ঢাকা ০৯:৩৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষে নিহত ২ :: ঢাকা কলেজের সামনে সংঘর্ষে যুবক নিহত :: রংপুরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বেরোবি শিক্ষার্থী নিহত :: ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন :: রণক্ষেত্র মহাখালী, পুলিশ বক্সের সামনে দুটি মোটরসাইকেলে আগুন :: চার শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ, উত্তাল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা :: আজও ছাত্রলীগের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, রণক্ষেত্র ঢাবি

পাইকগাছায় ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরুর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
  • / ৫৭৫ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরুর বিরুদ্ধে ত্রানের চাল আত্নসাৎ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তরে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন তিনি। ইউপি চেয়ারম্যানের জনপ্রিয়তার ইমেজকে সংকটে ফেলতে এমন মানহানিকর ও অসত্য অভিযোগ তুলে ধরে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে বলে তার দাবী।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরু বলেন, ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থ গড়ইখালী ইউনিয়নে উপজেলা পরিষদ থেকে ১২ মেঃ টন চাউল বরাদ্দ হয়। যার মধ্যে ১ম ধাপে ৫ মেঃ টন, ২য় ধাপে ২ মেঃ টন ও ৩য় ধাপে ৫ মেঃ টন চাউল বরাদ্দ হয়। এর মধ্যে সংসদ সদস্যের মাধ্যমে ২ মেঃ টন ও ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ৫ মেঃ টন চাল বিতরন করা হয়।

সর্বশেষ ঈদ-উল-আযহার আগের দিন ৫ মেঃ টন চাল বরাদ্দ হয়। সেকারণে ওই ৫ মেঃ টন চাল তুলতে না পারায় গত ২৩ জুন উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে চাল তুলে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে রাখা হয়েছে। স্ব স্ব ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যদের মাধ্যমে ঘূর্নিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্হদের তালিকার কার্যক্রম চলছে। তালিকা শেষ হলে চাল বিতরন করা হবে। তিনি আরো বলেন, আমার বিরুদ্ধে ত্রানের চাল আত্নসাৎ করা হয়েছে বলে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে যে অভিযোগ দেয়া হয়েছে সেটি সত্য নয়।

ইউপি সদস্য গাউসুল করিম সরদার ও সংরক্ষিত ইউপি সদস্য নাছিমা আক্তার বলেন,আমরা রেমালে ক্ষতিগ্রস্হ মানুষের জন্য ১২মেঃ টন পেয়েছিলাম। তার মধ্যে ঈদের আগে ৭মেঃ টন চাল বিতরন করেছি। আর ৫মেঃটন চাল পরিষদের গোডাউনে রয়েছে। বিতরনের জন্য তালিকা চলছে। তালিকা শেষ হলে ওই চাল বিতরন করা হবে। তবে ইউপি চেয়ারম্যানের নামে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সত্য না।

গড়ইখালী ইউপি’র হিসাব সহকারি তৈয়েবুর রহমান বলেন, ত্রানের চাল আত্নসাৎ এর প্রশ্নই আসেনা। সরকারি নিয়মনীতি মেনে ট্যাগ কর্মকর্তার মাধ্যমে চাল বিতরন করা হয়েছে। যে চাল বাকী ছিলো সেই চাল গত ২৪ জুন সরকারি গোডাউন থেকে তুলে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে রাখা হয়েছে। তালিকা শেষ হলে বিতরন কবরো।

বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

পাইকগাছায় ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরুর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৩:৪৯:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪

খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরুর বিরুদ্ধে ত্রানের চাল আত্নসাৎ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তরে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন তিনি। ইউপি চেয়ারম্যানের জনপ্রিয়তার ইমেজকে সংকটে ফেলতে এমন মানহানিকর ও অসত্য অভিযোগ তুলে ধরে মিথ্যা তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে বলে তার দাবী।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান জি এম আব্দুস ছালাম কেরু বলেন, ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থ গড়ইখালী ইউনিয়নে উপজেলা পরিষদ থেকে ১২ মেঃ টন চাউল বরাদ্দ হয়। যার মধ্যে ১ম ধাপে ৫ মেঃ টন, ২য় ধাপে ২ মেঃ টন ও ৩য় ধাপে ৫ মেঃ টন চাউল বরাদ্দ হয়। এর মধ্যে সংসদ সদস্যের মাধ্যমে ২ মেঃ টন ও ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে ৫ মেঃ টন চাল বিতরন করা হয়।

সর্বশেষ ঈদ-উল-আযহার আগের দিন ৫ মেঃ টন চাল বরাদ্দ হয়। সেকারণে ওই ৫ মেঃ টন চাল তুলতে না পারায় গত ২৩ জুন উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে চাল তুলে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে রাখা হয়েছে। স্ব স্ব ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যদের মাধ্যমে ঘূর্নিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্হদের তালিকার কার্যক্রম চলছে। তালিকা শেষ হলে চাল বিতরন করা হবে। তিনি আরো বলেন, আমার বিরুদ্ধে ত্রানের চাল আত্নসাৎ করা হয়েছে বলে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে যে অভিযোগ দেয়া হয়েছে সেটি সত্য নয়।

ইউপি সদস্য গাউসুল করিম সরদার ও সংরক্ষিত ইউপি সদস্য নাছিমা আক্তার বলেন,আমরা রেমালে ক্ষতিগ্রস্হ মানুষের জন্য ১২মেঃ টন পেয়েছিলাম। তার মধ্যে ঈদের আগে ৭মেঃ টন চাল বিতরন করেছি। আর ৫মেঃটন চাল পরিষদের গোডাউনে রয়েছে। বিতরনের জন্য তালিকা চলছে। তালিকা শেষ হলে ওই চাল বিতরন করা হবে। তবে ইউপি চেয়ারম্যানের নামে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সত্য না।

গড়ইখালী ইউপি’র হিসাব সহকারি তৈয়েবুর রহমান বলেন, ত্রানের চাল আত্নসাৎ এর প্রশ্নই আসেনা। সরকারি নিয়মনীতি মেনে ট্যাগ কর্মকর্তার মাধ্যমে চাল বিতরন করা হয়েছে। যে চাল বাকী ছিলো সেই চাল গত ২৪ জুন সরকারি গোডাউন থেকে তুলে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে রাখা হয়েছে। তালিকা শেষ হলে বিতরন কবরো।

বাখ//আর