ঢাকা ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

দ্বিতীয় রাউন্ডে ডি মিনাউরের কাছে হেরে গেলেন নাদাল

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:২১:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৪২৪ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ক্লে-কোর্ট বার্সেলোনা ওপেনে অ্যালেক্স ডি মিনাউরের কাছে ৭-৫, ৬-১ গেমে হেরে গেছেন রাফায়েল নাদাল। ইনজুরি থেকে ফিরে আসা নাদালকে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ক্ষণিকের জন্য তার পুরনো রূপের মতো দেখাচ্ছিল, তবে ১১তম স্থানে থাকা ডি মিনাউরের সাথে তাল মেলাতে পারেননি।

ম্যাচ শেষে নাদাল বলেন, ‘প্রথম সেট হারের সঙ্গে সঙ্গেই ম্যাচ শেষ হয়ে যায়। “আমি এই মুহূর্তে তিন ঘণ্টার ম্যাচ খেলতে পারব না। আমার যা কিছু আছে তা দেওয়ার জায়গা এটা আমার ছিল না। আমরা দেখব প্যারিসে কী হবে। আমি সেখানে প্রতিযোগিতামূলক হতে চাই, এখানেই আমাকে সবটুকু দিতে হবে।

আগামী মাসে শুরু হতে যাওয়া ফ্রেঞ্চ ওপেনে ১৪ বারের শিরোপা জিতলেন নাদাল। আগামী সপ্তাহে মাদ্রিদ ওপেনে খেলার চেষ্টা করবেন বলে জানালেও পুরোপুরি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নন তিনি।

নাদাল বলেন, ‘আমি কোনো ঝুঁকি নিতে চাইনি। “এখানে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল আমি খেলেছি। কোর্টে নামাটা দারুণ খবর।

২২ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন মঙ্গলবার প্রথম রাউন্ডে ৬২তম স্থানে থাকা ফ্লাভিও কোবোলিকে সরাসরি সেটে পরাজিত করেন, যা তিন মাসেরও বেশি সময়ের মধ্যে তার প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ ছিল।

বুধবার নাদালকে আবার চোটমুক্ত দেখালেও ফর্মে থাকা ডি মিনাউরের বিপক্ষে আর নিয়ন্ত্রণে ছিলেন নাদাল, যিনি নাদালের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছিলেন।

বার্সেলোনা ওপেনে এটি তার মাত্র পঞ্চম পরাজয়, যে টুর্নামেন্টে তিনি রেকর্ড ১২ বার জিতেছেন।

ম্যাচ শেষে নাদাল বলেন, ‘এটা স্বাভাবিক যে সম্ভবত এটাই আমার শেষ ম্যাচ ছিল। “আমি এখানে খেলা উপভোগ করেছি। এটা ১২ বার জেতা ছিল অকল্পনীয়।

গত মার্চে কার্লোস আলকারাজের বিপক্ষে প্রদর্শনী ম্যাচের পর থেকে আর খেলেননি নাদাল। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন থেকে ছিটকে যাওয়ার আগে এ সপ্তাহের আগে এ বছর মাত্র তিনটি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

শরীর প্রস্তুত নয় জানিয়ে মন্টে কার্লো থেকেও নাম প্রত্যাহার করে নেন নাদাল।

৩৭ বছর বয়সী নাদাল গত গ্রীষ্মে নিতম্বে অস্ত্রোপচার করেছিলেন এবং বলেছিলেন যে ২০২৪ সম্ভবত সফরে তার শেষ বছর হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

দ্বিতীয় রাউন্ডে ডি মিনাউরের কাছে হেরে গেলেন নাদাল

আপডেট সময় : ০১:২১:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

ক্লে-কোর্ট বার্সেলোনা ওপেনে অ্যালেক্স ডি মিনাউরের কাছে ৭-৫, ৬-১ গেমে হেরে গেছেন রাফায়েল নাদাল। ইনজুরি থেকে ফিরে আসা নাদালকে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ক্ষণিকের জন্য তার পুরনো রূপের মতো দেখাচ্ছিল, তবে ১১তম স্থানে থাকা ডি মিনাউরের সাথে তাল মেলাতে পারেননি।

ম্যাচ শেষে নাদাল বলেন, ‘প্রথম সেট হারের সঙ্গে সঙ্গেই ম্যাচ শেষ হয়ে যায়। “আমি এই মুহূর্তে তিন ঘণ্টার ম্যাচ খেলতে পারব না। আমার যা কিছু আছে তা দেওয়ার জায়গা এটা আমার ছিল না। আমরা দেখব প্যারিসে কী হবে। আমি সেখানে প্রতিযোগিতামূলক হতে চাই, এখানেই আমাকে সবটুকু দিতে হবে।

আগামী মাসে শুরু হতে যাওয়া ফ্রেঞ্চ ওপেনে ১৪ বারের শিরোপা জিতলেন নাদাল। আগামী সপ্তাহে মাদ্রিদ ওপেনে খেলার চেষ্টা করবেন বলে জানালেও পুরোপুরি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নন তিনি।

নাদাল বলেন, ‘আমি কোনো ঝুঁকি নিতে চাইনি। “এখানে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল আমি খেলেছি। কোর্টে নামাটা দারুণ খবর।

২২ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন মঙ্গলবার প্রথম রাউন্ডে ৬২তম স্থানে থাকা ফ্লাভিও কোবোলিকে সরাসরি সেটে পরাজিত করেন, যা তিন মাসেরও বেশি সময়ের মধ্যে তার প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ ছিল।

বুধবার নাদালকে আবার চোটমুক্ত দেখালেও ফর্মে থাকা ডি মিনাউরের বিপক্ষে আর নিয়ন্ত্রণে ছিলেন নাদাল, যিনি নাদালের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছিলেন।

বার্সেলোনা ওপেনে এটি তার মাত্র পঞ্চম পরাজয়, যে টুর্নামেন্টে তিনি রেকর্ড ১২ বার জিতেছেন।

ম্যাচ শেষে নাদাল বলেন, ‘এটা স্বাভাবিক যে সম্ভবত এটাই আমার শেষ ম্যাচ ছিল। “আমি এখানে খেলা উপভোগ করেছি। এটা ১২ বার জেতা ছিল অকল্পনীয়।

গত মার্চে কার্লোস আলকারাজের বিপক্ষে প্রদর্শনী ম্যাচের পর থেকে আর খেলেননি নাদাল। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন থেকে ছিটকে যাওয়ার আগে এ সপ্তাহের আগে এ বছর মাত্র তিনটি প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

শরীর প্রস্তুত নয় জানিয়ে মন্টে কার্লো থেকেও নাম প্রত্যাহার করে নেন নাদাল।

৩৭ বছর বয়সী নাদাল গত গ্রীষ্মে নিতম্বে অস্ত্রোপচার করেছিলেন এবং বলেছিলেন যে ২০২৪ সম্ভবত সফরে তার শেষ বছর হবে।