ঢাকা ০৫:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামে ফের শৈত্যপ্রবাহ

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:২৭:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৫০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামে ফের শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। দুদিন ধরে হালকা কুয়াশার সঙ্গে উত্তরের হিমেল হাওয়ার কারণে কনকনে শীত অনুভূত হচ্ছে। সপ্তাহজুড়ে তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ এর মধ্যেই ছিল। আজ বৃহস্পতিবার পঞ্চগড়ে আবারও তাপমাত্রা নেমেছে ৭ এর ঘরে। তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে কুড়িগ্রামে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয় ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি। দিনের তাপমাত্রাও সামান্য কমে রেকর্ড করা হয় ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি। দিনভর আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ছিল। বুধবার দুপুরের দিকে কিছু সময়ের জন্য সূর্যের দেখা মিললেও বাতাসের কারণে তীব্র শীত অনুভূত হয়। এতে আবারও দুর্ভোগে পড়ে রিক্সাভ্যানের চালকসহ খেটে খাওয়া মানুষ।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা কমলেও দেখা মিলেছে সূর্যের। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সূর্যের দেখা পাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে জনজীবনে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, ‘সপ্তাহজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ এর মধ্যেই ছিল। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। দিনের তাপমাত্রাও সামান্য কমে রেকর্ড করা হয় ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি।’

কুড়িগ্রামের ওপর দিয়ে আবারও বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। হঠাৎ করেই তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় কষ্টে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ। তবে তাপমাত্রা কমে গেলেও উঁকি দিয়েছে সূর্য।

আজ বৃহস্পতিবার (৮ই ফেব্রুয়ারি) জেলার সর্বনি¤œ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, হঠাৎ করেই তাপমাত্রা কমে গেছে। আগামীতে বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা বাড়বে।

এদিকে বোরো রোপণের ভরা মৌসুম চলায়, তাপমাত্রা কমে গেলেও মাঠে কাজে বের হচ্ছেন শ্রমজীবী মানুষজন। স্থানীয়রা জানালেন কয়েকদিনের চেয়ে আজ একটু ঠান্ডা বেশি মনে হচ্ছে। ফলে দেখা দিয়েছে ঠান্ডা জনিত রোগ।

নিউজটি শেয়ার করুন

পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামে ফের শৈত্যপ্রবাহ

আপডেট সময় : ০১:২৭:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামে ফের শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। দুদিন ধরে হালকা কুয়াশার সঙ্গে উত্তরের হিমেল হাওয়ার কারণে কনকনে শীত অনুভূত হচ্ছে। সপ্তাহজুড়ে তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ এর মধ্যেই ছিল। আজ বৃহস্পতিবার পঞ্চগড়ে আবারও তাপমাত্রা নেমেছে ৭ এর ঘরে। তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে কুড়িগ্রামে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয় ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি। দিনের তাপমাত্রাও সামান্য কমে রেকর্ড করা হয় ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি। দিনভর আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ছিল। বুধবার দুপুরের দিকে কিছু সময়ের জন্য সূর্যের দেখা মিললেও বাতাসের কারণে তীব্র শীত অনুভূত হয়। এতে আবারও দুর্ভোগে পড়ে রিক্সাভ্যানের চালকসহ খেটে খাওয়া মানুষ।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা কমলেও দেখা মিলেছে সূর্যের। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সূর্যের দেখা পাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে জনজীবনে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, ‘সপ্তাহজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ এর মধ্যেই ছিল। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। দিনের তাপমাত্রাও সামান্য কমে রেকর্ড করা হয় ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি।’

কুড়িগ্রামের ওপর দিয়ে আবারও বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ। হঠাৎ করেই তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় কষ্টে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ। তবে তাপমাত্রা কমে গেলেও উঁকি দিয়েছে সূর্য।

আজ বৃহস্পতিবার (৮ই ফেব্রুয়ারি) জেলার সর্বনি¤œ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, হঠাৎ করেই তাপমাত্রা কমে গেছে। আগামীতে বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা বাড়বে।

এদিকে বোরো রোপণের ভরা মৌসুম চলায়, তাপমাত্রা কমে গেলেও মাঠে কাজে বের হচ্ছেন শ্রমজীবী মানুষজন। স্থানীয়রা জানালেন কয়েকদিনের চেয়ে আজ একটু ঠান্ডা বেশি মনে হচ্ছে। ফলে দেখা দিয়েছে ঠান্ডা জনিত রোগ।