ঢাকা ১১:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নিউজিল্যান্ড ১৯৬ রানে অলআউট

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৮:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৬০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

তৃতীয় দিনেই ইঙ্গিত মিলেছিল। গ্লেন ফিলিপসের অফ স্পিনের সামনেই ১৬৪ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল। সে তুলনায় নাথান লায়ন তো সর্বকালের সেরাদেরই একজন। গতকালই দুই উইকেট নিয়ে হাত মকশো করে নিয়েছিলেন লায়ন।

আজ চতুর্থ দিনে সেটাই হয়েছে, যা হওয়ার কথা ছিল। তৃতীয় দিন শেষে রাচিন রবীন্দ্র ও ড্যারিল মিচেল যে প্রতিরোধের আভাস দিয়েছিলেন, সেটা সাতসকালেই উবে গেছে। আজ চতুর্থ দিনে আরও ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন লায়ন। তাতে ৩ উইকেটে ১১ রানে দিন শুরু করা নিউজিল্যান্ড ১৯৬ রানে অলআউট হয়ে গেছে।

১৭২ রানে হেরে সিরিজ শুরু করল স্বাগতিক দল। ১৯৯৩ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট জিততে না পারার দুঃখটা আরও এক টেস্ট লম্বা হলো তাদের।

প্রথম ইনিংসে ১৭৯ রানে অলআউট হওয়া এক দলের জন্য ৩৬৯ রানের লক্ষ্য প্রায় অসম্ভব ছিল। গতকাল ৫৯ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল নিউজিল্যান্ড। স্পিনসহায়ক উইকেট ২ উইকেট তুলে নেওয়া লায়ন দিন শেষে নিজের উল্লাস লুকাননি এমন উইকেটে বল করতে পেরে।

তবু নিউজিল্যান্ড অবিশ্বাস্যের স্বপ্ন দেখছিল। কিন্তু দিনের সপ্তম ওভারে রাচিনকে ফিরিয়ে দেন লায়ন। ওভার শেষ করার আগেই ফিরে গেছেন টম ব্লান্ডেল। এতেই তুষ্ট না হয়ে লায়ন পরের ওভারে গ্লেন ফিলিপসকেও তুলে নেন।

দিনের প্রথম আধ ঘণ্টায় ১৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিক দল। এরপর শুধু ম্যাচের ফলের অপেক্ষা ছিল। হ্যাজলউড ও গ্রিনও তাঁর সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় প্রথম সেশনেই অলআউট নিউজিল্যান্ড। একাই লড়েছিলেন মিচেল। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে হ্যাজলউডের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে মিচেল ১৩০ বলে ৩৮ রান করেছিলেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৫ রানে ৬ উইকেট পাওয়া লায়ন প্রথম ইনিংসেও ৪ উইকেট পেয়েছিলেন। ২০০৬ সালের পর এই প্রথম নিউজিল্যান্ডের মাঠে কোনো স্পিনার ম্যাচে ১০ উইকেট পেয়েছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪১ রানও করেছিলেন লায়ন। তবু ম্যাচসেরা হয়েছেন অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রিন।

প্রথম ইনিংসে তাঁর ১৭৪ রানের অপরাজিত ইনিংসই অস্ট্রেলিয়াকে কঠিন উইকেটে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৮৩ রান এনে দিয়েছিল। এমন এক উইকেট যে, দুই দলের ২২ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ১৩ জনই উইকেট পেয়েছেন। ১৯৬৬ আলের পর টেস্টে এমন কিছু দেখা গেল।

নিউজটি শেয়ার করুন

নিউজিল্যান্ড ১৯৬ রানে অলআউট

আপডেট সময় : ০১:৫৮:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

তৃতীয় দিনেই ইঙ্গিত মিলেছিল। গ্লেন ফিলিপসের অফ স্পিনের সামনেই ১৬৪ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল। সে তুলনায় নাথান লায়ন তো সর্বকালের সেরাদেরই একজন। গতকালই দুই উইকেট নিয়ে হাত মকশো করে নিয়েছিলেন লায়ন।

আজ চতুর্থ দিনে সেটাই হয়েছে, যা হওয়ার কথা ছিল। তৃতীয় দিন শেষে রাচিন রবীন্দ্র ও ড্যারিল মিচেল যে প্রতিরোধের আভাস দিয়েছিলেন, সেটা সাতসকালেই উবে গেছে। আজ চতুর্থ দিনে আরও ৪ উইকেট তুলে নিয়েছেন লায়ন। তাতে ৩ উইকেটে ১১ রানে দিন শুরু করা নিউজিল্যান্ড ১৯৬ রানে অলআউট হয়ে গেছে।

১৭২ রানে হেরে সিরিজ শুরু করল স্বাগতিক দল। ১৯৯৩ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট জিততে না পারার দুঃখটা আরও এক টেস্ট লম্বা হলো তাদের।

প্রথম ইনিংসে ১৭৯ রানে অলআউট হওয়া এক দলের জন্য ৩৬৯ রানের লক্ষ্য প্রায় অসম্ভব ছিল। গতকাল ৫৯ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল নিউজিল্যান্ড। স্পিনসহায়ক উইকেট ২ উইকেট তুলে নেওয়া লায়ন দিন শেষে নিজের উল্লাস লুকাননি এমন উইকেটে বল করতে পেরে।

তবু নিউজিল্যান্ড অবিশ্বাস্যের স্বপ্ন দেখছিল। কিন্তু দিনের সপ্তম ওভারে রাচিনকে ফিরিয়ে দেন লায়ন। ওভার শেষ করার আগেই ফিরে গেছেন টম ব্লান্ডেল। এতেই তুষ্ট না হয়ে লায়ন পরের ওভারে গ্লেন ফিলিপসকেও তুলে নেন।

দিনের প্রথম আধ ঘণ্টায় ১৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিক দল। এরপর শুধু ম্যাচের ফলের অপেক্ষা ছিল। হ্যাজলউড ও গ্রিনও তাঁর সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় প্রথম সেশনেই অলআউট নিউজিল্যান্ড। একাই লড়েছিলেন মিচেল। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে হ্যাজলউডের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে মিচেল ১৩০ বলে ৩৮ রান করেছিলেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৫ রানে ৬ উইকেট পাওয়া লায়ন প্রথম ইনিংসেও ৪ উইকেট পেয়েছিলেন। ২০০৬ সালের পর এই প্রথম নিউজিল্যান্ডের মাঠে কোনো স্পিনার ম্যাচে ১০ উইকেট পেয়েছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪১ রানও করেছিলেন লায়ন। তবু ম্যাচসেরা হয়েছেন অলরাউন্ডার ক্যামেরন গ্রিন।

প্রথম ইনিংসে তাঁর ১৭৪ রানের অপরাজিত ইনিংসই অস্ট্রেলিয়াকে কঠিন উইকেটে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৮৩ রান এনে দিয়েছিল। এমন এক উইকেট যে, দুই দলের ২২ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ১৩ জনই উইকেট পেয়েছেন। ১৯৬৬ আলের পর টেস্টে এমন কিছু দেখা গেল।