্থিত ১৫ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ৭ নবেম্বর সালাম কৃষিজমিতে কাজ করার সময় পূর্ব শক্রতার জেরে আসামিরা তাকে ঘিরে ধরে পেছন থেকে গুলি করে। এ সময় সালাম মাটিতে পড়ে গেলে তাকে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ২৪ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন তার ভাই জব্বার।

আদালতে আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সনৎ কুমার সরকার এবং রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (অতিরিক্ত পিপি) অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী।অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী বলেন, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে। সাক্ষ্য ও তদন্তে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদের উপযুক্ত শাস্তি দিয়েছেন।

বা/খ: এসআর

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পাবনায় হত্যা মামলায় ২১ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট সময় : ০৭:২২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২

শফিউল আযম, বিশেষ প্রতিবেদক  :
পাবনা সদর উপজেলার চর তারাপুরে সালাম নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে ২১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক ইসরাত জাহান মুন্নী এই রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছেন, সদর উপজেলার ভাদুরীডাঙ্গী গ্রামের সোবাহান মোল্লার ছেলে শাহজাহান মোল্লা, আব্দুল বাছেদ শেখের ছেলে মিনহাজ, শাকের মোল্লার ৩ ছেলে নবী শেখ, সুলতান মাহমুদ পক্ষী ও মোক্তার, ছোবা শেখের ছেলে বাছেদ শেখ, ইনাই খাঁর ছেলে আইয়ুব খাঁ, আমির মোল্লার ছেলে আসলাম, গফুর মোল্লার ছেলে লতিফ, রুস্তম মোল্লার ছেলে ছোবাই, বাহাই প্রামানিকের ছেলে কালাম, আকুল মোল্লার ছেলে মহির,হাচেন মোল্লার ২ ছেলে মোহাম্মদ আলী ও রেজাউল মোল্লা, গফুর মোল্লার ছেলে বাবু, সুজানগর উপজেলার চর ভবানীপুর গ্রামের করিম মোল্লার ২ ছেলে মোকছেদ ও বারেক , বশির মোল্লার ছেলে করিম মোল্লা, ভবানীপুর কাচারি মাঠ সংলগ্ন আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে খোকন, মানিকদিয়ার হবিবরের ছেলে রফিক এবং সদর উপজেলার কোলচুরি গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে বাবলু। সাজাপ্রাপ্ত ২১ জনের মধ্যে বারেক, মিনহাজ, বাবলু, বাছেদ শেখ, লতিফ মোল্লা, ছোবাই পলাতক রয়েছেন। আদালতে উপস্থিত ১৫ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ৭ নবেম্বর সালাম কৃষিজমিতে কাজ করার সময় পূর্ব শক্রতার জেরে আসামিরা তাকে ঘিরে ধরে পেছন থেকে গুলি করে। এ সময় সালাম মাটিতে পড়ে গেলে তাকে গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ২৪ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন তার ভাই জব্বার।

আদালতে আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সনৎ কুমার সরকার এবং রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (অতিরিক্ত পিপি) অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী।অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী বলেন, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে। সাক্ষ্য ও তদন্তে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদের উপযুক্ত শাস্তি দিয়েছেন।

বা/খ: এসআর