ঢাকা ০১:২৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পাকুন্দিয়ায় সার্ভেয়ার মালেক হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৭:২১:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৭৩৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

র‌্যাবের যৌথ অভিযানে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সার্ভেয়ার আবদুল মালেক হত্যা মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া আসামির নাম আজিজুল হক (২৮)। আজিজুল হক উপজেলার পূর্ব কুমারপুর গ্রামের আইজ উদ্দিনের ছেলে।

বুধবার গভীর রাতে র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ও র‌্যাব-১১ নরসিংদীর যৌথ অভিযানে পাশ্ববর্তী নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলা সদর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাকুন্দিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়। পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আছাদুজ্জামান টিটু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার গভীর রাতে মনোহরদী উপজেলা সদর এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, আজিজুল হকদের সঙ্গে আবদুল মালেকের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিল। ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে বিরোধ মিমাংসার জন্য এলাকায় একটি বৈঠক বসে। বৈঠকে কোন আপোষ মিমাংসা হয়নি। পরে বাড়িতে ফেরার পথে আবদুল মালেককে কুপিয়ে হত্যা করে আজিজুল হক ও তার সহযোগিরা। ঘটনার একদিন পর নিহতের ছেলে রফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে পাকুন্দিয়া থানায় আজিজুল হকসহ ১৪জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫-৬জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় সর্বমোট ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

পাকুন্দিয়ায় সার্ভেয়ার মালেক হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০৭:২১:৫৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

র‌্যাবের যৌথ অভিযানে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় সার্ভেয়ার আবদুল মালেক হত্যা মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া আসামির নাম আজিজুল হক (২৮)। আজিজুল হক উপজেলার পূর্ব কুমারপুর গ্রামের আইজ উদ্দিনের ছেলে।

বুধবার গভীর রাতে র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জ ও র‌্যাব-১১ নরসিংদীর যৌথ অভিযানে পাশ্ববর্তী নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলা সদর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাকুন্দিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়। পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আছাদুজ্জামান টিটু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার গভীর রাতে মনোহরদী উপজেলা সদর এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, আজিজুল হকদের সঙ্গে আবদুল মালেকের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিল। ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে বিরোধ মিমাংসার জন্য এলাকায় একটি বৈঠক বসে। বৈঠকে কোন আপোষ মিমাংসা হয়নি। পরে বাড়িতে ফেরার পথে আবদুল মালেককে কুপিয়ে হত্যা করে আজিজুল হক ও তার সহযোগিরা। ঘটনার একদিন পর নিহতের ছেলে রফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে পাকুন্দিয়া থানায় আজিজুল হকসহ ১৪জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫-৬জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় সর্বমোট ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

বাখ//আর