ঢাকা ১১:২৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নেছারাবাদে পূর্ব বিরোধে মাল্টা বাগানে হামলা, সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলেসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৩:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪
  • / ৪১৭ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
নেছারাবাদে পূর্ব বিরোধের জের ধরে মিলন মিস্ত্রী নামে এক কৃষকের মাল্টা বাগানে সন্ত্রাসি হামলা চালানোর অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার ঠাকুরের ছেলে অর্নব ঠাকুর তার বাহিনী নিয়ে ওই হামলা চালিয়েছেন। এতে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ভুক্তভোগী মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রীর। মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রী গত ৬ জুন বাদী হয়ে নেছারাবাদ থানায় চেয়ারম্যানের ছেলে অর্নব ঠাকুর(২৫) সহ মোট চারজনকে আসামী করে থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলার অপর আসামীরা হলেন,চন্দন মিত্র(২৩),অনিক মালি ওরফে মানিক গোপাল মন্ডল (৪৮)। আসামীরা সবাই একই ইউনিয়ের বাসিন্দা।
মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রীর অভিযোগ, অর্নব ঠাকুর এলাকার ভয়ঙ্কর লোক। তার নেতৃত্বে এলাকায় গড়ে উঠেছে একটি বাহীনি। তাদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে কেহ কোন কথা বললেই তাকে হতে হয় হামলার শিকার। এমনকি কেহ তার মতের বিপক্ষে থাকলে তাকে দেখানো হয় নানান ভয়ভীতি। অর্নব গত দু’বছর পূর্বেও আমার মাল্টা বাগানে হামলা চালিয়ে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছিল। তিনি বলেন গত ২১ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী মটরসাইকেল প্রতীকের পক্ষে কাজ করেছি। অর্নব ঠাকুর চেয়ারম্যান প্রার্থী আনারস প্রতীকের নির্বাচন করেছে। নির্বাচনে আনারস বিজয় লাভ করে। নির্বাচনে জিতেই অর্নব তার বাহিনী নিয়ে আমাকে মারতে আসে। আমাকে না পেয়ে আমার মাল্টা বাগানে হামলা চালিয়ে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছে।
মামলার প্রধান আসামী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে অর্নব ঠাকুর বলেন, যতগুলো ফল আছে তার ভিতরে আমি মাল্টা খাইনা। আমি কারো মাল্টা বাগানে হামলা করিনি। এটা রাজনৈতিক প্রতিহিংসা। আমি এখন পিরোজপুরে আছি।
নেছারাবাদ থানার ওসি তদন্ত এইচ,এম শাহীন জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। আসামীরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
বাখ//আর

নিউজটি শেয়ার করুন

নেছারাবাদে পূর্ব বিরোধে মাল্টা বাগানে হামলা, সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলেসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট সময় : ০৫:৪৩:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪
নেছারাবাদে পূর্ব বিরোধের জের ধরে মিলন মিস্ত্রী নামে এক কৃষকের মাল্টা বাগানে সন্ত্রাসি হামলা চালানোর অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার ঠাকুরের ছেলে অর্নব ঠাকুর তার বাহিনী নিয়ে ওই হামলা চালিয়েছেন। এতে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ভুক্তভোগী মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রীর। মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রী গত ৬ জুন বাদী হয়ে নেছারাবাদ থানায় চেয়ারম্যানের ছেলে অর্নব ঠাকুর(২৫) সহ মোট চারজনকে আসামী করে থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলার অপর আসামীরা হলেন,চন্দন মিত্র(২৩),অনিক মালি ওরফে মানিক গোপাল মন্ডল (৪৮)। আসামীরা সবাই একই ইউনিয়ের বাসিন্দা।
মাল্টা চাষী মিলন মিস্ত্রীর অভিযোগ, অর্নব ঠাকুর এলাকার ভয়ঙ্কর লোক। তার নেতৃত্বে এলাকায় গড়ে উঠেছে একটি বাহীনি। তাদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে কেহ কোন কথা বললেই তাকে হতে হয় হামলার শিকার। এমনকি কেহ তার মতের বিপক্ষে থাকলে তাকে দেখানো হয় নানান ভয়ভীতি। অর্নব গত দু’বছর পূর্বেও আমার মাল্টা বাগানে হামলা চালিয়ে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছিল। তিনি বলেন গত ২১ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী মটরসাইকেল প্রতীকের পক্ষে কাজ করেছি। অর্নব ঠাকুর চেয়ারম্যান প্রার্থী আনারস প্রতীকের নির্বাচন করেছে। নির্বাচনে আনারস বিজয় লাভ করে। নির্বাচনে জিতেই অর্নব তার বাহিনী নিয়ে আমাকে মারতে আসে। আমাকে না পেয়ে আমার মাল্টা বাগানে হামলা চালিয়ে দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি করেছে।
মামলার প্রধান আসামী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে অর্নব ঠাকুর বলেন, যতগুলো ফল আছে তার ভিতরে আমি মাল্টা খাইনা। আমি কারো মাল্টা বাগানে হামলা করিনি। এটা রাজনৈতিক প্রতিহিংসা। আমি এখন পিরোজপুরে আছি।
নেছারাবাদ থানার ওসি তদন্ত এইচ,এম শাহীন জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। আসামীরা পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
বাখ//আর