ঢাকা ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব মারা গেছেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৪:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৪৭৯ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব মারা গেছেন। আজ রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজধানী উইন্ডহোকের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব। ভাইস-প্রেসিডেন্ট নাঙ্গোলো এমবুম্বা জানিয়েছেন, জিঙ্গোব রোববার ভোরে মারা গেছেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন

এমবুম্বা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘মৃত্যুর সময় প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোবের পাশে তার প্রিয় স্ত্রী মাদাম মনিকা জিঙ্গোস এবং তার সন্তানরা ছিলেন।’

বিবিসি বলছে, ৮২ বছর বয়সী এই নেতা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং গত মাসে জনসাধারণের কাছে তার রোগ নির্ণনের কথা প্রকাশ করেন। তার অফিস জানিয়েছিল, তিনি চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন।

হেগে জিঙ্গোব ২০১৫ সালে নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হন। মৃত্যুর সময় তিনি তার দ্বিতীয় এবং চূড়ান্ত মেয়াদে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে গত বছর জিঙ্গোব তার শরীরে অস্ত্রপচার করিয়েছিলেন। আর ২০১৪ সালে তিনি জানিয়েছিলেন, তিনি প্রোস্টেট ক্যানসার থেকে বেঁচে গেছেন।

চলতি বছরের নভেম্বরে নামিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট ও সংসদীয় নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

বিবিসি বলছে, ১৯৯০ সালে স্বাধীনতা অর্জনের পর থেকে নামিবিয়য়ায় ক্ষমতায় রয়েছে স্বপো পার্টি। চলতি বছর অনুষ্ঠিতব্য এই নির্বাচনকে সামনে রেখে নন্দী-এনদাইতওয়াহকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছে দেশটির এই শাসক দল।

নন্দী-এনদাইতওয়াহ বর্তমানে নামিবিয়য়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্বপালন করছেন। নভেম্বরের ওই নির্বাচনে জিতলে তিনি নামিবিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব মারা গেছেন

আপডেট সময় : ০৩:৫৪:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব মারা গেছেন। আজ রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজধানী উইন্ডহোকের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোব। ভাইস-প্রেসিডেন্ট নাঙ্গোলো এমবুম্বা জানিয়েছেন, জিঙ্গোব রোববার ভোরে মারা গেছেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন

এমবুম্বা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘মৃত্যুর সময় প্রেসিডেন্ট হেগে জিঙ্গোবের পাশে তার প্রিয় স্ত্রী মাদাম মনিকা জিঙ্গোস এবং তার সন্তানরা ছিলেন।’

বিবিসি বলছে, ৮২ বছর বয়সী এই নেতা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং গত মাসে জনসাধারণের কাছে তার রোগ নির্ণনের কথা প্রকাশ করেন। তার অফিস জানিয়েছিল, তিনি চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাবেন।

হেগে জিঙ্গোব ২০১৫ সালে নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হন। মৃত্যুর সময় তিনি তার দ্বিতীয় এবং চূড়ান্ত মেয়াদে দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে গত বছর জিঙ্গোব তার শরীরে অস্ত্রপচার করিয়েছিলেন। আর ২০১৪ সালে তিনি জানিয়েছিলেন, তিনি প্রোস্টেট ক্যানসার থেকে বেঁচে গেছেন।

চলতি বছরের নভেম্বরে নামিবিয়ায় প্রেসিডেন্ট ও সংসদীয় নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।

বিবিসি বলছে, ১৯৯০ সালে স্বাধীনতা অর্জনের পর থেকে নামিবিয়য়ায় ক্ষমতায় রয়েছে স্বপো পার্টি। চলতি বছর অনুষ্ঠিতব্য এই নির্বাচনকে সামনে রেখে নন্দী-এনদাইতওয়াহকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছে দেশটির এই শাসক দল।

নন্দী-এনদাইতওয়াহ বর্তমানে নামিবিয়য়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্বপালন করছেন। নভেম্বরের ওই নির্বাচনে জিতলে তিনি নামিবিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হবেন।