ঢাকা ১০:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের সিইও বি এম ইউসুফ আলী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:১৭:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫০০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
মোহাম্মদ নান্নু মৃধা, শরীয়তপুর প্রতিনিধি :
পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড সকল গ্রাহক শুভানুধ্যায়ী সহ দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, শরীয়তপুরের কৃতি সন্তান,পপুলার লাইফ ইনস‍্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ব‍্যবস্হাপনা পরিচালক ও সিইও , বাংলাদেশ ইনস‍্যুরেন্স ফোরাম এর প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশ ইনস‍্যুরেন্স এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী সদস্য বি এম ইউসুফ আলী।
বি এম ইউসুফ আলী  এক বিবৃতিতে জানান, জাগতিক নিয়মের পথ পরিক্রমায় বছর শেষে আমাদের মধ্যে আবার এসেছে নতুন বছর- ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। সবাইকে নতুন বছরের আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং শুভ নববর্ষ। তাছাড়া মুসলমানদের সিয়াম সাধনার পবিত্র রমজান মাস চলতেছে। আমি সব ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে পবিত্র মাহে রমজানের মোবারকবাদ জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, এ ভূখণ্ডের হাজার বছরের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং কৃষ্টির বাহক এদেশের বাঙালি জনগোষ্ঠী। বিভিন্ন ধর্মে-বর্ণে বিভক্ত হলেও ঐতিহ্য ও কৃষ্টির জায়গায় সব বাঙালি এক এবং অভিন্ন। নানা ঘাত-প্রতিঘাতে অনেক ঐতিহ্য হারিয়ে গেলেও পহেলা বৈশাখ নববর্ষ উদযাপন এখনও স্বমহিমায় টিকে আছে। সারা বছরের ক্লেদ-গ্লানি, হতাশা ভুলে এদিন সব বাঙালি নতুন আনন্দ-উদ্দীপনায় মেতে ওঠেন। ‘এসো হে বৈশাখ, এসো এসো/মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা/অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধারা’ – কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কালজয়ী এই গান গেয়ে আমরা আবাহন করি নতুন বছরকে।
এছাড়া তিনি আরও বলেন, পহেলা বৈশাখের বর্ষবরণ বাঙালির সার্বজনীন উৎসব। আবহমানকাল ধরে বাংলার গ্রামগঞ্জে, আনাচে-কানাচে এই উৎসব পালিত হয়ে আসছে। গ্রামীণ মেলা, হালখাতা, বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার আয়োজন ছিল বর্ষবরণের মূল অনুষঙ্গ। ব্যবসায়ীরা আগের বছরের দেনা-পাওনা আদায়ের জন্য আয়োজন করতেন হালখাতা উৎসবের। গ্রামীণ পরিবারগুলো মেলা থেকে সারা বছরের জন্য প্রয়োজনীয় তৈজসপত্র কিনে রাখতেন। গৃহস্থ বাড়িতে রান্না হতো সাধ্যমতো উন্নতমানের খাবারের।নতুন বছর উজ্বল হয়ে উঠুক নতুন আলোয়, নতুন আশায়। শুভ নববর্ষের প্রীতি ও শুভেচ্ছা,শুভ নববর্ষ।
বা/খ: জই

নিউজটি শেয়ার করুন

নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের সিইও বি এম ইউসুফ আলী

আপডেট সময় : ০৫:১৭:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৩
মোহাম্মদ নান্নু মৃধা, শরীয়তপুর প্রতিনিধি :
পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড সকল গ্রাহক শুভানুধ্যায়ী সহ দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, শরীয়তপুরের কৃতি সন্তান,পপুলার লাইফ ইনস‍্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ব‍্যবস্হাপনা পরিচালক ও সিইও , বাংলাদেশ ইনস‍্যুরেন্স ফোরাম এর প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশ ইনস‍্যুরেন্স এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী সদস্য বি এম ইউসুফ আলী।
বি এম ইউসুফ আলী  এক বিবৃতিতে জানান, জাগতিক নিয়মের পথ পরিক্রমায় বছর শেষে আমাদের মধ্যে আবার এসেছে নতুন বছর- ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। সবাইকে নতুন বছরের আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং শুভ নববর্ষ। তাছাড়া মুসলমানদের সিয়াম সাধনার পবিত্র রমজান মাস চলতেছে। আমি সব ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে পবিত্র মাহে রমজানের মোবারকবাদ জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, এ ভূখণ্ডের হাজার বছরের ঐতিহ্য, সংস্কৃতি এবং কৃষ্টির বাহক এদেশের বাঙালি জনগোষ্ঠী। বিভিন্ন ধর্মে-বর্ণে বিভক্ত হলেও ঐতিহ্য ও কৃষ্টির জায়গায় সব বাঙালি এক এবং অভিন্ন। নানা ঘাত-প্রতিঘাতে অনেক ঐতিহ্য হারিয়ে গেলেও পহেলা বৈশাখ নববর্ষ উদযাপন এখনও স্বমহিমায় টিকে আছে। সারা বছরের ক্লেদ-গ্লানি, হতাশা ভুলে এদিন সব বাঙালি নতুন আনন্দ-উদ্দীপনায় মেতে ওঠেন। ‘এসো হে বৈশাখ, এসো এসো/মুছে যাক গ্লানি, ঘুচে যাক জরা/অগ্নিস্নানে শুচি হোক ধারা’ – কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কালজয়ী এই গান গেয়ে আমরা আবাহন করি নতুন বছরকে।
এছাড়া তিনি আরও বলেন, পহেলা বৈশাখের বর্ষবরণ বাঙালির সার্বজনীন উৎসব। আবহমানকাল ধরে বাংলার গ্রামগঞ্জে, আনাচে-কানাচে এই উৎসব পালিত হয়ে আসছে। গ্রামীণ মেলা, হালখাতা, বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার আয়োজন ছিল বর্ষবরণের মূল অনুষঙ্গ। ব্যবসায়ীরা আগের বছরের দেনা-পাওনা আদায়ের জন্য আয়োজন করতেন হালখাতা উৎসবের। গ্রামীণ পরিবারগুলো মেলা থেকে সারা বছরের জন্য প্রয়োজনীয় তৈজসপত্র কিনে রাখতেন। গৃহস্থ বাড়িতে রান্না হতো সাধ্যমতো উন্নতমানের খাবারের।নতুন বছর উজ্বল হয়ে উঠুক নতুন আলোয়, নতুন আশায়। শুভ নববর্ষের প্রীতি ও শুভেচ্ছা,শুভ নববর্ষ।
বা/খ: জই