ঢাকা ০২:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পাইকগাছায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের মারামারি, জেলা পরিষদ সদস্যসহ আহত ৫

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:১৭:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪৩২ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
খুলনার পাইকগাছায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে খুলনা জেলা পরিষদ সদস্য ও তার ভাইপো’র সাথে স্হানীয় আবির হোসেন ও তার সঙ্গীদের দফায় দফায় মারামারিতে উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি শুক্রবার রাতে উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নের চারবান্ধা বাজার এলাকায়।
আহতরা হলেন, জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম ররি(৫১), আজাদুর রহমান গাজী (৪২) এবং অপর গ্রুপের আহতরা হলেন, সাগর সানা (২৬), আবির হোসেন (২৬) ও ইমরান গাজী (৩০)। স্হানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলা পরিষদ সদস্য ও তার ভাইপো কে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহত জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি সহ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাইকগাছায় একটি অনুষ্টানে জেলা পরিষদ সদস্য’র ভাইপো আজাদুর রহমান গাজী কে আবির হোসেন মারপিট করে। পরে শুক্রবার রাতে চারবান্ধা বাজারে আবির ও তার সঙ্গীদের দেখতে পেয়ে মারপিট করার বিষয়টি জানতে চায় আজাদুর রহমান।
এক পর্যায়ে তারা তেড়ে উঠে আজাদুর রহমান কে মারপিট করে আহত করে। ঐ সময় আবির ও তার সঙ্গীরা এলাকায় জনরোষের স্বীকার হয়। এতে ভিলেজ পাইকগাছার শফিকুল সানার ছেলে সাগর সানা, পারবয়ারঝাপা গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে আবির হোসেন গাজী ও একই এলাকার লাল মিয়া গাজীর ছেলে ইমরান গাজী আহত হয়।
পরে স্হানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আনুমানিক রাত ৮টার দিকে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত আজাদুর রহমানের অবস্হার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাচী শিকদার উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।
ঐসময় জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি ভাইপো আহত আজাদুর রহমান কে নিয়ে খুলনায় যাওয়ার পথে পৌরসদরের হাসপাতাল মোড় নামক স্হানে ৩টি মোটর সাইকেল যোগে ৬ জন দুর্বৃত্ত এসে অতর্কিতভাবে  হামলা করে  প্রাইভেটকার ভাংচুর করে ও জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি কে মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে। পরে ঐ রাতেই জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম ও তার ভাইপো আজাদুর রহমান কে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তারা খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
এ বিষয়ে আবির হোসেন জানান, আমরা আজাদুর রহমান কে মারপিট করিনি। বরং তারাই আমাদের মারপিট করে আহত করেছে। সর্বোপরি, এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান আহত জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি’র সহোদর সোলাদানা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান গাজী। এ বিষয়ে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওবাইদুর রহমান জানান, মারামারির ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে কত জন আসামী হবে এ বিষয়ে তিনি জানাতে চাননি?
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

পাইকগাছায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের মারামারি, জেলা পরিষদ সদস্যসহ আহত ৫

আপডেট সময় : ০৪:১৭:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
খুলনার পাইকগাছায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে খুলনা জেলা পরিষদ সদস্য ও তার ভাইপো’র সাথে স্হানীয় আবির হোসেন ও তার সঙ্গীদের দফায় দফায় মারামারিতে উভয় পক্ষের ৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি শুক্রবার রাতে উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নের চারবান্ধা বাজার এলাকায়।
আহতরা হলেন, জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম ররি(৫১), আজাদুর রহমান গাজী (৪২) এবং অপর গ্রুপের আহতরা হলেন, সাগর সানা (২৬), আবির হোসেন (২৬) ও ইমরান গাজী (৩০)। স্হানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলা পরিষদ সদস্য ও তার ভাইপো কে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহত জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি সহ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাইকগাছায় একটি অনুষ্টানে জেলা পরিষদ সদস্য’র ভাইপো আজাদুর রহমান গাজী কে আবির হোসেন মারপিট করে। পরে শুক্রবার রাতে চারবান্ধা বাজারে আবির ও তার সঙ্গীদের দেখতে পেয়ে মারপিট করার বিষয়টি জানতে চায় আজাদুর রহমান।
এক পর্যায়ে তারা তেড়ে উঠে আজাদুর রহমান কে মারপিট করে আহত করে। ঐ সময় আবির ও তার সঙ্গীরা এলাকায় জনরোষের স্বীকার হয়। এতে ভিলেজ পাইকগাছার শফিকুল সানার ছেলে সাগর সানা, পারবয়ারঝাপা গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে আবির হোসেন গাজী ও একই এলাকার লাল মিয়া গাজীর ছেলে ইমরান গাজী আহত হয়।
পরে স্হানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আনুমানিক রাত ৮টার দিকে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত আজাদুর রহমানের অবস্হার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রাচী শিকদার উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।
ঐসময় জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি ভাইপো আহত আজাদুর রহমান কে নিয়ে খুলনায় যাওয়ার পথে পৌরসদরের হাসপাতাল মোড় নামক স্হানে ৩টি মোটর সাইকেল যোগে ৬ জন দুর্বৃত্ত এসে অতর্কিতভাবে  হামলা করে  প্রাইভেটকার ভাংচুর করে ও জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি কে মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে। পরে ঐ রাতেই জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম ও তার ভাইপো আজাদুর রহমান কে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তারা খুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
এ বিষয়ে আবির হোসেন জানান, আমরা আজাদুর রহমান কে মারপিট করিনি। বরং তারাই আমাদের মারপিট করে আহত করেছে। সর্বোপরি, এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান আহত জেলা পরিষদ সদস্য রবিউল ইসলাম রবি’র সহোদর সোলাদানা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান গাজী। এ বিষয়ে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওবাইদুর রহমান জানান, মারামারির ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে কত জন আসামী হবে এ বিষয়ে তিনি জানাতে চাননি?
বাখ//আর