ঢাকা ০৯:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
ব্রেকিং নিউজ ::
চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষে নিহত ২ :: ঢাকা কলেজের সামনে সংঘর্ষে যুবক নিহত :: রংপুরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বেরোবি শিক্ষার্থী নিহত :: ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন :: রণক্ষেত্র মহাখালী, পুলিশ বক্সের সামনে দুটি মোটরসাইকেলে আগুন :: চার শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ, উত্তাল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা :: আজও ছাত্রলীগের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, রণক্ষেত্র ঢাবি

দেশের মানুষ বন্দি- আব্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৬:০৫:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪
  • / ৪২০ বার পড়া হয়েছে
বাংলা খবর বিডি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

দেশের মানুষের মাঝে ঈদের খুশি নেই। রাজনৈতিক সামাজিক, অথনৈতিক এবং ভৌগলিক সব দিক দিয়েই বন্দি হয়ে আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে শেরেবাংলা নগরে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে দলের সিনিয়র নেতাকর্মীদের নিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এসময় মির্জা আব্বাস বলেন, সরকার নিজেদের প্রভুত্ব বিকিয়ে দেয়ায় সার্বোভৌমত্বের বিষয়ে কোন সিধান্ত নিতে পারছেনা।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘ আজকে দেশের মানুষ চারিদিক থেকে অক্টোপাসের মতো বন্দি অবস্থায় আছে। কি রাজনৈতিক, কি অর্থনৈতিক, কি সামাজিক, কি ভৌগোলিক। আমি যদি ভৌগোলিক অবস্থার কথা বলি আমরা কিন্তু ভালো অবস্থানে নাই, শান্তিতে কিন্তু আমরা নাই।’

‘আপনি দেখেন সেন্ট মার্টিন একটা দ্বীপ নিয়ে যে দ্বীপ একেবারেই বাংলাদেশের অভ্যন্তরে… সেই দ্বীপে আজকে খাদ্য সংকট পড়েছে। একদিকে তো অভাব যদি আমরা নাও বলি… তাহলে সেই দ্বীপ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ওখানে খাদ্য সরবারহ করা যাচ্ছে না। কার ভয়ে? মিয়ানমার সৈন্যবাহিনীর ভয়ে।’

তিনি বলেন, ‘অথচ ১৯৭৮-৭৯‘র দিকে সালের দিকে এই মিয়ানমার নতজানু হয়ে বাংলাদেশের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি (জিয়াউর রহমান) তার কাছ থেকে মাফ চেয়ে বিদায় নিয়েছিলো। সেই মিয়ানমার আজকে কতটুকু উদ্যোত্ত হয়ে গেছে যে, তারা আমাদের রাষ্ট্রকে রক্তচক্ষু দেখায়।’

‘ কারণ এদেশে একটা অবৈধ সরকার, অনির্বাচিত সরকার যাদের দেশে ভেতরে ও বাইরে কারোই সমর্থন এই সরকারের প্রতি নাই। এই কারণেই আজকে তারা (মিয়ানমার) সুযোগ নিচ্ছে। আর যদি বলি, আরো বহু দেশ আছে তারা বাংলাদেশের ওপরে খবরদারি করছে। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব আজকে অন্যের হাতে বিকিয়ে দিয়ে এই সরকার নিজে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না।

মহানগর উত্তরের নেতা আমিনুল হক, যুব দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম মুন্না স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহসান, ছাত্র দল সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রাকিব, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আবদুর রহিম, জাসাসের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন রোকনসহ কয়েকটি অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরাও ঈদের দিন তাদের প্রয়াত নেতার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

দেশের মানুষ বন্দি- আব্বাস

আপডেট সময় : ০৬:০৫:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

দেশের মানুষের মাঝে ঈদের খুশি নেই। রাজনৈতিক সামাজিক, অথনৈতিক এবং ভৌগলিক সব দিক দিয়েই বন্দি হয়ে আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে শেরেবাংলা নগরে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে দলের সিনিয়র নেতাকর্মীদের নিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এসময় মির্জা আব্বাস বলেন, সরকার নিজেদের প্রভুত্ব বিকিয়ে দেয়ায় সার্বোভৌমত্বের বিষয়ে কোন সিধান্ত নিতে পারছেনা।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘ আজকে দেশের মানুষ চারিদিক থেকে অক্টোপাসের মতো বন্দি অবস্থায় আছে। কি রাজনৈতিক, কি অর্থনৈতিক, কি সামাজিক, কি ভৌগোলিক। আমি যদি ভৌগোলিক অবস্থার কথা বলি আমরা কিন্তু ভালো অবস্থানে নাই, শান্তিতে কিন্তু আমরা নাই।’

‘আপনি দেখেন সেন্ট মার্টিন একটা দ্বীপ নিয়ে যে দ্বীপ একেবারেই বাংলাদেশের অভ্যন্তরে… সেই দ্বীপে আজকে খাদ্য সংকট পড়েছে। একদিকে তো অভাব যদি আমরা নাও বলি… তাহলে সেই দ্বীপ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ওখানে খাদ্য সরবারহ করা যাচ্ছে না। কার ভয়ে? মিয়ানমার সৈন্যবাহিনীর ভয়ে।’

তিনি বলেন, ‘অথচ ১৯৭৮-৭৯‘র দিকে সালের দিকে এই মিয়ানমার নতজানু হয়ে বাংলাদেশের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি (জিয়াউর রহমান) তার কাছ থেকে মাফ চেয়ে বিদায় নিয়েছিলো। সেই মিয়ানমার আজকে কতটুকু উদ্যোত্ত হয়ে গেছে যে, তারা আমাদের রাষ্ট্রকে রক্তচক্ষু দেখায়।’

‘ কারণ এদেশে একটা অবৈধ সরকার, অনির্বাচিত সরকার যাদের দেশে ভেতরে ও বাইরে কারোই সমর্থন এই সরকারের প্রতি নাই। এই কারণেই আজকে তারা (মিয়ানমার) সুযোগ নিচ্ছে। আর যদি বলি, আরো বহু দেশ আছে তারা বাংলাদেশের ওপরে খবরদারি করছে। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব আজকে অন্যের হাতে বিকিয়ে দিয়ে এই সরকার নিজে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না।

মহানগর উত্তরের নেতা আমিনুল হক, যুব দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম মুন্না স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহসান, ছাত্র দল সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রাকিব, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আবদুর রহিম, জাসাসের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন রোকনসহ কয়েকটি অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরাও ঈদের দিন তাদের প্রয়াত নেতার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।