শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ও তাদের আশ্রয়দাতাদের চাহিদা পূরণে পাশে আছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির ভেন্যু নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব শুক্রবার কেটে যাবে: হারুন ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচের দিন ঝড়বৃষ্টির শঙ্কা চিকিৎসকরা উপজেলায় যেতে চান না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সচিবরা নিজেদের রাজা মনে করেন: হাইকোর্ট বিএনপি চায় কমলাপুর স্টেডিয়াম, ডিএমপি বলছে বাঙলা কলেজ নারী শিক্ষার প্রসারে বেগম রোকেয়ার অবদান অন্তহীন প্রেরণার উৎস: প্রধানমন্ত্রী ‘বিয়ে’ করছেন শুভ-অন্তরা! দুজনেরই সিদ্ধান্ত বিয়ে করব না: নুসরাত ফারিয়া স্পিকারের সঙ্গে চীন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ হাসপাতালে রোগীদের বারবার একই টেস্ট বন্ধ কর‍তে হবে : মেয়র আতিক নয়াপল্টনে ‘সহিংসতা’র সুষ্ঠু তদন্ত চায় যুক্তরাষ্ট্র ফখরুল সাহেব, হুঁশ হারাবেন না, অবস্থা শিশুবক্তার মতো হবে: হানিফ রাঙ্গাবালীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ  সাঁথিয়ায় অটোবাইক চাপায় প্রাণ গেল শিশুর

দেশে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের স্বল্পতা প্রকট : সায়মা ওয়াজেদ

দেশে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের স্বল্পতা প্রকট : সায়মা ওয়াজেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : 
মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে এমনিতে আমাদের গবেষণা খুবই কম। চিকিৎসকরাও মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ পাচ্ছেন না। তাদের এ বিষয়ে আরও অনেক বেশি প্রশিক্ষণ দরকার। এমনকি রোগীর তুলনায় আমাদের দেশে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের স্বল্পতাও প্রকট। এসব কথা জানিয়েছেন সূচনা ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন ও জাতিসংঘ মহাসচিবের মানসিক স্বাস্থ্যবিষয়ক উপদেষ্টা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল।

রোববার (৬ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সম্মেলন কক্ষে ‘কমিউনিটি পর্যায়ে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণে পর্যালোচনা’ শীর্ষক এক কর্মশালায় অনলাইনে যুক্ত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

সায়মা ওয়াজেদ বলেন, মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে ‘আইন, নীতিমালা ও কৌশলপত্র প্রণয়নসহ বাংলাদেশের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ রয়েছে। এখন প্রয়োজন তৃণমূল পর্যায়ে মানসিক স্বাস্থ্যসেবাকে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া। মানসিক স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি জনগণের মধ্যে মানসিক সুস্থতা সম্পর্কে সচেতনতাও সৃষ্টি করা জরুরি।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে মেন্টাল হেলথ নিয়ে রেগুলেটরি কমিটি থাকা দরকার, অথচ তা নেই। গত ১৫ বছরেও তা হয়নি। এই কমিটি না থাকলে আমরা বুঝতে পারব না, কে বা কারা উপযুক্ত মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসা দিচ্ছেন।

মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসা কোনো দেশেই খুব ভালো নেই মন্তব্য করে সায়মা ওয়াজেদ বলেন, আমাদের মেন্টাল হেলথ ইনস্টিটিউট আছে, কেবল এটিকে আরও উন্নত করতে হবে। আমাদের দেশে এ নিয়ে কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে।

পুতুল বলেন, যেকোনো হাসপাতালে সার্ভিস সেন্টার না থাকলে, ভালো চিকিৎসা হবে না। তাই, শুধু নতুন হাসপাতাল করে কোনো লাভ নেই। হাসপাতালে বেড বাড়ানোর পাশাপাশি আমাদের বেশি দরকার হচ্ছে যারা চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন, তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক, বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *